২৬ নভেম্বর ২০২০

তোমাকে ছুঁড়ে ফেলা হয়েছে : মেসি

তোমাকে ছুঁড়ে ফেলা হয়েছে : মেসি - সংগৃহীত

ন্যু ক্যাম্পে একসাথে ছয় বছর কাটিয়েছেন লিওনেল মেসি ও লুইস সুয়ারেজ। বার্সেলোনার জার্সি গায়ে দু’জনের সম্পর্ক শুধু সতীর্থ পর্যন্ত বিদ্ধমান নয়; বরং এই সম্পর্ক চলে গেছে পরম বন্ধুত্ব পর্যন্ত। দু’জনই নিজেদের কাতালান ক্লাবটির ইতিহাস সেরা ফুটবলারদের কাতারে অন্তর্ভূক্ত করে নিয়েছেন। কিন্তু ইতোমধ্যে ছয় বছরের বার্সা ক্যারিয়ার শেষ করেছেন উরুগুয়ান স্ট্রাইকার সুয়ারেজ।

এরমধ্যে তাকে বিদায়ও বার্সেলোনা ক্লাব কর্তৃপক্ষ। কিন্তু ন্যু ক্যাম্প থেকে সতীর্থের এমন নিরুত্তাপ বিদায় আহত করেছে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড লিওনেল মেসিকে। মেসির দাবি, ‘এমন বিদায় সুয়ারেজের প্রাপ্য নয়।’

বার্সার ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকায় তৃতীয় স্থানে আছেন উরুগুইয়ান তারকা। কিন্তু ক্লাব এবং কোচ রোনাল্ড কোম্যান উভয়ের পরিকল্পনায় নেই সুয়ারেজ। যার জন্য ফ্রি’তে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদে যোগ দিয়েছেন ৩৩ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড। দীর্ঘদিন একসাথে থাকায় মেসির সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠেছিল তার। কিন্তু বার্সা যেভাবে সুয়ারেজকে ‘ছুঁড়ে ফেলেছে’ তাতে খুশি হতে পারেননি এলএমটেন।

তার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরাসরি প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন মেসি। নিজের অফিসিয়াল ইন্সটাগ্রামে সুয়ারেজের সাথে বিদায়কালীন একটি ছবি পোস্ট করে তিনি লেখেন, ‘তোমাকে যেভাবে ছুঁড়ে বের করে দেয়া হলো, তা তোমার প্রাপ্য ছিল না। তুমি ক্লাবের ইতিহাসের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের একজন। দলের অংশ হয়ে এবং ব্যক্তিগতভাবে অনেক কিছু জিতেছো।’

মেসি হতাশা প্রকাশ করে আরো লিখেছেন, ‘তারা তোমাকে বের করে দেয়ার জন্য যা করেছে তার জন্য নয়, তবে সত্য হলো এর কোনো কিছুই আমাকে আশ্চর্য করেনি।’

যিনি নিজেও চলতি মৌসুমের শুরুতে ন্যু ক্যাম্প ছাড়তে চেয়েছিলেন। কিন্তু দীর্ঘদিন যার সঙ্গে ড্রেসিংরুমটা ভাগাভাগি করে আসছেন সেই সুয়ারেজ যে নেই। সেই যন্ত্রণা যেন বেশি পুড়াচ্ছে মেসিকে। বার্সা কর্তৃপক্ষের প্রতি নিন্দা উগরে দিয়ে ৩৩ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড লেখেন, ‘আজ আমি ড্রেসিংরুমে গিয়েছিলাম এবং সত্যি বলতে কিছুতেই নিজেকে বুঝাতে পারছি না। দিনের পর দিন মাঠে তোমাকে দেখতে না পাওয়া এবং ড্রেসিংরুম ভাগাভাগি করতে না পারা আমার জন্য অনেক কঠিন হবে। আমাদের দু’জনের অসংখ্য স্মৃতি আছে তা তুমি কখনো ভুলবে না।’

সুয়ারেজের সাথে মেসির সাক্ষাৎ হবে ঠিকই। কিন্তু প্রতিপক্ষ হিসেবে। বার্সা ফরোয়ার্ড আরো লিখেন, ‘তোমাকে অন্য জার্সিতে দেখা অদ্ভুত লাগবে। এমনকি তোমার মুখোমুখি হওয়াও। আমি তোমার নতুন চ্যালেঞ্জের জন্য শুভকামনা জানাই। তোমাকে খুব ভালবাসি। শিগগিরই দেখা হবে, আমার বন্ধু। ’


আরো সংবাদ