০৪ ডিসেম্বর ২০২০

এল ক্লাসিকো নিয়ে কার কী প্রতিক্রিয়া


রুদ্ধশ্বাস এল ক্লাসিকো জয়ে উৎসবের আমেজ রিয়াল শিবিরে। উল্টো চিত্র ন্যু ক্যাম্পে। হারের জ্বালায় পুড়ছে কাতালানরা। দীর্ঘ এল ক্লাসিকো গোল খরায় মেসির মনবেদনাও চূড়ান্ত পযায়ে। রামোসরা যেখানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জয়ের আনন্দে বিভোর, সেখানে নিশ্চুপ অবস্থান মেসিদের। থিবাট কোর্তোয়া, ভিনিসিয়াস, রামোস, মডরিচরা নানা স্ট্যাটাস দিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

টুইটারে এসেছে নানা বার্তা, ‘আমরা খারাপ সময় কাটিয়েছি, আবার এক সাথে জিতেছিও’, দিজ ইজ রিয়াল মাদ্রিদ’। রিয়াল কোচ জিদান টুইটারে শুধু একটি ছবি পোস্ট করে লিখেছে, ‘টিম’।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ছাড়াও কে কী কথা বলেছে এক নজরে দেখা যাক। বার্সা কোচ রোনাল্ড কোম্যান অভিযোগের আঙুল তুলেছেন পেনাল্টি নিয়ে। যেখানে বক্সের মধ্যে রামোসের জার্সি ধরে ফেলে দেন বার্সা ডিফেন্ডার লংলে। যদিও রেফারি প্রথমে বাঁশি বাজাননি। ভিডিও এসিসটেন্ট রেফারির সাহায্যে পেনাল্টি দেন রেফারি। আর তাতেই আপত্তি বার্সা কোচের।

তিনি বলেন, ‘সামনে থেকে তোমাকে ফেলে দিলে তোমাকে সামনেই পড়তে হবে, পেছনে নয়। আমার কাছে এটা পেনাল্টি হতেই পারে না। আমরা কোন ম্যাচে ভিএআরের সাহায্য পাইনি।’ দারুণ জয়ের খুশি রিয়াল কোচ জিদান, ‘আমি খেলোয়াড়দের জন্য খুব খুশি। তারা মাঠে লড়াই করেছে, এক হয়ে খেলেছে। সব মিলিয়ে রোমাঞ্চকর।’ বার্সার মাটিতে ৬ টি এল ক্লাসিকোতে এখন অবধি হারের মুখ দেখেননি জিদান।

পেনাল্টি নিয়ে কোম্যানের রাজ্যের আপত্তি থাকলেও রামোস বলছেন ভিন্ন কথা, ‘ফ্রি কিকের আগে থেকে লংলে আমাকে মার্ক করে রেখেছিল। আমি যখন জাম্প করতে যাবে হেড নিতে, তখনই সে আমার জার্সি ধরে ফেলে দেয়। অনেক সময় রেফারিরও ভুল হয়। তবে এই পেনাল্টি ছিল যথাযথ।’

বার্সার মার্কিন রাইট ব্যাক সার্জিনো দেস্ট বলেন, ‘এটা ছিল খুবই কঠিন একটা ম্যাচ। আমি পেনাল্টি দেখিনি, আমি বলতে পারব না এটা সঠিক কিংবা বেঠিক ছিল। রিয়াল গোলরক্ষক কর্তোয়া বলেন, ‘গেল সপ্তাহটা বেশ কঠিন ছিল আমাদের জন্য। শাখতারের সঙ্গে হারের ম্যাচে দ্বিতীয়ার্ধের গোল এল ক্লাসিকোতে কাজে দিয়েছে। এটাতে প্রমাণ করে, আমরা সব জায়গাতে লড়াই করতে পারি। আমাদের সেই সাহস আছে। ম্যাচের আগ মুহূর্তেও আমি চিত্র বদলে দিতে পারি।’

ডিপোর্টিভো লা করুনার স্প্যানিশ ফুটবলার লুইস সুয়ারেজ অবশ্য গোটা ম্যাচেরই প্রশংসা করলেন, ‘আমি জানি না কে ডানে খেলল, কে বায়ে খেলল। আপনারাও বুঝতে পারবেন না। তবে এটা যদি ডাচ ফুটবল হতো, তাহলে আমরা অনেক কিছুই পরিবর্তন করতে পারতাম।’ জার্মানির সাবেক ফুটবলার বার্নড শুস্টার। ক্লাব ফুটবলে খেলেছেন বার্সা ও রিয়ালের হয়ে।

এল ক্লাসিকোর পর তিনি কিছুটা খোঁচা দিয়েছেন বার্সাকে, ‘মেসির ৪০ গোল ছাড়া বার্সেলোনা একটি ম্যাচও জিততে পারবে না মাদ্রিদে।’


আরো সংবাদ

সৌদি আরবে ইমাম হোসাইন মসজিদটি ভেঙে ফেলার নির্দেশ (৯৯৮৫)অপশক্তি মোকাবেলা করে ইসলামের বিজয় নিশ্চিত করতে হবে : মামুনুল হক (৮৯০১)ভাস্কর্যের নামে মূর্তি স্থাপন কোনোক্রমে মেনে নেয়া যায় না : সম্মিলিত ইসলামী দলসমূহ (৫৮৫৮)স্টেডিয়ামগুলোকে জেলে রূপান্তরের অনুমতি না দেয়ায় কেজরিওয়ালের ওপর ক্ষুব্ধ মোদি (৫৩৭৯)দেশের প্রয়োজনে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারের নির্দেশ সেনাপ্রধানের (৪৪৮২)বাবার ডাকে বাড়ি ফিরে বড় ভাইয়ের হাতে খুন (৪১১৬)পাঠ্যসূচিতে থাকলেও গুরুত্ব হারাচ্ছে ইসলাম শিক্ষা (৩৯৮৪)মীমাংসিত বিষয় নিয়ে আপোষ করার কোনো সুযোগ নেই : ভাস্কর্য ইস্যুতে কাদের (৩৫৪৬)পরমাণু সক্ষমতা বাড়াতে ও পরিদর্শন বন্ধ করতে নতুন আইন পাস ইরানে (৩৪৩৪)রাজধানীতে সমাবেশের অনুমতি পায়নি সম্মিলিত ইসলামী দলগুলো (৩৪১০)