০৩ আগস্ট ২০২১
`

ইউরোর জমজমাট লড়াই শুরুর অপেক্ষা

ইউরোর জমজমাট লড়াই শুরুর অপেক্ষা - ছবি- সংগৃহীত

করোনার কারণে বদলে গেছে সব। আমূল পরিবর্তন সব ক্ষেত্রে। ক্রীড়াঙ্গনও বাদ যায়নি। আজ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ইউরো ফুটবলের লড়াই। অথচ একক কোনো আয়োজক দেশ নেই। ইউরোপের ১১টি শহরে একটি ট্রফির জন্য লড়বে ২৪টি দেশ। ৫১ ম্যাচের রুদ্ধশ্বাস লড়াই। রাত ১টায় উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে ইতালি ও তুরস্ক। রোমে এই ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠবে ইউরোপিয়ান ফুটবলের সবচেয়ে জমজমাট আসর।

বাংলাদেশ সময় ইউরোর ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে যথাক্রমে সন্ধ্যা ৭টা, রাত ১০টি ও রাত ১টায়।

সোমবার থেকে মাঠে গড়াবে দক্ষিণ আমেরিকার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই কোপা ফুটবল। সব মিলিয়ে সামনের একটি মাস ফুটবল জ্বরে আক্রান্ত থাকবে গোটা বিশ্ব। লাতিন মেসি-নেইমার-সুয়ারেজদের লড়াইয়ের পাশাপাশি ভক্তদের চোখ থাকবে ইউরোপে রোনালদো, রামোস, সালাহ, লেভানডোস্কিদের দিকে।

ইউরোর বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল। দলটি পড়েছে এবার মৃত্যুকূপে। যেখানে এফ গ্রুপে রোনালদোদের মুখোমুখি হতে হবে জার্মানি, হাঙ্গেরি ও ফ্রান্সকে। শিরোপার অন্যতম দাবিদার এবার স্পেনও। যদিও করোনা আক্রান্ত স্পেন ফুটবল দলের অধিনায়ক সার্জিও বুসকেটস। তারপরও নিজেদের শিরোপার অন্যতম দাবিদার মানছেন কোচ লুই এনরিকে।
এ দিকে ইংল্যান্ডের দুর্বল দিক ছাড়াই আসরের ফেভারিট বলছেন অ্যান্তে রেবিচ। ফ্রান্স জাতীয় দলের ফুটবলারদের সাথে দেখা করেছেন প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো। উজ্জীবিত করেছেন দলকে।

ইউরোর মঞ্চে নামার আগে সবচেয়ে অস্বস্তিতে আছে স্পেন। কারণটা স্পষ্ট। করোনার আঘাতে টালমাটাল দল। অধিনায়ক বুস্কেটস পজিটিভ হওয়ার পর আইসোলেশনে গোটা দল। গত লিথুনিয়ার বিপক্ষের প্রীতি ম্যাচটি খেলেছে অনূর্ধ্ব-২১ দল। এমন পরিস্থিতিতে কোচ লুই এনরিকে আছেন কিছুটা চিন্তায়। তবে দল নিয়ে আশাবাদী অভিজ্ঞ কোচ। শিরোপা জয়ের ব্যাপারে এখনো ফেভারিট বলছেন স্পেনকে।

এবারের ইউরোতে আরেক ফেভারিট ক্রোয়েশিয়া। লড়াই শুরুর আগে নিজেদের ঝালিয়ে নিচ্ছে শেষবারের মতো। গত বিশ্বকাপে জলতকো দালিচের অধীনে নিজেদের সক্ষমতা দেখিয়েছে দল। বিশ্বকাপের রানার্স আপ দলটা নিশ্চয়ই এ আসরে প্রত্যাশায় থাকবে একটা ট্রফি জয়ের।

১৩ জুন ইউরোর প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবে ইংল্যান্ড। প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়া। স্পেনের অভিযান শুরু হবে এর এক দিন পর। সেভিয়ায় সুইডেনের মোকাবিলা করবে দলটি। ১৫ জুন মৃত্যু কূপের খেলা। পর্তুগাল খেলবে হাঙ্গেরির বিরুদ্ধে, বুদাপেস্টে রাত ১০টায়। অন্য দিকে ফ্রান্স জার্মানি লড়বে মিউনিখে, রাত ১টায়।

আজ উদ্বোধনী দিনে একটি ম্যাচ। আগামীকাল থেকে প্রতিদিনই প্রায় থাকবে তিনটি করে ম্যাচ। ফাইনাল ১১ জুলাই। অনুষ্ঠিত হবে লন্ডনের ঐতিহাসিক ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে।

ইউরোর গ্রুপিং
এ গ্রুপ : ইতালি, সুইজারল্যান্ড, তুরস্ক, ওয়েলস
বি গ্রুপ : বেলজিয়াম, ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, রাশিয়া
সি গ্রুপ : অস্ট্রিয়া, নেদারল্যান্ডস, উত্তর মেসিডোনিয়া, ইউক্রেন
ডি গ্রুপ : ক্রোয়েশিয়া, চেক প্রজাতন্ত্র, ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড,
ই গ্রুপ : পোল্যান্ড, স্লোভাকিয়া, স্পেন, সুইডেন
এফ গ্রুপ : ফ্রান্স, জার্মানি, হাঙ্গেরি, পর্তুগাল



আরো সংবাদ