০১ এপ্রিল ২০২০

সাবধানী বার্সার ড্র

সাবধানী বার্সার ড্র - সংগৃহীত

সিরি-‘এ’ হোক কিংবা কোপা ইতালিয়া। সাম্প্রতিক সময়ে ইতালির বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্টে নাপোলির দুরন্ত ফর্ম চিন্তায় রেখেছিল বার্সেলোনাকে। দিন দু’য়েক আগেই ঘরোয়া লিগে শীর্ষে উঠেছে গত দু’বারের লা-লিগা চ্যাম্পিয়নরা। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ চারটি মরশুমের দুঃসহ স্মৃতি শেষ ষোলোর লড়াইয়ে নামার আগে সাবধানী করেছিল কিকে সেতিয়েনের দলকে।

নাপোলির ঘরের মাঠে মঙ্গলবার প্রথমার্ধে বার্সেলোনার অবস্থা কিন্তু তথৈবচ। প্রথম ৪৫ মিনিট বিপক্ষ পেনাল্টি বক্সে মাত্র তিনটি টাচ খেলা বার্সেলোনাকে নিয়ে বলার কিছুই ছিল না। বরং মাঝেমধ্যেই প্রতি আক্রমণে বার্সা রক্ষণে হানা দিয়ে নাপোলি বুঝিয়ে দিচ্ছিল তাদের সমীহ করার কারণ। তবে ৩০ মিনিটে ম্যাচে প্রথম ইতিবাচক সুযোগ তৈরি করল নাপোলি। এবং তা থেকেই নিখুঁত গোল করে ম্যাচে প্রথমবারের জন্য প্রাণ সঞ্চার করলেন বেলজিয়ান মার্টেন্স।

৩০ মিনিটে বার্সার এক ডিফেন্ডারের ভুলে জিয়েলিন্সকির স্কোয়্যার পাস বক্সের মধ্যে মার্টেন্স যে অবস্থায় রিসিভ করলেন, সেখান থেকে গোলে বল না রাখাটা অন্যায় হলো বেলজিয়ামের জাতীয় দলের নিয়মিত সদস্যের পক্ষে। টার স্টিগেনের নাগাল এড়িয়ে বল জালে রাখতে এক্ষেত্রে ভুল করেননি মার্টেন্স। বিরতির আগে নিষ্প্রভ বার্সার বিরুদ্ধে ইনসিওরেন্স গোলও চলে আসতে পারত নাপোলির। কিন্তু বিরতির কিছু আগে কোস্তাস মানোলাসের একটি ক্লোজ রেঞ্জ শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

দ্বিতীয়ার্ধে ঝাঁঝ ফেরে বার্সার খেলায়। সঙ্গে উপরি পাওনা হিসেবে চোট পেয়ে মার্টেন্সের মাঠ ছাড়ার ঘটনা সুবিধা করে দেয় সেতিয়েনের দলকে। ৫৭ মিনিটে রাইট-ব্যাক নেলসন সেমেডোর ডানপ্রান্তিক লো-ক্রস থেকে দুরন্ত প্লেসিংয়ে জালে জড়িয়ে দেন ফরাসি স্ট্রাইকার আতোয়াঁ গ্রিজম্যান। কাতালান ক্লাবের জার্সি গায়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এটি তার দ্বিতীয় গোল। এরপর ঘরের মাঠে ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়ার সুযোগ এসেছিল গাত্তুসোর ছেলেদের কাছে। কিন্তু নাপোলির আর গোলের মধ্যে দ্বিতীয়বারের জন্য বাধা হয়ে দাঁড়ান বার্সা দুর্গের শেষ প্রহরী টার স্টিগেন।

তাই শেষ অবধি ঘরের মাঠে নাপোলি আর গোল না পাওয়ায় অ্যাওয়ে ম্যাচ ড্র রাখতে সক্ষম হয় বার্সেলোনা। যা দ্বিতীয় লেগের আগে নিঃসন্দেহে বিরাট অ্যাডভান্টেজ মেসিদের জন্য। কিন্তু নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার এক মিনিট আগে এদিন বার্সার হয়ে লাল কার্ড দেখে বসলেন আর্তুরো ভিদাল। একইসঙ্গে হলুদ কার্ডের গেরোয় ফিরতি লেগে নেই মিডফিন্ড জেনারেল সার্জিও বুসকেটসও। যা অ্যাডভান্টেজ পজিশনে থেকেও চিন্তা বাড়াল বার্সেলোনা শিবিরে।


আরো সংবাদ