৩০ জুলাই ২০২১
`

কেজিতে ৫ টাকা বেড়েছে আলুর দাম, সবজির বাজার চড়া

বাজার দর
-

বেড়েছে আলুর দাম। ব্রয়লার মুরগির দামেরও ঊর্ধ্বগতি আর সবজির বাজার তো এমনিতেই চড়া। ক্রেতারা বলেছেন, নিত্যপণ্যের বাজারে কোনো কিছুর দাম কমার নেই। শুধু বাড়ে আর বাড়ে। মাছের বাজারও বেশ চড়া।
গতকাল রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, আলুর দাম আবারো বেড়েছে। দীর্ঘ দিন ধরেই যে আলুর কেজি ২০ টাকা ছিল। এক সপ্তাহে ওই আলুর কেজি এখন ২৫ টাকায়। পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতাদের দাবি কৃষক ও গুদামজাতকারী পর্যায়ে আলু আটকে দেয়া হয়েছে; যে কারণে হঠাৎই আলুর দাম বেড়ে গেছে। গতকাল রাজধানীর মুগদা বাজারে গিয়ে দেখা যায় আলু বিক্রি হচ্ছে ২৫ টাকায়। সিদ্দিকুর রহমান নামের এক ক্রেতা বলেন, মাত্র তিন দিন আগে গত মঙ্গলবার তিনি ২০ টাকা দামে আলু কিনেছেন। খোরশেদ নামের এক বিক্রেতা বলেন, পাইকারি বাজারেই আলুর দাম বেড়েছে; যে কারণে খুচরা বাজারেও বাড়ছে দাম।
ব্রয়লার মুরগির দাম বেড়েছে কেজিতে ২০ টাকা। যে মুরগির কেজি দুই দিন আগেও বিক্রি হয়েছে ১৩০-৪০ টাকা কেজি, সেই মুরগি গতকাল বিক্রি হয়েছে ১৫০-১৬০ টাকা কেজি। তবে অন্যান্য মুরগি আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে।
গতকাল রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ৫০ টাকার নিচে কোনো সবজি নেই। ভালো মানের সবজির কেজি ৬০ টাকা। করলা বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকা কেজি। রাজধানীর গোপীবাগ এলাকার বাসিন্দা কাইয়ুম বলেন, বাজারে কোনো কিছুর দামই কমে না। সুযোগ পেলেই বাড়ে। নানা অজুহাতে বাড়ানো হয় মাছ-গোশত ও সবজিসহ নিত্যপণ্যের বাজার। একবার বাড়লে তা আর কমার কোনো নাম থাকে না। কাইয়ুম বলেন, গরুর গোশত বিক্রি হয়ে আসছিল ৫৫০-৫৬০ টাকা। হঠাৎ তা বেড়ে হলো ৬০০ টাকা কেজি। কেন কী কারণে কেজিতে ৫০ টাকা বেড়ে গেল গরুর গোশতের দাম তা ক্রেতা জানেন না। জানতে চাইলেও কোনো উত্তর নেই। সেই যে গরুর গোশতের কেজি ৬০০ টাকা হলো আর কমবে না, বরং আরো বাড়বে; বললেন কাইয়ুম। তিনি বলেন, এখন পেঁপের কেজি ৪০-৫০ টাকা দিয়ে কিনে খেতে হয়। এক আঁটি শাক কিনতে হয় ১৫ টাকা।



আরো সংবাদ