০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ৪ জিলহজ ১৪৪৩
`

সমকাম সমর্থনের ম্যাচ না খেলে প্রশংসায় ভাসছেন সেনিগালীয় ফুটবলার

সমকাম সমর্থনের ম্যাচ না খেলে প্রশংসায় ভাসছেন সেনিগালীয় ফুটবলার ইদরিস গায়া। - ছবি : সংগৃহীত

ফ্রান্সের ফুটবল ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জারমেইনে (পিএসজি) খেলেন সেনেগালের মুসলিম খেলোয়াড় ইদরিস গায়া। সম্প্রতি তিনি সেই ক্লাবের একটি ম্যাচে সমকামীদের সমর্থনে জার্সি পরে খেলতে অস্বীকৃতি জানান।

পিএসজির সতীর্থ মেসি-নেইমার-এমবাপ্পেরা সেই ম্যাচে খেললেও তার না খেলার সিদ্ধান্তে বর্ণবাদী ফরাসিরা বেজায় ক্ষেপে যায়। এমনকি তারা তাকে ফ্রান্স থেকে বহিষ্কারেরও দাবি তোলে।

তবে ইদরিস গায়ার এমন সিদ্ধান্ত মুসলিম বিশ্ব তাকে অনন্য মর্যাদায় আসীন করেছে। পৃথিবীর নানা প্রান্তের ধর্মপ্রাণ মুসলিম তার প্রশংসায় পঞ্ঝমুখ।

মিসরের সাবেক ফুটবলার মোহাম্মদ আবু তারিকা ইদরিসের প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করেছেন। পবিত্র কুরআনের আয়াতের উদ্ধৃতি দিয়ে টুইটারে তিনি লিখেন, (আল্লাহর নবী লুত আ:-এর বারণের) ‘উত্তরে তার সম্প্রদায় শুধু বলল, লুত পরিবারকে তোমরা জনপদ থেকে বহিষ্কার করো, এরা তো এমন লোক যারা পবিত্র থাকতে চায়।’ (সুরা নামল : ৫৬) একইসাথে আবু তারিকাহ লিখেন, ‘তুমি দুঃখ করো না, আমরা তোমার সাথে আছি, তোমাকে সমর্থন করছি এবং আল্লাহও তোমার সাথেই আছেন।’

শুধু সমর্থকরাই নয়; ইদরিস পাশে পেয়েছেন তার দেশেরে প্রেসিডেন্ট ম্যাকি সল কালকেও। তিনি টুইট করেন, ‘ইদরিস গানা গায়াকে আমি সমর্থন করি। তার ধর্মীয় বিশ্বাসকে সম্মান করতে হবে।’

এর আগে ওই ম্যাচটি না খেলার জন্য ইদরিসের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ফ্রেঞ্চ ফুটবল ফেডারেশনের আচরণ কমিটি তাকে তলব করে। তিনি সেখানে তাদের চমৎকার উত্তর দিয়েছেন, ‘আমি তো ক্লাবের সাথে ফুটবল দেখতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছি, আমার ইসলামী বিশ্বাস ও সংস্কৃতিবিরোধী এবং উন্নত মানবিক মূল্যবোধ পরিপন্থী কোনো প্রচারনায় অংশ নিতে চুক্তি করিনি।’

ফরাসিদের এসব আচরণের প্রতিবাদে টুইটার ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইউরোপ ও আরবের মুসলিমরা হ্যাশটাগ চালু করে তার ইদরিসের সমর্থনে দাঁড়িয়েছেন। জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে হ্যাশট্যাগ-
#Wearealldrissa
#كلنا_ادريس_غانا


আরো সংবাদ


premium cement