১০ এপ্রিল ২০২১
`

চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনার সাড়ে ৫ হাজার নকল টিকা উদ্ধার

-

চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ এর সাড়ে পাঁচ হাজার ডোজ নকল টিকা জব্দ করেছে পুলিশ। অভিযানে জালিয়াত চক্রের কয়েকজন সদস্যকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক পুলিশ সংস্থা ইন্টারপোল এ তথ্য জানিয়েছে। খবর বিবিসির।
খবরে বলা হয়, চীনে নকল টিকা তৈরির অভিযোগে একটি কারখানায় অভিযান চালিয়ে ৮০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পরে সেখান থেকে অন্তত তিন হাজার ডোজ নকল টিকা জব্দ করা হয়। এ ছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকার গাওটেং এলাকার একটি গুদামে অভিযান চালিয়ে পুলিশ দুই হাজার ৪০০ ডোজ নকল টিকা জব্দ করেছে। সেখান থেকে আটক করা হয়েছে তিন চীনা ও এক জাম্বীয় নাগরিককে। তবে ঠিক কবে এসব অভিযান চালানো হয়েছে, তা স্পষ্ট নয়।
দক্ষিণ আফ্রিকায় এই নকল টিকা জব্দের ঘটনা নিয়ে গত ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ খবর প্রকাশ করে দেশটির সানডে টাইমস সংবাদপত্র। পরে গত বুধবার ইন্টারপোল এক বিবৃতিতে বলেছে, তারা নকল টিকা উৎপাদন ও সরবরাহে যুক্ত অন্যান্য চক্রের খবরও পাচ্ছে। অভিযান চালিয়ে করোনার নকল টিকার সাথে যুক্ত সন্দেহভাজন কয়েকটি জালিয়াত চক্রকে গুঁড়িয়ে দেয়ার কথা ঘোষণা করে ইন্টারপোল বলেছে, অনলাইনে এ মুহূর্তে কোনো অনুমোদিত করোনা টিকা বিক্রি করা হচ্ছে না। সংস্থাটি আরো বলেছে, কোনো অনুমোদিত বা গোপন ওয়েবসাইটে কোনো টিকার বিজ্ঞাপন প্রচার করা হলে তা হবে অবৈধ। এসব টিকার কার্যকারিতা পরীক্ষা করা হয়নি। এগুলো বিপজ্জনক হতে পারে। গত ডিসেম্বরে ইন্টারপোল তার ১৯৪টি সদস্য দেশে একটি বৈশ্বিক সতর্কবার্তা জারি করে। সতর্কবার্তায় কোভিড-১৯ টিকা নিয়ে গড়ে ওঠা সংগঠিত অপরাধ নেটওয়ার্কের বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর জন্য তৈরি থাকতে নির্দেশনা দেয়া হয়। একই সাথে দেয়া হয় জাল চিকিৎসাসামগ্রী শনাক্ত করার পদ্ধতি সম্পর্কে পরামর্শও।
ইন্টারপোল বলেছে, দক্ষিণ আফ্রিকার জারমিস্টন ও গাওটেং এলাকায় কয়েক হাজার ডোজ নকল টিকা জব্দ করা ছাড়াও বিপুল পরিমাণ নকল ৩এম মাস্ক পাওয়া গেছে। যেসব কারখানায় অভিযান চালানো হয়েছে, সেখান থেকে উদ্ধার করা নকল টিকার কিছু ছবিও প্রকাশ করেছে সংস্থাটি। করোনার নতুন ধরনের বিরুদ্ধে কার্যকারিতা নিয়ে সংশয় দেখা দেয়ার প্রেক্ষাপটে দেরিতে হলেও গত ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশজুড়ে টিকাদান কর্মসূচি শুরু করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। চীনের জননিরাপত্তাবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র বলেছেন, নকল টিকার সাথে যুক্ত চক্রগুলোকে রুখতে পুলিশ সক্রিয় আছে। এ বিষয়ে ইন্টারপোলের সাথে গঠনমূলক সহযোগিতা বাড়াবে তারা।
ইউরোপে আবারো বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা : টানা ছয় সপ্তাহ কমার পর আবারো ইউরোপে বাড়তে শুরু করেছে করোনাভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা। গতকাল বৃহস্পতিবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) এ তথ্য জানিয়েছে। খবর এএফপির।
ডব্লিউএইচও ইউরোপ প্রধান হান্স ক্লুগ এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, গত সপ্তাহে ইউরোপে করোনায় আক্রান্তের হার ৯ শতাংশ বেড়েছে। সংখ্যায় তা ছিল ১০ লাখের বেশি। এর ফলে ছয় সপ্তাহের আক্রান্তের সংখ্যা কমে আসার অবনতি ঘটল। অর্ধেক অঞ্চলেই নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে।
তিনি আরো বলেন, মধ্য ও পূর্ব ইউরোপে আক্রান্তের ঊর্ধ্বগতি দেখা যাচ্ছে। বেশ কয়েকটি পশ্চিম ইউরোপীয় দেশেও সংক্রমিতের উচ্চহার রয়েছে। হান্স বলেন, আমাদের মৌলিক সুরক্ষা কর্মকাণ্ডে ফিরতে হবে। আমাদের ভ্যাকসিন দেয়া বাড়াতে হবে। ডব্লিউএইচওর ইউরোপ অঞ্চলে ৫৩টি দেশ রয়েছে। এসব দেশের মধ্যে ৪৫টিতে করোনার ভ্যাকসিন কর্মসূচি শুরু হয়েছে। বিভিন্ন দেশের সরকারি তথ্যের ভিত্তিতে এএফপির পরিসংখ্যান অনুসারে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের মোট জনসংখ্যার ২ দশমিক ৬ শতাংশ করোনা ভ্যাকসিনের দু’টি ডোজ এবং ৫ দশমিক ৪ শতাংশ এক ডোজ নিয়েছেন।
জার্মানিতে প্রবীণদের জন্যও অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের অনুমোদন : অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন ৬৫ বছরের বেশি বয়সীদের জন্য অনুমোদন দিয়েছেন জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মারকেল। খবর বিবিসির। এর আগে জার্মানি শুধু ৬৫ বছরের কম বয়সীদের জন্য অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের অনুমোদন দিয়েছিল। এর ফলে দেশটির কিছু লোকের মধ্যে অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন নিয়ে সন্দেহ তৈরি হয়। অনেক ভ্যাকসিন অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। তবে বুধবার মারকেল বলেন, নতুন গবেষণায় যথেষ্ট পরিমাণ তথ্য প্রদান করা হয়েছে যে, এ ভ্যাকসিনটি সব বয়সের মানুষের জন্যই কার্যকর।
সম্প্রতি বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন প্রবীণদের ওপর উচ্চমাত্রায় কার্যকর। গত সোমবার ফ্রান্স প্রবীণদের জন্য অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের অনুমোদন দেয়। এরপর বেলজিয়ামও জানায় তারা এই অনুমোদন দেবে। জার্মানির ৫ শতাংশ জনগণ ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন।
মারকেল আরো জানান, ব্রিটেনের মতো জার্মানিও ভ্যাকসিনের দু’টি ডোজ প্রয়োগের মধ্যকার সময় আরো বাড়াবে যেন প্রাথমিক পর্যায়ে বেশিসংখ্যক মানুষকে ভ্যাকসিন দেয়া যায়। ইউরোপীয় ইউনিয়নের চিকিৎসা নিয়ন্ত্রক গত জানুয়ারিতে সব বয়সের মানুষের জন্য অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিনের অনুমোদন দেয়।
কিন্তু ফ্রান্স, বেলজিয়াম ও ইতালির মতো দেশগুলো অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন ৬৫ বছরের বেশি বয়সীদের প্রয়োগ না করতে পরামর্শ দেয়। জার্মানির মতো তারাও জানায়, প্রবীণদের ওপর ভ্যাকসিনটির কার্যকারিতার পক্ষে যথেষ্ট পরিমাণ তথ্য নেই। এর ফলে এসব দেশের সাধারণ মানুষের মধ্যে ভ্যাকসিনটি নেয়ার ক্ষেত্রে সংশয় তৈরি হয়।
গত জানুয়ারিতে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনকে প্রবীণদের জন্য ‘আংশিক কার্যকর’ বলে উল্লেখ করেন। ভ্যাকসিনের সরবরাহ নিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাথে অ্যাস্ট্রাজেনেকার বিবাদ তৈরি হওয়ার মধ্যেই কার্যকারিতা নিয়ে এ বিতর্ক তৈরি হয়। এর পর থেকে ইউরোপের কয়েকটি দেশে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এর ফলে এসব দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ কার্যক্রমেও ধীর গতি তৈরি হয়েছে।
করোনার অজুহাতে বিদেশী সাংবাদিকদের বাধা দিচ্ছে চীন : এবার করোনাভাইরাস মহামারীর অজুহাতে বিদেশী সাংবাদিকদের নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছে চীন। চীনা এক সংবাদমাধ্যম হুঁশিয়ারি দিয়ে জানায়, সাংবাদিকদের নিয়ন্ত্রণ করতে করোনাভাইরাসের স্বাস্থ্যবিধির নামে কড়াকড়ি এবং আরো নজরদারি বাড়িয়েছে বেইজিং। দ্য ফরেন করেসপন্ডেন্টস ক্লাব অব চায়না (এফসিসিসি) তাদের বার্ষিক প্রতিবেদনে জানায়, চীনে মহামারী বিষয়ে যখনই বিদেশী গণমাধ্যম কোনো প্রতিবেদন লেখার চেষ্টা করেছে, এ বিষয়ে জানার চেষ্টা করেছে, তখন বাধা দিয়েছে দেশটি। চীনের অপপ্রচার এ ঘটনার নিয়ন্ত্রণ নিতে হিমশিম খেয়েছে। তবে চীন আবারো সাংবাদিকদের নিয়ন্ত্রণ করতে এ মহামারীকে ব্যবহার করছে। কোভিড-১৯ প্রতিরোধ ব্যবস্থায় কড়াকড়ি নিয়মিতভাবে বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের বাধা ও হুমকি দিতে ব্যবহার করা হচ্ছে। এ অজুহাতে কখনো কখনো তাদের চীন ছাড়তে বা কোয়ারেন্টিনে থাকতেও বাধ্য করা হচ্ছে।

 



আরো সংবাদ


সৌদিতে বাউবির এসএসসি-এইচএসসির ক্লাস উদ্বোধন নিজেদের তৈরি করা ইতিহাস প্রতিষ্ঠার সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যে কাজ করছে আ’লীগ : ফখরুল ভাতিজিকে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে গোপনাঙ্গে নির্যাতন, চাচার বিরুদ্ধে মামলা ‘শিশুবক্তা’ মাদানিকে কাশিমপুর কারাগারে স্থানান্তর প্রশাসনের অবহেলা রয়েছে কি-না খতিয়ে দেখা হচ্ছে : ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার পরমাণু ক্ষেত্রে ১৩৩ সাফল্য উন্মোচন করল ইরান বরগুনায় বসতঘরসহ ৯টি দোকান পুড়ে ছাই টঙ্গীতে লিফটের নিচে মিলল ব্যবসায়ীর লাশ সৈকতে ভেসে আসা ২ তিমির কঙ্কাল সংরক্ষণের উদ্যেগ ব্রিটিশ রাজপরিবার কিভাবে কাজ করে, এর সদস্য কারা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা, প্রাথমিক আবেদন ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত

সকল

লক খোলা লকডাউন, রোববার নতুন নির্দেশনা (১৫৪৬৩)র‌্যাবের ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করলো পুলিশ (১৪৫৪৯)১৪ এপ্রিল থেকে জরুরি সেবার প্রতিষ্ঠান ছাড়া সব বন্ধ : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী (১২০৮১)ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহার করুন : বাবুনগরী (৮৫১১)১৪ এপ্রিল থেকে সর্বাত্মক লকডাউনের চিন্তা সরকারের : কাদের (৮৩৮২)এবার টার্গেট জ্ঞানবাপী মসজিদ! (৭১৪৪)আপনি যে পতনের দ্বারপ্রান্তে তা বুঝবেন কিভাবে? (৫৪২১)মিয়ানমারে নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে বন্দুক নিয়ে লড়ছেন বিক্ষোভকারীরা (৪৫৯৮)হিমছড়িতে ভেসে এলো বিশাল তিমি (৪৪৫৭)বিজেপির নির্বাচনী গানে বাংলাদেশে ইসলামপন্থীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষের ছবি (৪২৪৬)