০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ৭ জিলহজ ১৪৪৩
`

মাঠে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিদর্শন দল

ডলারের দরে অস্থিরতা
-

ঘোষিত বিনিময় হারের চেয়ে বেশি দরে ডলার কেনাবেচা নিয়ে শোরগোলের মধ্যে সরকারি-বেসরকারি ব্যাংক পরিদর্শন শুরু করেছে বাংলাদেশ ব্যাংকের চারটি দল। বিডি নিউজ।
গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে তারা কয়েকটি ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট বিভাগ ও কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক করেন। দুপুর থেকে শুরু করেন ট্রেজারি ও ফরেন এক্সচেঞ্জ বিভাগের নথি ও ডলার সংগ্রহের অনলাইন ও নগদে বেচাকেনার তথ্য যাচাইয়ের কাজ।
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো: সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে ডলারের বিনিময় হার নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় বিষয়টি সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখবে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ জন্য চারটি টিম নেমেছে।’
মহামারীর পর ইউক্রেইন যুদ্ধের প্রেক্ষাপটে অর্থনৈতিক জটিলতার মধ্যে পড়েছে বিশ্বের অনেক দেশ। নিত্যপণ্য ও জ্বালানির দাম বাড়ার পাশাপাশি ডলারের বিনিময় হারে দেখা দিয়েছে অস্থিরতা।
সেই অস্থিরতা সামাল দিতে দুই মাসে তৃতীয়বারের মতো গত ১৬ মে ডলারের বিপরীতে টাকার মান কমায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক; এক ধাক্কায় ৮০ পয়সা কমে আন্তঃব্যাংক লেনদেনে ডলারের বিনিময় হার করা হয় ৮৭ টাকা ৫০ পয়সা।
পরদিন সকাল থেকেই বাড়তে শুরু করা ডলার সন্ধ্যায় কোনো কোনো মানি এক্সচেঞ্জ ও খুচরায় ডলার বিক্রেতারা ১০২ টাকা পর্যন্ত দরে বিক্রি করেন; এতটা দর এর আগে দেখা যায়নি। এরপর গত বুধবার খোলাবাজারে ডলারের বিনিময় মূল্য কমলেও ব্যাংকে নগদ মূল্যে ডলারের বিনিময় হারে তেমন কোনো প্রভাব দেখা যায়নি। ডলার বাঁচাতে বিলাসপণ্য আমদানিতে লাগাম দেয়ার পাশাপাশি কৃচ্ছ্রের পথে হাঁটছে সরকার। এর অংশ হিসেবে সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ সীমিত করারও আদেশ হয়েছে।
নিম্ন আদালতের বিচারকদের বিদেশ ভ্রমণ পরিহার করতে বললেন প্রধান বিচারপতি
নিজস্ব প্রতিবেদক জানান, জাতীয় অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব এড়াতে অধস্তন আদালতের বিচারকদের জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বিদেশ ভ্রমণ পরিহার করতে বলেছেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী। গতকাল প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর আদেশক্রমে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনের পক্ষ থেকে রেজিস্ট্রার জেনারেল মো: বজলুর রহমান স্বাক্ষরিত এ বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, অধস্তন আদালতের বিচারকদের বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে বিদেশ ভ্রমণের প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে। বিচারপ্রার্থী জনগণের দ্রুত বিচারিক সেবা প্রদানের উদ্দেশ্যে এবং জাতীয় অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব এড়াতে অধস্তন আদালতের বিচারকদের অপ্রয়োজনীয় বিদেশ ভ্রমণ পরিহার করতে অভিপ্রায় ব্যক্ত করেছেন প্রধান বিচারপতি। এমতাবস্থায়, অতীব প্রয়োজন ছাড়া অধস্তন আদালতের বিচারকদের বিদেশ ভ্রমণের আবেদন না করার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো।’


আরো সংবাদ


premium cement