০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ৪ জিলহজ ১৪৪৩
`

এমবাপের পিএসজিতে থেকে যাওয়াকে কেন 'কলঙ্ক' বলছে লা লিগা?


স্পেনের ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদকে নাকচ করে ফ্রান্সের ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের সাথেই সম্পর্ক দীর্ঘায়িত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ফ্রান্সের তারকা ফুটবলার কিলিয়ান এমবাপে। তিন বছরের লোভনীয় এক চুক্তিতে সই করেছেন শনিবার রাতে।

২০১৮ সালের বিশ্বকাপজয়ী এমবাপের স্পেনে যাওয়ার কথাই জোরালো হচ্ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পিএসজির সাথেই চুক্তি করলেন তিনি।

স্পেনের লিগ লা লিগা কর্তৃপক্ষ বেশ ক্ষুব্ধ এক প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে এই চুক্তির খবর আসার পর।

এই চুক্তিকে 'কলঙ্কিত' বলে আখ্যা দিয়ে একটি বিবৃতি দিয়েছে লা লিগা, যেখানে বলা হচ্ছে ইউরোপিয়ান ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইউয়েফা এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করবে তারা।

লা লিগার বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘এই ধরনের চুক্তি ইউরোপিয়ান ফুটবলের ভারসাম্য নষ্ট করে।’

‘শত শত কাজের জায়গা এবং ক্রীড়াসুলভ ঐক্য এখানে হুমকির মুখে পড়ে। শুধু ইউরোপেই না, ঘরোয়া লিগেও এর প্রভাব থাকে।’

স্প্যানিশ ফুটবল লেখক গিলেম বালাগের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, এমবাপেকে ক্লাবে রাখার জন্য পিএসজি ১৫০ মিলিয়ন ইউরোর একটা চুক্তি তৈরি করেছিল গত মাসে। তখন এমবাপে স্পেনের ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের সাথে অর্থনৈতিক দিক থেকে একমত হয়েছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কার্লো আনচেলত্তির দলে যোগ দিলেন না।

এমবাপে বলছেন, পিএসজির সাথে থাকতে পেরে তিনি 'খুব খুশি'।

ফরাসী লিগের শেষ ম্যাচ খেলতে শনিবার মাঠে নামে পিএসজি। মেটজের বিপক্ষে এই ম্যাচে মাঠে নামার আগে পিএসজির প্রেসিডেন্ট নাসের আল খেলাইফি পার্ক দে প্রেন্সেসে এমবাপের সাথে নতুন চুক্তির সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন।

এমবাপে বিবৃতিতে বলেছেন, ‘আমি বিশ্বাস করি এই ক্লাবের সাথে আমি বেড়ে উঠতে পারবো এবং ক্লাব আমাকে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পারফর্ম করতে সাহায্য করবে।’

‘আমি ফ্রান্সে খেলতে পেরে খুশি, যে দেশে আমার জন্ম, বেড়ে ওঠা এবং প্রস্ফুটিত হওয়া।’

২০১৭ সালের আগস্টে এমবাপে এক মৌসুম ধারে খেলার জন্য মোনাকো থেকে পিএসজি যোগ দিয়েছিলেন।

পাঁচ বছরে পিএসজির চারটি ফ্রেঞ্চ লিগ শিরোপা জয়ে অবদান রেখেছেন তিনি।

পিএসজির সাথে কিলিয়ান এমবাপের চুক্তি ছিল চলতি বছরের জুন মাস পর্যন্ত, কাতারি মালিকানার এই ক্লাব এমবাপেকে ধরে রাখার জন্য মরিয়া হয়ে ছিল যে জন্য তাকে বছরে দুই কোটি ১০ লাখ পাউন্ডের প্রস্তাব দেয় ক্লাবটি।

রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দুই লেগে গোল করেও এমবাপে জয় এনে দিতে পারেননি পিএসজিকে।

ফরাসী লিগে ৩৫ ম্যাচে ২৮ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি, সাথে ১৭টি গোলে প্রত্যক্ষ সহায়কও ছিলেন তিনি।

'ফুটবলের জন্য অপমান'
লা লিগার প্রেসিডেন্ট হাভিয়ের তেবাজ আগে থেকেই পিএসজি, ম্যানচেস্টার সিটির মতো পয়সা ঢালা ক্লাবের বিপক্ষে সোচ্চার ছিলেন, তিনি ইউরোপিয়ান সুপার লিগ ধারণারও ঘোর বিরোধী।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি লেখেন, ‘সাম্প্রতিক মৌসুমগুলোতে পিএসজি ৭০ কোটি ইউরো ক্ষতির সম্মুখীন একটি ক্লাব, প্রায় ৬০ কোটি ইউরো বেতন দিয়ে আসছে, এটা ফুটবলের জন্য অপমানজনক।’

ফরাসী পেশাদার লিগ ফুটবলের পরিচালক সংস্থা্র দেয়া প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২০-২১ মৌসুমে পিএসজি প্রায় সোয়া ২০ কোটি ইউরো ক্ষতির মুখে পড়েছিল।

এর আগের মৌসুমে ক্ষতির পরিমাণ ছিল প্রায় সোয়া ১০ কোটি ইউরো, সেই বার কোভিডের কারণে ম্যাচ কমিয়ে আনা হয়েছিল।

তেবাজ পিএসজির প্রেসিডেন্ট নাসের আল খেলাইফিকে 'সুপার লিগের মতোই বিপদজনক' বলেছেন।

রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনার মতো ক্লাবগুলো গত বছরের এপ্রিল মাসে সুপার লিগে যোগ দেয়ার জন্য সম্মত হয়েছিল, ফুটবলার ও সমর্থক এমনকি ফুটবলের শীর্ষ সংস্থাগুলো এবং শীর্ষ ফুটবল খেলা দেশগুলোর সরকারের চরম বিরোধিতার কারণে শেষ পর্যন্ত এই লিগ সামনে এগোয়নি।

পিএসজি ও বায়ার্ন এই বির্তকিত পরিকল্পনার বিরোধিতা করেছিল তখন।

তেবাজের টুইটের পরপরই লা লিগা থেকে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়, 'পিএসজির মতো ক্লাব এমন একটি চুক্তি করলো যা কলঙ্কিত'।

লা লিগার বিবৃতিতে বলা হয়েছে, 'পিএসজি নিয়মের প্রতি শ্রদ্ধাশীল না।'

সূত্র : বিবিসি


আরো সংবাদ


premium cement