০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ১৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

বেলজিয়ামের দুর্দশা, আছে কঠিন সমীকরণ

বেলজিয়ামের দুর্দশা, আছে কঠিন সমীকরণ - ছবি : সংগৃহীত

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে প্রতি ম্যাচেই গড়ে তিনটি করে গোল দেয়া বেলজিয়াম বিশ্বকাপে এসে মুদ্রার উল্টো পিঠ দেখছে। গোল খড়ায় ভুগছে দলটি, গোল করতেই যেন ভুলে গেছে। প্রথম ম্যাচে কানাডার বিপক্ষে ১-০ গোলে জয় পেলেও দ্বিতীয় ম্যাচে মরক্কোর কাছে ২-০ গোলে হেরে গেছে ইডেন হ্যাজার্ডের দল। ফলে কঠিন সমীকরণের সম্মুখীন এখন বেলজিয়াম।

বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় আহমেদ বিন আলি স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে ক্রোয়েশিয়া-বেলজিয়াম। শেষ ১৬-তে যেতে হলে জিততেই হবে বেলজিয়ামকে, হারলে এখানেই শেষ বিশ্বকাপ, ড্র করলে তাকিয়ে থাকতে হবে কানাডা-মরক্কো ম্যাচে। এই মুহূর্তে তিন পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার তিনে বেলজিয়াম, ওপরে থাকা ক্রোয়েশিয়া ও মরক্কোর পয়েন্ট সমান চার।

ফলে আজ ক্রোয়েশিয়াকে হারাতে পারলে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শেষ ১৬ নিশ্চিত হবে বেলজিয়ামের। তবে হেরে গেলে বিদায়, তখন ৭ পয়েন্ট নিয়ে সুপার ১৬-তে পা রাখবে ক্রোয়েশিয়া। ড্র করলেও সুপার ১৬-তে উঠে যাবে ক্রোয়েশিয়া। তবে ক্রোয়েশিয়া যদি হেরে যায় কিংবা বেলজিয়াম যদি ড্র করে ফেলে, তবে ভাগ্য নির্ধারণ হবে মরক্কো-কানাডা ম্যাচে।

এমতাবস্থায় মরক্কো-কানাডা ম্যাচে যদি মরক্কো জিতে যায় বা ম্যাচ ড্র হলে আগের ম্যাচের জয়ী দল মরক্কোকে নিয়ে শেষ ১৬-তে যাবে। তবে দু’ম্যাচই ড্র হলে মরক্কো ও ক্রোয়েশিয়া উঠে যাবে শেষ ১৬-তে। আর যদি মরক্কো ও ক্রোয়েশিয়া উভয় দলই হেরে যায়, তবে বেলজিয়াম সরাসরি শেষ ১৬ নিশ্চিত করবে। বিপরীতে মরক্কো ও ক্রোয়েশিয়ার মাঝে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকা দল সুযোগ পাবে সুপার ১৬-তে।

বিপরীতে প্রথম দু’ম্যাচেই হারের ফলে কোনো পয়েন্ট না পাওয়ায় কানাডার বিশ্বকাপ ইতোমধ্যেই শেষ। এই ম্যাচ তাদের জন্য শুধুই আনুষ্ঠানিকতার। তবে শেষ ম্যাচ জিতে দেশে ফিরতে চায়বে তারা। আর তা যদি হয়, তবে শেষ ১৬ সমীকরণ কঠিন করে তুলবে কানাডা।


আরো সংবাদ


premium cement