১৭ এপ্রিল ২০২১
`

‘‌৪ ধরনের করোনাভাইরাস ঘুরে বেড়াচ্ছে’‌

করোনাভাইরাস - ছবি সংগৃহীত

‌চার ধরনের করোনাভাইরাস ঘুরে বেড়াচ্ছে গোটা বিশ্বজুড়ে। ২০১৯ সালে চীনের ইউহান প্রদেশ থেকে ছড়িয়ে পড়ার পর বেশ কয়েকবার চরিত্র বদলেছে সার্স–কোভ–২। বিভিন্ন দেশে নানা উপসর্গের সন্ধান মিলেছে, যা থেকেই স্পষ্ট, করোনাভাইরাসের মিউটেশন ঘটেছে বেশ কয়েকবার, জানাচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

হু বলছে, ইউহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের ওই প্রজাতির চরিত্রে প্রথম বদল ঘটে জানুয়ারির শেষের দিকে কিংবা ফেব্রুয়ারির শুরুতে। সেই সময়ে ভাইরাসের যে স্ট্রেন সংক্রমণ ছড়িয়েছিল, তার নাম ডি৬১৪জি। জুনেই মধ্যে এই প্রজাতির করোনাভাইরাসই গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছিল। হু জানাচ্ছে, প্রথম প্রজাতির তুলনায় দ্বিতীয় স্ট্রেন অনেক দ্রুত সংক্রমণ ছড়াতে পারলেও মারণ ক্ষমতা কম। যার ফলে করোনা চিকিৎসায় বিশেষ প্রভাব পড়েনি।

আগস্ট–সেপ্টেম্বর নাগাদ আরও এক ধরনের করোনাভাইরাসের সন্ধান মেলে, যার নাম দেয়া হয়েছে ‘‌ক্লাস্টার–৫’। ‌মূলত ইঁদুর, ছুঁচো জাতীয় প্রাণীর শরীর থেকে মানুষের শরীরে সংক্রমিত হয়েছে ওই প্রজাতি। ডেনমার্কে প্রথম ওই স্ট্রেনের খোঁজ পাওয়া যায়। অবশ্য দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে না ‘‌ক্লাস্টার–৫’, তবে মারণ ক্ষমতা বেশি।

তারপর ডিসেম্বরের মাঝামাঝিতে ফের নয়া প্রজাতির করোনাভাইরাসের হদিশ মেলে। যার নাম দেওয়া হয়েছে, সার্স–কোভ–২ ভিওসি ২০২০১২/‌০১। এই স্ট্রেনের উৎপত্তি নিয়ে এখনও সেভাবে কিছুই জানা যায়নি। জানা গেছে, ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যেই বিশ্বের ৩১টি দেশে এই নতুন চরিত্রের ভাইরাস ধরা পড়েছে। ১৮ ডিসেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকার তিনটি প্রদেশে একটি নতুন চরিত্রের করোনাভাইরাসের খোঁজ পাওয়া যায়, যার নাম দেয়া হয়েছে ‘‌501Y.V2’‌। এই নতুন স্ট্রেন বিশ্বের আেরা চার দেশে পাওয়া গেছে।

সূত্র : আজকাল



আরো সংবাদ