২৮ অক্টোবর ২০২০

করোনা ভাইরাস সবথেকে বেশি ছড়ায় বায়ুতে, গবেষণায় তথ্য


ফের এক গবেষণায় উঠে এল নতুন তথ্য। বায়ুবাহিত জলকণা যাত্রা করতে পারে ছ’‌ফুটেরও বেশি দূরত্ব। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংস্থা সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (‌সিডিসি)‌ নতুন একটি গবেষণায় দেখিয়েছে যে করোনা ভাইরাস সবথেকে বেশি ছড়ায় বায়ুতে। 

গত ১৮ সেপ্টেম্বর একটি নির্দেশাবলী পেশ করে তারা। সেখান থেকেই জানা যায়, যখন কোনও কোভিড আক্রান্ত ব্যক্তি হাঁচি বা কাশি বা কথা বলেন, তখন তার মুখ থেকে বেরনো জলকণা বাতাসে ভেসে বেড়াতে পারে। আর সেখান থেকেই সবথেকে বেশি সংক্রমণ হয়। যতটা না কোনও ক্ষেত্র বা তল থেকে সংক্রমণ হয়, তার থেকে অনেক বেশি সংক্রমণ হয় বায়ুবাহিত জলকণার মাধ্যমে।

বলা হয়েছে, এটাই মূল পদ্ধতি সংক্রমণের। সংক্রামিত ব্যক্তির শরীর থেকে এভাবেই অন্য ব্যক্তির শরীরে পৌঁছায় করোনা। মুখ বা নাক দিয়েই মূলত প্রবেশ করে ভাইরাস। তারপর ফুসফুসে গিয়ে পৌঁছায়। এবং জলকণাগুলো বাতাসে বেশ খানিকক্ষণ ভেসে থাকতে পারে। ছ’‌ফুটেরও বেশি দূরত্বে যাত্রা করতে পারে। যদি বদ্ধ কোনও ঘরে একসঙ্গে অনেকে থাকেন, সেখানে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি থাকলে তখন সংক্রমণের প্রভূত সম্ভাবনা তৈরি হয়। জলকণাগুলি বেরতে পারে না। ঘরের মধ্যে আটকে থাকে। এবং অন্যান্য ব্যক্তির শরীরে প্রবেশ করবেই তখন। তাই জন্য বাতাস চলাচল করার জন্য জানলা দরজা খুলে রাখা দরকার। সঙ্গে ভাল মাস্ক পরাটা বাধ্যতামূলক। এবং নির্দিষ্ট পরিমাণ দূরত্ব রাখা প্রয়োজন অপরের থেকে।


আরো সংবাদ