২৩ জানুয়ারি ২০২১
`

ওজন কমানো নিয়ে মনে যত প্রশ্ন

ওজন কমানো নিয়ে মনে যত প্রশ্ন -

ওজন কমাতে হলে আপনার খাদ্যদ্রব্য থেকে ক্যালরি কমাতে হবে। কেননা, অতিরিক্ত ক্যালরি শরীরে চর্বি হয়ে জমতে থাকে। আপনার শরীরের ওজন যদি বেশি হয়, সে ক্ষেত্রে প্রতিদিনের চাহিদার তুলনায় আপনি ৮০০ ক্যালরি কম খাবেন। এতে ছয় সপ্তাহের মধ্যে আপনার ওজন ১০ পাউন্ড কমে যাবে। আপনি গরুর গোশত, দুগ্ধজাত খাবার, তেল প্রভৃতি বাদ দিয়ে মাছ, শাকসবজি বেশি খান। তবে একটি কথা মনে রাখবেন, ক্যালরি কমাতে গিয়ে তাড়াহুড়ো করবেন না। লিখেছেন ডা: মিজানুর রহমান কল্লোল
চর্বিজাতীয় খাবার পরিহার করতে হবে। দৈনিক দুই হাজার ৪০ গ্রামের অধিক চর্বি খাওয়া যাবে না। মাখন, ঘি, স্নাক্স প্রভৃতির বদলে ফলমূল, শাকসবজি খান। দৈনিক যদি ১০০ গ্রামের বেশি চর্বি খাওয়া পড়ে তাহলে শরীরে প্রচুর মেদ জমে। সুতরাং চর্বি থেকে সাবধান।

তরল খেলে কি ওজন কমে?
হ্যাঁ, আপনি যদি দৈনিক সকালে কিংবা দুপুরে শুধু তরল খাবার খান তাহলে আট মাসে আপনার ওজন ১০ পাউন্ড কমে যাবে। এ ক্ষেত্রে স্যুপ বা ফলের রস খাওয়া যেতে পারে। আর যদি দৈনিক দুই বেলা তরল খাবার খান, তাহলে মাত্র পাঁচ সপ্তাহে আপনার ১০ পাউন্ড ওজন কমবে। তবে খেয়াল রাখবেন, আপনার তরল খাবারে যেন পুষ্টিমান বজায় থাকে।

হাঁটা কি ওজন কমানোর জন্যে ভালো?
হ্যাঁ, ওজন কমানোর জন্য হাঁটা এক চমৎকার পন্থা। যদি আপনি তিন মাইল বেগে ৪৫ মিনিট হাঁটেন এবং সপ্তাহে পাঁচ দিন যদি এরকম হাঁটেন তাহলে ছয় মাসের মধ্যে আপনার ওজন ১০ পাউন্ড কমে যাবে। যদি সময় করে উঠতে না পারেন তাহলে কর্মস্থলে যাওয়ার সময় অন্তত ১৫ মিনিট জোরে হাঁটুন, লাঞ্চের সময় হাঁটুন ১৫ মিনিট, বিকেলে কিছুটা হাঁটুন আর হাঁটুন রাতে খাবার পর। তবে হাঁটার জন্য প্রতিদিন একটি নির্দিষ্ট সময় মেনে চললে ভালো হয়।

দ্রুত ওজন কমানোর জন্য কী ধরনের ব্যায়াম করা উচিত?
খালি হাতে সপ্তাহে তিন থেকে পাঁচ দিন ৩০ থেকে ৪০ মিনিট ব্যায়াম করলে আপনার শরীরের ওজন ও মেদ কমে যাবে। দ্রুত ওজন কমানোর জন্য ব্যায়াম এক উৎকৃষ্ট পদ্ধতি। প্রতিদিন ৪৫ মিনিট জগিং করুন, ৯ মিনিট এক মাইল পথ অতিক্রম করুন। সপ্তাহে পাঁচ দিন একরম করলে তিন মাসের মধ্যে আপনার ওজন ১০ পাউন্ড কমে যাবে। আর যদি ১২ মিনিটে এক মাইল পথ দৌড়ান, তাহলে আপনার কাক্সিক্ষত ওজন কমতে সময় লাগবে প্রায় সাড়ে চার মাস। অথবা আপনি যদি সপ্তাহে চার ঘণ্টা সাঁতার কাটতে পারেন, তাহলে চার মাসেই আপনার ওজন ১০ পাউন্ড কমবে। কিংবা আপনি সাইকেল চালাতে পারেন। আপনি যদি ঘণ্টায় ৯ মাইল বেগে সপ্তাহে চার ঘণ্টা সাইকেল চালান, তাহলে পাঁচ মাসের মধ্যে আপনার ওজন ১০ পাউন্ড কমবে।
ওজন কমানোর জন্য কী করা উচতি নয়?
তাড়াহুড়ো করবেন না। এটা ঝুঁঁকিপূর্ণ এবং এতে আপনি স্লিম হতে পারবেন না। ডায়েটিং করতে গিয়ে কেবল এক জাতীয় খাবার খাবেন না। সব ধরনের খাবার সঠিক অনুপাতে খাবেন। খাবার থেকে একেবারেই ক্যালরি বাদ দেবেন না। খাওয়া ছেড়ে দিয়ে উপবাস করবেন না। এতে আপনার শরীরে পানির প্রচুর ঘাটতি হবে এবং আপনার পেশি দুর্বল হয়ে যাবে। ব্যায়াম করছেন মনে করে অতিরিক্ত খাবেন না। পেটপুরে খাবার অভ্যাস ত্যাগ করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ডায়েটিং করবেন না। কিংবা ওজন কমানোর ওষুধ খাবেন না।

ওজন কমাতে গেলে কি চর্বি খাওয়া একেবারেই বন্ধ করে দিতে হবে?
চর্বিতে ক্যালরির পরিমাণ কার্বোহাইড্রেট কিংবা প্র্রোটিনের চেয়ে বেশি থাকে, তাই ওজন কমাতে গেলে চর্বি জাতীয় খাবার কম খেলে তাড়াতাড়ি উপকার পাওয়া যায়। কিন্তু একটি কথা মনে রাখতে হবে, প্রোটিনের মধ্যে যেমন অ্যাসেনশিয়াল বা অতিপ্রয়োজনীয় এমাইনো এসিড থাকে, তেমিন চর্বির মধ্যে থাকে অতিপ্রয়োজনীয় ফ্যাটি এসিড। বাইরে থেকে প্রতিদিন সমস্যা হতে পারে। তাই চর্বি খাওয়া একেবারেই বন্ধ করা উচিত নয়। ওজন কমানোর জন্য চর্বি খাওয়া কমিয়ে দিতে হবেÑ কিন্তু পুরোপুরি বন্ধ করা যাবে না।

লেখক : সহযোগী অধ্যাপক, অর্থোপেডিকস ও ট্রমা বিভাগ, ঢাকা ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল।
চেম্বার-১ : পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার লি:, ২, ইংলিশ রোড, ঢাকা। ফোন : ০৯৬১৩৭৮৭৮০২
চেম্বার-২ : আজগর আলী হসপিটাল, ১১১/১/এ ডিস্টিলারি রোড, গেন্ডারিয়া, ঢাকা।
ফোন : ০১৭৮৭৬৮৩৩৩৩, ১০৬০২



আরো সংবাদ


৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতির নির্দেশ পূর্বাচলে আগুনে পুড়ে একই পরিবারের চারজনের মৃত্যু ফরিদপুরে আ’লীগ কার্যালয়ে জাফরউল্লাহ-নিক্সন অনুসারীদের পাল্টা-পাল্টি তালা কারাবিধি ভঙ্গ, দুটি তদন্ত কমিটি গঠিত শুটিংয়ে ৩৩২ কোটি টাকার প্রজেক্ট বড়াইগ্রামে স্কুলশিক্ষিকা শেফালী’র ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স ও তার স্বপ্ন চোর সন্দেহে যুবককে গণপিটুনি, চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু কালিয়াকৈরে অটোরিকশার ধাক্কায় পুলিশ সদস্য নিহত শহীদ জিয়ার ৮৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বগুড়ায় মহিলা দলের আলোচনা সভা ২০৪১ সালের আগেই দেশ সোনার বাংলায় পরিণত হবে : তথ্যমন্ত্রী নিখোঁজের ১০ দিন পর নদীতে মিললো শিশুর লাশ

সকল