০৭ এপ্রিল ২০২০

ফুটবলেও বাংলাদেশকে হুঙ্কার আফগানদের

(বামে) প্রস্তুতির ফাঁকে বাংলাদেশর তিন ফুটবলার, (ডানে) আফগান ফুটবলারদের প্রস্তুতি - ছবি : সংগৃহীত

চট্টগ্রামে চলছে বাংলাদেশ আফগানিস্তান টেস্ট ক্রিকেট। এ ম্যাচ যেদিন শেষ হবে তার পরদিন অর্থাৎ মঙ্গলবার ফুটবলে আফগানিস্তানের মোকাবেলা বাংলাদেশ দলের। তাজিকিস্তানের দুশানবেতে এটিই বাংলাদেশ দলের কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রথম ম্যাচ। লাল-সবুজরা ১ সেপ্টেম্বর তাজিকিস্তান পৌঁছলেও আফগান ফুটবলররা ভাগে ভাগে মধ্য এশিয়ান এই দেশে পৌঁচ্ছেন।

বাছাইপর্বের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তান কাতারের কাছে ০-৬ গোলে হেরেছে, যা আফগানদের বাছাইপর্বের পরের ধাপে যাওয়ার ক্ষেত্রে বড় ধাক্কা তাদের। গ্রুপের অপর দল ভারত ১-২ গোলে হারে ওমানের কাছে। ১০ তারিখে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ম্যাচ। অন্য দিকে কাতারের প্রতিপক্ষ ভারত। কাতারের কাছে বিধ্বস্ত আফগানরা এখন ঘুরে দাঁড়াতে চায় বাংলাদেশের বিপেক্ষ। এএফসি ওয়েবসাইটকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানান আফগান কোচ আনউস দস্তগীর।

তার মতে, আমরা কাতারের বিপক্ষে প্রথম ১৫ মিনিটে বেশ চাপে পড়ে চাই। এই সময়েই তিন গোল হজম। তবে ওই সময়ে গোল না হলে স্কোর এমন হতো না। আফগানিস্তান আসলে কুলিয়েই উঠতে পারেনি কাতারের সাথে। কোচের দেয়া তথ্য, কাতার এশিয়ান কাপে যেভাবে খেলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল সে স্টাইলেই খেলেছে আমাদের বিপক্ষে। কোনো পরিবর্তন ছিল না তাদের খেলায়। দস্তগীর আরো জানান, ‘আমরা কাউন্টার অ্যাটাকে যে সুযোগগুলো পেয়েছিলাম তা কাজে লাগাতে পারলে ভিন্ন হতে পারত স্কোর লাইন।’ এরপরও দলকে নিয়ে আশাবাদ তার। জানালেন, অন্য দল হলে তো তিন গোলের পর ম্যাচই ছেড়ে দিত; কিন্তু এরপরও আমরা ৯০ মিনিট পর্যন্ত লড়েছি। এখন আমাদের লক্ষ্য বাংলাদেশের বিপক্ষে পরের ম্যাচে ভালো খেলা। আমাদের উন্নতির যে জায়গাগুলো আছে সে দিন তা করতে চাই।

এ দিকে বাংলাদেশ ম্যানেজার সত্যজিৎ দাস রুপু জানালেন, ‘কাতারের কাছে ছয় গোলে হারলেও আফগানদের দুর্বল ভাবার কিছু নেই। মূলত তারা কাতারের সাথে সমান তালে খেলতে গিয়েই ১৫ মিনিটে ছিটকে পড়ে ম্যাচ থেকে। আমাদের আরো ট্যাকটিক্যালি খেলতে হবে ১০ তারিখে।’

অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়ার মতে, দুই প্রস্তুতি ম্যাচে আমাদের ফিটনেস এবং সামর্থের পরীক্ষা হয়েছে। দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে জিততে পারতাম আমরা। দুই ম্যাচের ভুলগুলো নিয়েই কাজ করছেন কোচ।


আরো সংবাদ

করোনাভাইরাস পরীক্ষা কতটা নির্ভরযোগ্য? ঘরে স্ত্রী-ই নরসুন্দরের ভূমিকায়, ভাইরাল সেই ছবি ব্যাংকের ঋণ প্রদানের সক্ষমতা নেই করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী প্রাণহানির সংখ্যা বেড়ে ৭৪,৬৯৭ রাসূল সা: নির্দেশিত ৫টি অব্যর্থ চিকিৎসা ও প্রতিষেধক যুক্তরাষ্ট্রে মৃত ১০ হাজার, নেই পর্যাপ্ত সরঞ্জামও ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা, আদায়ের বদলে দেয়া হলো খাদ্য সামগ্রী রাশিয়ায় রেকর্ড সংক্রমণ, এক দিনে করোনা পজিটিভ ৯৫৪! গণজমায়েত করে ত্রাণ দেয়াকে ভয়ঙ্কর বলছেন বিশেষজ্ঞরা ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জনসনের অবস্থার অবনতি, দায়িত্বে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিজিএমইএ ও বিকেএমইএ সদস্য কারখানাগুলো ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ

সকল

দীর্ঘদিন জেলখাটা আসামিদের মুক্তির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর (২৭৯১৩)করোনা ছড়ানোয় চীনকে যে ভয়ঙ্কর শাস্তি দেয়ার দাবি উঠল জাতিসংঘে (১৭৬৭৩)গাদ্দাফিকে উৎখাতকারী জিবরিলের করোনায় মৃত্যু (১৫৭৯০)রমজান মাসে অফিসের সময়সূচি নির্ধারণ (১৪৩১৪)উকুন মারার ওষুধে ৪৮ ঘণ্টায় খতম করোনা (১৩৯১৮)করোনায় মৃতদের জানাজা-দাফনে প্রস্তুত এক ঝাঁক আলেম (১২৯১২)এবার করোনায় আক্রান্ত বাঘ (১০৬৬১)৩ ঘণ্টার রাস্তা পাড়ি দিয়েছেন ২ দিন, খরচ হয়েছে ৪ হাজার টাকা! (১০৫১৮)'মেয়েকে কোলেও নিতে পারছি না!' দূর থেকে ভেজা চোখে তাকিয়ে পুলিশ অফিসার (১০০৭২)করোনার চিকিৎসায় তুরস্কের অভূতপূর্ব পদক্ষেপ, পাল্টে যাচ্ছে চিকিৎসা পদ্ধতি (৯৭০৬)