০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯,
`

ইসলামাবাদে ইমরান খানের লংমার্চ ২৫ মে

-

আগামী ২৫ মে রাজধানী ইসলামাবাদে লংমার্চ করবে পাকিস্তানের সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল তেহরিক-ই ইনসাফ পাকিস্তান (পিটিআই)। গতকাল রোববার পেশোয়ারে এক সংবাদ সম্মেলনে লংমার্চের এই তারিখ ঘোষণা দেন দলের চেয়ারম্যান ইমরান খান। সব স্তরের মানুষকে লংমার্চে দেখতে চান জানিয়ে ইমরান খান বলেন, এটি রাজনীতি নয়, ‘জিহাদ’। নেতাকর্মী দের তিনি জীবন উৎসর্গ করতে নির্দেশনা দিয়েছেন বলেও জানান। ডন, এক্সপ্রেস টিবিউন ও দ্য নিউজ।
সংবাদ সম্মেলনে ইমরান খান বলেন, বহুল জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন ছিলÑ লংমার্চ কবে হবে। অবশেষে আমরা সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছি। ইমরান খান বলেন, যুক্তরাষ্ট্র পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছে। এটি করতে তারা পাকিস্তানের সবথেকে দুর্নীতিবাজদের কাজে লাগিয়েছে। জনগণকে লংমার্চে অংশ নেয়ার আহ্বান জানিয়ে ইমরান খান বলেন, আমি ইসলামাবাদের শ্রীনগর মহাসড়কে আপনাদের সাথে সাক্ষাৎ করব। আমলাতন্ত্রকে সতর্ক করে ইমরান খান বলেন, শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদে কোনো ভুল সিদ্ধান্ত গ্রহণ হবে ‘অবৈধ’। তার দলের বিরুদ্ধে বিধিবহির্ভূত ব্যবস্থা নিলে পাল্টা ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি দেন তিনি। ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর পাকিস্তানের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ শহরে জনসভা করে এই লংমার্চ করার কথা বলে আসছিলেন ইমরান খান। একই সাথে ওই সব জনসভায় ‘প্রকৃত স্বাধীনতা’ ও গণতন্ত্র পেতে দেশজুড়ে আন্দোলনের প্রস্তুতি নিতে গোটা জাতির প্রতি আহ্বান জানান সাবেক প্রধানমন্ত্রী। লংমার্চে ইমরান খানের প্রধান অ্যাজেন্ডা নতুন নির্বাচনের দাবি আদায় করা।
রাশিয়ার তেল কেনায় ভারতের প্রশংসা : তা ছাড়া ‘মার্কিন চাপের’ মুখে মাথা নত না করায় এবং রাশিয়ার কাছ থেকে সস্তায় তেল কেনার জন্য ভারতের প্রশংসা করেছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেছেন, পাকিস্তানের ক্ষমতায় থাকার সময় তার সরকারও স্বাধীন পররাষ্ট্র নীতির সাহায্যে একই কাজ করেছে। একই সাথে পাকিস্তান মুসলিম লিগের (এন) নেতৃত্বাধীন সরকারেরও সমালোচনা করে তিনি বলেন, ক্রমাবনতিশীল অর্থনীতি নিয়ে মাথাহীন মুরগির মতো ছুটে বেড়াচ্ছে এই সরকার। এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআই। ভারত সরকার পেট্রলের দাম প্রতি লিটারে ৯.৫ রুপি ও ডিজেলের দাম প্রতি লিটারে ৭ রুপি কমানোর পরই ভারতের প্রশংসা করে সরব হন ইমরান খান। শনিবার ভারত জ্বালানির দাম কমানোর সিদ্ধান্তের পরই প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানান, মার্কিন চাপের সামনে মাথা নত না করে ভারত যেভাবে রাশিয়ার কাছ থেকে তেল কিনছে, তা প্রশংসনীয়। টুইটারে দেয়া এক বার্তায় ইমরান খান বলেন, ‘কোয়াডের সদস্য হওয়া সত্ত্বেও ভারত মার্কিন চাপে অবদমিত হয়নি এবং সাধারণ মানুষকে স্বস্তি দেয়ার জন্য কম দামেই রাশিয়া থেকে তেল কিনছে। স্বাধীন পররাষ্ট্রনীতির সাহায্যে আমাদের সরকারও এ লক্ষ্যেই কাজ করছিল।’
গ্রেফতারের পর হাইকোর্টের নির্দেশে শিরিন মাজারিকে মুক্তি : এ দিকে ইমরান খানের দল পিটিআইয়ের সিনিয়র নেত্রী ও সাবেক মানবাধিকারবিষয়ক মন্ত্রী শিরিন মাজারির গ্রেফতার হওয়ার ঘটনায় দেশজুড়ে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়। পরে শনিবার মধ্য রাতে ইসলামাবাদ হাইকোর্ট (আইএইচসি) তাকে অবিলম্বে মুক্তির নির্দেশ দেন। নির্দেশ মোতাবেক তাকে রাতেই মুক্তি দেয়া হয়েছে। রোববার ভোরে তিনি বাড়ি পৌঁছান।
শনিবার রাতে ইসলামাবাদ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি আতহার মিনাল্লাহ মাজারির গ্রেফতারের বিরুদ্ধে দায়ের করা আবেদনের শুনানি করেন এবং ফেডারেল সরকারকে বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেন। পাশাপাশি আদালত ড. মাজারিকে সসম্মানে তার বাড়িতে পৌঁছে দিতে আইজি ইসলামাবাদকে নির্দেশ দেন এবং তার বাসভবনে নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন করা উচিত বলেও মন্তব্য করেন। আদালত পিটিআই নেতার মোবাইল ফোন ও অন্যান্য জিনিসপত্র ফেরত দিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন। শুনানির শুরুতে মাজারি আদালতকে বলেন, ‘আমাকে মোটরওয়েতে এক ঘণ্টার জন্য থামানো হয়েছিল। একজন পুরুষ চিকিৎসক আমার ডাক্তারি পরীক্ষা করার চেষ্টা করেছিলেন। তাদের সাথে কোনো নারী কর্মকর্তা ছিলেন না। তবে পাঞ্জাবের দুর্নীতি দমন কর্মকর্তারা ছিলেন। তারা ফোনে নির্দেশনা শুনছিলেন। আমার ব্যাগটিও ওয়ারেন্ট ছাড়াই তল্লাশি করা হয়েছে। আমার ফোনটি এখনো আমাকে ফেরত দেয়া হয়নি।’
ইসলামাবাদ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি আতহার মিনাল্লাহ বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, ‘এটি কিভাবে সম্ভব যে, মাজারিকে গ্রেফতারের ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য কেউ জানে না।’ আতহার মিনাল্লাহ আরো বলেন, ‘পাকিস্তানে গুমের ঘটনা ঘটে। এসব বিষয়ে সরকার কোনো ব্যবস্থা নেয় না। সংবিধানের প্রতি শ্রদ্ধা না থাকলে এসব ঘটনা ঘটে। প্রতিটি সরকারই সংবিধান লঙ্ঘনের ব্যাপারে জঘন্য আচরণ করে।’ মাজারির মেয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্তের আদেশ দেয়ার জন্য আদালতকে অনুরোধ করেছিলেন। আদালত তার অনুরোধ মঞ্জুর করেন। পাশাপাশি তদন্ত না হওয়া পর্যন্ত মাজারিকে মুক্তি দিতে নির্দেশ দেন।
শনিবার দুপুরে একটি জমির অবৈধ হস্তান্তরসংক্রান্ত মামলায় রাজধানী ইসলামাবাদ থেকে পাঞ্জাবের দুর্নীতি দমন বিভাগ ড. মাজারিকে গ্রেফতার করে। তার মেয়ে আইনজীবী ইমান মাজারি তাকে আটকের খবর নিশ্চিত করে এক টুইটে লিখেন, পুরুষ পুলিশ সদস্যরা আমার মাকে মারধর করে তুলে নিয়ে গেছে। তবে ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে দেখা গেছে, কয়েক নারী পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে গেলে তিনি তাদের বাধা দেয়ার চেষ্টা করেন। ফলে তারা একপ্রকার জোর করেই তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।


আরো সংবাদ


premium cement