০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ১৫ রজব ১৪৪৪
ads
`
রোনালদো-ফার্নান্দেজের নৈপুণ্যে

এক ম্যাচ হাতে রেখেই নকআউট পর্ব নিশ্চিত করল পর্তুগাল

এক ম্যাচ হাতে রেখেই নকআউট পর্ব নিশ্চিত করল পর্তুগাল। - ছবি : সংগৃহীত

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও ব্রুনো ফার্নান্দেজের নৈপুণ্যে এক ম্যাচ হাতে রেখেই নকআউট পর্ব নিশ্চিত করল পর্তুগাল। সোমবার রাতে বিশ্বকাপের এইচ গ্রুপের ম্যাচে পর্তুগালের মুখোমুখি হয় উরুগুয়ে। লুসাইল স্টেডিয়ামের ম্যাচে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলেছে পর্তুগাল। বল দখলেও আধিপত্যটা জোরালোভাবেই ধরে রেখেছিল রোনালদোর দল। তবে ম্যাচের প্রথমার্ধে গোল না হলেও দ্বিতীয়ার্ধে উরুগুয়েকে ২-০ গোলে হারিয়েছে পর্তুগাল।

প্রথমার্ধে একের পর এক আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে গেলেও গোল করতে পারেনি কোনো দলই। ম্যাচের বেশিরভাগ সময় বলের দখল ছিল পর্তুগালেরই। এমনকি আক্রমণেও বেশিবার গিয়েছে পর্তুগিজরা। তবে প্রথমার্ধে একটি শটও অন টার্গেটে নিতে পারেনি তারা। তুলনামূলক কম সময় বল পায়ে থাকলেও প্রথমার্ধে একটি অন টার্গেট শট নিয়েছিল উরুগুয়ে। দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য খেলা আরো জমে ওঠে। গোটা ম্যাচে দু'দলই একে অন্যের গোলবার বরাবর ১০ বারের বেশি শট নিয়েছে। এছাড়া দু'দলই ৩টি করে শট অন টার্গেটে নিতে সক্ষম হয়।

প্রথম ম্যাচে চোট পাওয়ায় আজ পর্তুগালের হয়ে দানিলোর পরিবর্তে মাঠে নেমেছিলেন পেপে। অন্যদিকে লুইস সুয়ারেজের পরিবর্ত খেলতে নেমেছিলেন এডিনসন কাভানি।

ম্যাচের ছয় মিনিটের মাথাতেই হলুদ কার্ড দেখেন উউরুগুইয়ান মিডফিল্ডার রদ্রিগো বেনটানকুর। ফলে শুরুতেই একটি ফ্রি কিক পেয়ে যায় পর্তুগাল।
বক্সের সামনে থেকে ফ্রি কিক নেন পর্তুগিজ অধিনায়ক ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। কিন্ত সেই শট থেকে গোল হওয়ার সম্ভাবনা রুখে দেয় উরুগুইয়ান রক্ষণভাগ। কিছুক্ষণ পর আবারো গোলের সুযোগ তৈরির চেষ্টা করেন রোনাল্ডো। তিনি বল বাড়িয়ে দেন ফার্নান্দেজের দিকে, ফার্নান্দেজ উরুগুয়ের ডিফেন্সে ফাঁকা জায়গা পেয়ে খুঁজছিলেন সিলভাকে, কিন্তু তার আগেই দিয়েগো গোডিন বিল্ড আপ নষ্ট করে দেন।

১৮ মিনিটের মাথায় ম্যাতিয়ান ভ্যাসিনো মেন্দেজকে চ্যালেঞ্জ করলে আবারো বক্সের বাইরে থেকে ফ্রিকিক পায় পর্তুগাল। যথারীতি ফ্রি কিক নিতে আসেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। কিন্তু তার শট বারে লেগে ফিরে আসে। প্রথম ৩০ মিনিট বলের নিয়ন্ত্রণ রাখতে বেশ হিমশিমই খাচ্ছিল উরুগুয়ে।

৩২ মিনিটের মাথায় লিড নেওয়ার সুযোগ পেয়েছিল উরুগুয়ে। দু তিনজন খেলোয়াড়কে কাটিয়ে বল নিয়ে বেশ খানিকটা ড্রিবল করে ডি বক্সের কোনা থেকে শট নিয়েছিলেন ভ্যাসিনো। তবে ঝাঁপিয়ে পড়ে সেই শট সেভ করেন পর্তুগিজ কিপার কোস্তা।

পর্তুগালের বারবার আক্রমণে ধাক্কা খেয়েছে উরুগুয়ের রক্ষণভাগ। বরাবরই উরুগুয়ের ডিফেন্ডারদের ব্যস্ত রাখছিলেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডরা। যদিও গোল পায়নি তারা, রাখতে পারেনি কোনো অন টার্গেট শট। উল্টো ৪২ মিনিটে গিয়ে ঘাড়ে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন অভিজ্ঞ পর্তুগিজ তারকা নুনো মেন্ডেজ। ফলে গোলশূন্য থেকেই বিরতিতে গিয়েছে দুই দল।

বিরতির পর আক্রমণের ধার আরও বাড়ায় পর্তুগাল। ম্যাচের ৫৪ মিনিটের মাথায় মাঝমাঠ থেকে বল ফার্নান্দেজের দিকে বাড়িয়ে দেন রাফায়েল গেরেরা। সেই বল রিসিভ করে মাঠের বাম প্রান্ত থেকে ক্রস করে উড়িয়ে মারেন ব্রুনো ফার্নান্দেস। সেই ক্রসে লাফিয়ে উঠে মাথা ছুঁইয়ে উরুগুয়ের জালে বল ঢোকাতে সক্ষম হন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। যদিও গোলটি লেখা হয়েছে ব্রুনো ফার্নান্দেজের নামেই। এই গোলের সুবাদে ম্যাচে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় পর্তুগাল।

৭৩ মিনিটের মাথায় এডিনসন কাভানির বদলি হিসেবে খেলতে নামেন লুইস সুয়ারেজ। ৭৭তম মিনিটে সুয়ারেজকে ট্যাকল করতে গিয়ে হলুদ কার্ড দেখে বসেন হোয়াও ফেলিক্স। ফলে ফ্রি কিক পেয়ে যায় উরুগুয়ে। জর্জিয়ান অ্যারাসকায়েতার কিক রিসিভ করে গোল করার চেষ্টা করলেও বারের বামপাশের জাল ছুঁয়ে বেরিয়ে যায় বল। ফলে বড় ফাঁড়া কাটে পর্তুগালের।

৮৪ মিনিটের মাথায় আরেকবার উরুগুয়ের রক্ষণে পাল্টা আঘাত হানার সুযোগ পায় পর্তুগাল। ব্রুনো ফার্নান্দেজের পা থেকে বল পেয়ে যান রাফায়েল লিয়াও। মাঝমাঠে কিছুটা স্পেস পেয়ে সেখান থেকেই শট নেন তিনি। কিন্তু বল গড়িয়ে চলে যায় বারের পাশ দিয়ে। নষ্ট হয় আরেকটি গোলের সুযোগ।

খেলার নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে গিয়ে জিমেনেজের হাতে সম্পূর্ণ অনিচ্ছাকৃতভাবে বল লাগলে ভিএআর চেকিং এ নিশ্চিত হয়ে পর্তুগালকে পেনাল্টি দেওয়ার সিদ্ধান্ত দেন রেফারি। সেই পেনাল্টি থেকে ম্যাচের দ্বিতীয় গোলটি করেন ব্রুনো ফার্নান্দেজ।

এবারের বিশ্বকাপের ডার্কহর্স পর্তুগাল বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে ক্যামেরুনকে ৩-২ গোলে হারিয়েছিল। অন্যদিকে নিজেদের প্রথম দক্ষিণ কোরিয়ার সাথে গোলশূন্য ড্র করেছিল উরুগুয়ে। ফলে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে ছিল ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল। আজকের ম্যাচটি জিতে ৬ পয়েন্ট নিয়ে এইচ গ্রুপের শীর্ষে থকে শেষ ১৬ নিশ্চিত করল পর্তুগাল। বিদায় ঘন্টা বেজে গেল সুয়ারেজ-কাভানিদের।

চার বছর আগে রাশিয়া বিশ্বকাপের শেষ ষোলতে উরুগুয়ের কাছে হেরেই বিদায় নিয়েছিল পর্তুগাল। এডিনস কাভানির জোড়া গোলে শেষ আটে গিয়েছিল উরুগুয়ে। আজ উরুগুয়ের বিশ্বকাপ মিশন শেষ করে একরকম প্রতিশোধই নিল পর্তুগাল।


আরো সংবাদ


premium cement
ভূমিকম্পে তুরস্ক ও সিরিয়ায় মৃত্যু বেড়ে ৪,৩৭২ বরফ-জমা ঠান্ডায় চলছে উদ্ধারকাজ রুশ-ইউক্রেন দ্বন্দ্ব আরো বড় যুদ্ধের দিকে এগোচ্ছে, আশঙ্কা জাতিসঙ্ঘ মহাসচিবের তুরস্কে কেন এত ভয়ঙ্কর ভূমিকম্প হয়! ভূমিকম্পে তুরস্ক ও সিরিয়ায় নিহতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩,৮০০ তুরস্ক-সিরিয়ায় ভূমিকম্পে নিহত ৩৬০০, হতে পারে ৮ গুণ রাশিয়ার জাহাজ ফিরিয়ে দেয়া বাংলাদেশের স্বার্থের অনুকূল নয় : রাশিয়ার পররাষ্ট্র দফতর ইরান ও ইরাকি প্রতিপক্ষকে হারাল বাংলাদেশী দাবাড়ুরা নেইমারের জন্মদিন অনুষ্ঠানে মেসি গফরগাঁওয়ে বৃদ্ধের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার দেশ, জাতি ও ইসলামের প্রশ্নে ছাত্রশিবির নিবেদিত প্রাণ : শিবির সভাপতি

সকল