০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ৬ জিলহজ ১৪৪৩
`

সেই রাতের কথা ভুলেননি সালাহ

রামোসের একটি ট্যাকলে চোট পান সালাহ - ছবি -ডেইলি মেইল

সেইবার খুব চমৎকার একটা মৌসুম কাটিয়েছিলাম। প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল খেলব! কিন্তু যা ঘটেছিল। আমার ফুটবল ক্যারিয়ারের সবচেয়ে জঘন্য রাত ছিল সেটা। অক্ষেপের সুরেই কথাগুলো বলছিলেন মিসরীয় ফুটবল রাজপুত্র মোহাম্মদ সালাহ।

২০১৮ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে উঠেছিল লিভারপুল। ক্যারিয়ারে প্রথম ফাইনালে খেলা নিয়ে অনেক স্বপ্ন বুনেছিলেন সালাহ। প্রতিপক্ষ ছিলো রিয়াল মাদ্রিদ, দলে ছিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, সার্জিও রামোস। খেলার শুরু থেকে দুর্দান্ত ছিলেন সালাহ। গ্যালারিতে সমর্থকদের উল্লাস। কিন্তু ৩০ মিনিট পার হতেই রামোসের একটি ট্যাকলে চোট পান সালাহ। এতোটাই মারাত্মক ছিল সে চোট যে, সালাহ খেলতেই পারেননি আর। কাঁদতে কাঁদতে মাঠ ছেড়েছিলেন তিনি। তার সাথে কেঁদেছিলেন ভক্তরাও। সেই ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদ ৩-১ গোলের জয় পেয়েছিল।

ব্যাথায় কাতরাচ্ছেন সালাহ

 

সেই রাতের কথা এখনো ভুলেননি সালাহ। তাই তো এবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের আগে রিয়াল মাদ্রিদকে প্রচ্ছন্ন এক হুমকি দিয়ে রেখেছেন তিনি। বলেছেন, রিয়াল মাদ্রিদের সাথে হিসেব বাকি আছে।

লিভারপুলের এই সুপারস্টার বলেন, ‘আমার মনে আছে, খেলার ৩০ মিনিট পর আমি যখন মাঠ ছেড়েছিলাম, সেটা ছিল আমার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বাজে মুহূর্ত। আমি একটি চমৎকার মৌসুম কাটিয়েছিলাম। এরপর আমার প্রথম চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল খেলা। মাঠে নামার পর আমার সাথে এমন কিছু ঘটতে পারে ভাবতেই পারিনি। আমার ফুটবল ক্যারিয়ারের সবচেয়ে জঘন্য রাত ছিল সেটা।’

চোট পেয়ে মাঠ থেকে বের হয়ে যাওয়ার সময় কাঁদছিলেন সালাহ। তাকে স্বান্ত্বনা দিচ্ছিলেন প্রতিপক্ষের খেলোয়াড় রোনালদো

 

চলতি মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আটটি গোল করেছেন সালাহ। আর প্রিমিয়ার লিগে করেছেন ২৩টি গোল।

আজ শনিবার বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে মুখোমুখি হবে লিভারপুল ও রিয়াল মাদ্রিদ। এ নিয়ে তৃতীয়বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে দল দুটি।

১৯৮১ সালে লিভারপুল রিয়াল মাদ্রিদকে ১-০ গোলে হারিয়েছিল। আর ২০১৮ সালে রিয়াল মাদ্রিদ ৩-১ গোলের জয় পেয়েছে।

সূত্র : ডেইলি মেইল ও বিবিসি

দেখুন:

আরো সংবাদ


premium cement