২৫ অক্টোবর ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরি
`

করোনায় শনাক্ত বাড়লেও মৃত্যু আরো কমেছে

-

করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যুর সংখ্যা আরো কমেছে। গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে দেশে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে ৯৮০ জন। গত শনিবার সকাল পর্যন্ত এর আগের ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছিল ৮১৮ জন এবং মৃত্যু ছিল ২৫ জন। এ নিয়ে টানা দ্বিতীয় দিনের মতো দৈনিক রোগী শনাক্তের সংখ্যা হাজারের নিচে রয়েছে। তবে এটা শুক্রবার ও শনিবারের ছুটির দিনের প্রভাবে হয়েছে। এই দুই দিনে দেশে করোনা শনাক্ত সংখ্যা কমই থাকে। ধারণা করা হচ্ছে, আজ সোমবার যে তথ্য পাওয়া যাবে তাতে করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা গত দুই দিনের চেয়ে বেড়ে যাবে।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের গতকালের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ২২ হাজার ২২১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষাসাপেক্ষে রোগী শনাক্তের হার ৪ দশমিক ৪১ শতাংশ।
এ নিয়ে টানা ছয় দিন শনাক্তের হার পাঁচ শতাংশের নিচে রয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, কোনো দেশে টানা দুই সপ্তাহের বেশি সময় শনাক্তের হার ৫ শতাংশের নিচে থাকলে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের মধ্যে আছে বলে ধরা হয়। এ দিকে সারা দেশে করোনা শনাক্তের হার তুলনামূলক কমে গেলেও ঢাকা মহানগরীতে দেশের অন্যান্য অংশের তুলনায় কিছুটা বেশি সংক্রমণ রয়েছে। ঢাকা মহানগরীতে আরো বেশি করোনা র্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের ব্যবস্থা করার কথা বলছেন চিকিৎসকরা। এই টেস্ট যেমন খুব দ্রুততার সাথে করা যায় তেমনি খরচও অল্প হয়। সে কারণে চিকিৎসকরা বলছেন, ঢাকা মহানগরীতে রেনডমলি করোনা টেস্ট করে দেখা উচিত কী হারে এখানকার মানুষ আক্রান্ত রয়েছে।
গতকালের ২১ জনসহ সব মিলিয়ে গতকাল পর্যন্ত দেশে করোনায় মোট মৃত্যু হয়েছে ২৭ হাজার ৪১৪ জনের। করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৫১ হাজার ৩৫১। গতকাল পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ১১ হাজার ৪৭৯ জন। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৩১২ জন।
সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় যে ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে তাদের মধ্যে নারী ১৪ জন এবং পুরুষ সাতজন। সবচেয়ে বেশি ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে, চট্টগ্রাম বিভাগে মারা গেছেন চারজন। বরিশাল ও রংপুর বিভাগে কেউ মারা যাননি। আগের দিন করোনায় ২৫ জনের মৃত্যু হয়েছিল। রোগী শনাক্ত হয়েছিল ৮১৮ জন।
২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনা সংক্রমণ দেখা দেয়। কয়েক মাসের মধ্যে এ ভাইরাস বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে। বাংলাদেশে প্রথম করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ এবং দেশে প্রথম মৃত্যু হয়েছে গত বছরের ১৮ মার্চ। এরপর বিভিন্ন সময়ে সংক্রমণ কমবেশি হলেও গত জুন থেকে করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কারণে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে। দেশে গত ২ জুলাই এক দিনে সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৩০ জন করোনা শনাক্ত হয় এবং ৫ ও ১০ আগস্ট দুই দিন সর্বোচ্চ ২৬৪ জন করে মৃত্যু ঘটে।
সিলেটে ৩ মৃত্যুর দিনে শনাক্ত ২৬
সিলেট ব্যুরো জানায়, সিলেট বিভাগে করোনায় আরো তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে বিভাগের চার জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক হাজার ১৫৬ জনে। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে নতুন করে শনাক্তের সংখ্যা ২৬ জন। শনাক্তের হার ৩.২১ ভাগ। এ দিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেট জেলায় শনাক্ত হন ১৯ জন। বাকিদের মধ্যে সুনামগঞ্জে তিন, মৌলভীবাজারে তিন ও হবিগঞ্জের একজন রয়েছেন। ৮১০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে তাদেরকে শনাক্ত করা হয়। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ২৭ জন রোগী রোগী শনাক্ত হন। সবমিলিয়ে বিভাগে করোনাক্রান্তের সংখ্যা এখন ৫৪ হাজার ৪৯৫ জন।



আরো সংবাদ


বাংলাদেশ দখলের হুমকি দিয়ে লাভ কার (৫৬২৬১)অভাবের তাড়নায় ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করলেন বিজিবি সদস্য! (১৭৫২২)ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন আন্তর্জাতিক তায়কোয়ান্দোর রেফারি ড. পেটেল (১৫৭৭১)গেইলের প্রয়োজন ৯৭ রান, সাকিবের ১ উইকেট (৯১৫৯)প্রতিরক্ষার মতোই যোগাযোগ অন্যের হাতে রাখতে পারি না : এরদোগান (৬৬৫৫)মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলে ব্যাপক সৈন্য সমাবেশ, গণহত্যার আশঙ্কা জাতিসঙ্ঘের (৬৬০৪)ভারতের বিরুদ্ধে দলে যাদের রেখেছে পাকিস্তান (৬৩২১)সিরিয়ায় ইসরাইলি বিমান হামলায় বাধা দিবে না রাশিয়া (৬২২৬)আজ থেকে সুপার লিগ : সুপার টুয়েলভের কখন কোন দলের খেলা (৫৮৭৪)পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহারের বিষয়ে চুক্তির দ্বারপ্রান্তে যুক্তরাষ্ট (৫৭৭৯)