০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

পিকের গোলে টিকে থাকলে বার্সা

পিকের গোলে টিকে থাকলে বার্সা - ছবি : সংগৃহীত

টানা দুই হারে খাদের কিনারায় ছিল বার্সেলোনা। শঙ্কা জেগেছিল, চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গ্রুপ পর্ব থেকেই যেন বিদায় না নেয় কাতালানরা। তবে আশার কথা হলো, তৃতীয় ম্যাচেই জয়ের দেখা পেয়েছে মেসির সাবেক ক্লাবটি।

ন্যু ক্যাম্পে বুধবার ‘ই’গ্রুপের ম্যাচে ১-০ গোলে ডায়নামো কিয়েভকে হারিয়েছে কুমানের দল। ব্যবধান গড়ে দেওয়া গোলটি করেন জেরার্ড পিকে। চলমান আসরে বায়ার্ন মিউনিখ ও বেনফিকার বিপক্ষে প্রথম দুই ম্যাচেই বার্সেলোনা হেরেছিল ৩-০ গোলে। এই জয়ে নক আউট পর্বে যাওয়ার সম্ভাবনা টিকে থাকল দলটির।

ম্যাচে ৬২ শতাংশ সময় বল দখলে রেখে গোলের উদ্দেশে ১১টি নেয় বার্সা, যার তিনটি লক্ষ্যে ছিল। অন্যদিকে ইউক্রেনের দলটির তিন শটের কোনোটিই লক্ষ্যে ছিল না।

১৮ মিনিটে গোলের সুযোগ নষ্ট করে বার্সা। ডিপাইয়ের ফ্রি কিকে হেড করেন লুক ডি ইয়ং। কিন্তু বল চলে যায় বাইরে দিয়ে। তিন মিনিট পর লুক ডি ইয়ংয়ের শট ঝাঁপিয়ে রক্ষা করেন কিয়েভের গোলরক্ষক।

৩৬ মিনিটে জয়সূচক গোলের দেখা পায় বার্সা। আলবার দারুণ ক্রসে কাছ থেকে ভলিতে বল জালে পাঠান পিকে (১-০)।
চলতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এটাই বার্সেলোনার প্রথম গোল। প্রায় এক বছর পর ইউরোপ সেরার প্রতিযোগিতাটিতে জালের দেখা পেলেন পিকে। সবশেষ গোলটিও ছিল ডায়নামোর বিরুদ্ধে এই মাঠেই।

দ্বিতীয়ার্ধে বদলি হিসেবে মাঠে নামেন আনসু ফাতি। ৫৩ মিনিটে গোল প্রায় পেয়েই যাচ্ছিলেন তিনি। বুশচান পজেশন হারালে আলগা বল পেয়ে মেমফিস পাস দেন তরুণ ফরোয়ার্ডকে। তার ওভারহেড কিক লক্ষ্যে থাকেনি। শেষের দিকে আরো কয়েকটি গোলের সুযোগ তৈরি করে বার্সা। কিন্তু পূর্ণতা পায়নি। তারপরও স্বস্তির জয়ে আনন্দ মনেই মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনার খেলোয়াড়ররা।

তিন ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপে তিন নম্বরে আছে বার্সেলোনা। ১ পয়েন্ট নিয়ে চারে ডায়নামো কিয়েভ। দুই ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বায়ার্ন মিউনিখ। ৪ পয়েন্ট নিয়ে বেনফিকা আছে দুইয়ে।

 



আরো সংবাদ