২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১
`

ফেব্রুয়ারিতেই যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যু ৫ লাখে পৌঁছার শঙ্কা বাইডেনের

করোনা ভাইরাস
-

আক্রান্ত : ৯,৮২,২৯,৪০২ মৃত্যু : ২১,০৩,৩৮৬
দেশ আক্রান্ত মৃত্যু
যুক্তরাষ্ট্র ২,৫২,০০,৫৩৯ ৪,২০,৩৬৩
ভারত ১,০৬,৩৩,৩৩৯ ১,৫৩,০৮৮
ব্রাজিল ৮৬,৯৯,৮১৪ ২,১৪,২২৮
রাশিয়া ৩৬,৭৭,৩৫২ ৬৮,৪১২
ইংল্যান্ড ৩৫,৪৩,৬৪৬ ৯৪,৫৮০
ফ্রান্স ২৯,৮৭,৯৬৫ ৭১,৯৯৮
স্পেন ২৫,৬০,৫৮৭ ৫৫,০৪১
ইতালি ২৪,২৮,২২১ ৮৪,২০২
তুরস্ক ২৪,১২,৫০৫ ২৪,৬৪০
জার্মানি ২১,১০,৬৮২ ৫১,২৪৭
আগামী ফেব্রুয়ারিতেই যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃতের সংখ্যা পাঁচ লাখে পৌঁছাতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। গত বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউজে আমেরিকানদের সতর্ক করে দিয়ে তিনি বলেন, করোনা মহামারী নিয়ে সামনে এখনো অনেক কঠিন দিন রয়েছে। পরিস্থিতি উন্নতির বদলে অবনতির দিকে যাচ্ছে। আগামী মাসেই মৃতের সংখ্যা পাঁচ লাখ ছাড়াতে পারে। গত এক বছর আমরা কেন্দ্রীয় সরকারের ওপর নির্ভর করতে পারিনি। এ ব্যর্থতার জন্য আমাদের মর্মান্তিক মূল্য দিতে হয়েছে।
এ দিকে করোনাভাইরাস-সংক্রান্ত ১০ নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করেছেন জো বাইডেন। হোয়াইট হাউজে গত বৃহস্পতিবার এসব আদেশে স্বাক্ষর করেন তিনি। দেশটির শীর্ষস্থানীয় সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্টনি ফাউচি এ সময় বাইডেনের পাশে ছিলেন। এর আগে বুধবার করোনাভাইরাস বিষয়ে আরো দু’টি নির্বাহী আদেশ জারি করেন তিনি। হোয়াইট হাউজের রুজভেল্ট রুমে বাইডেন ১৯৮ পৃষ্ঠার পরিকল্পনা সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন। তিনি জানান, কেন্দ্রীয় সরকারের সহায়তায় আগামী এক মাসের মধ্যে ১০০টি টিকা কেন্দ্র খোলা হবে। আগামী ১০০ দিনের মধ্যে ১০ কোটি আমেরিকানকে টিকা দেয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।
অ্যান্থনি ফাউচি সাংবাদিকদের জানান, ১০০ দিনের মধ্যে ১০ কোটি মানুষকে টিকা দেয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ যুক্তিসঙ্গত। এ পর্যন্ত এক কোটি ছয় লাখ মানুষকে টিকা দেয়া হয়েছে, যা আগের প্রশাসনের ডিসেম্বরের মধ্যে দুই কোটি মানুষকে টিকা দেয়ার লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে কম।
চীন থেকে টিকা উপহার পাচ্ছে পাকিস্তান : চীনের কাছ থেকে উপহার হিসেবে করোনাভাইরাসের টিকা পেতে যাচ্ছে পাকিস্তান। গত বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশি এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, সিনোফার্মের পাঁচ লাখ ডোজ করোনার টিকা পাকিস্তানকে উপহার দেবে চীন। ৩১ জানুয়ারির মধ্যে এই টিকা পাকিস্তানে আসবে। তবে পাকিস্তানের জন্য আরো টিকা দরকার হবে। সে ব্যাপারেও দেশটিকে আশ্বস্ত করেছে চীন। পাকিস্তান এরই মধ্যে সিনোফার্মের টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। গত সোমবার দেশটির নিয়ন্ত্রক সংস্থা এই টিকার অনুমোদন দেয়।
ভুটানকে দেড় লাখ ডোজ ভ্যাকসিন উপহার দিলো ভারত : ভুটানকে দেড় লাখ কোভিশিল্ড উপহার দিয়েছে ভারত। গত বুধবার মুম্বাইয়ের ছত্রপতি শিবাজি মহারাজ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে এর প্রথম চালান ভুটানের থিম্পুতে পাঠানো হয়। ভুটানের সাথে বিশেষ সম্পর্কের কথা মাথায় রেখে করোনা বিধি সত্ত্বেও ভারত ভুটানকে বাণিজ্যিক প্রয়োজনীয় জিনিস সরবরাহের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। এর আগে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে আটকে পড়া দুই হাজারেরও বেশি ভুটান নাগরিককে ভুটানে ফেরার ব্যবস্থা করে দিয়েছে ভারত।
জার্মানিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা অর্ধ লাখ ছাড়িয়েছে : জার্মানিতে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা অর্ধ লাখ ছাড়িয়েছে। গতকাল শুক্রবার দেশটির রোগ নিয়ন্ত্রণ দফতর এ তথ্য জানিয়ে বলেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় ৮৫৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫০ হাজার ৬৪২। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে জার্মানিতে আক্রান্তের হার তুলনামূলক কমলেও মৃতের সংখ্যা বেড়েছে।
ওষুধে নার্সিং হোমে সংক্রমণ প্রতিরোধের দাবি : নার্সিং হোমে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবেলায় অপ্রচলিত একটি গবেষণায় সফলতা পাওয়ার দাবি করেছে মার্কিন কোম্পানি ইলাই লিলি। উপসর্গ দেখা দেয়ার প্রাথমিক পর্যায়ে নার্সিং হোমের কর্মী ও বাসিন্দাদের ওপর ইলাই লিলির তৈরি মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডিসমৃদ্ধ ওষুধটি প্রয়োগ করে সংক্রমণ প্রতিরোধে ‘সফলতার প্রমাণ’ পাওয়ার দাবি করেছে ওই কোম্পানি। ইলাই লিলি বলছে, বয়স্ক ব্যক্তি, যারা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকেন, তাদের ক্ষেত্রেও ‘সুরক্ষা’ দিতে পারছে ওই ওষুধ। যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথের সাথে করা এক ওই গবেষণার প্রাথমিক ফল বৃহস্পতিবার প্রকাশ করে কোম্পানিটি বলছে, নার্সিং হোমের রোগীদের মধ্যে ওষুধটি প্রয়োগ করে দেখা গেছে, ৮০ শতাংশের ক্ষেত্রে সংক্রমণের মাত্রা কমে গেছে। আর নার্সিং হোমের কর্মীদের ক্ষেত্রে এ কমেছে ৬০ শতাংশ।
মার্চ বা এপ্রিলে ভ্যাকসিন নিতে পারেন মোদি : ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেশব্যাপী করোনা টিকাদান কর্মসূচির দ্বিতীয় পর্যায়ে ভ্যাকসিন নিতে পারেন। বর্তমানে ভারতে দেশব্যাপী প্রথম পর্যায়ে ব্যাপক টিকাদান কর্মসূচি চলছে। এ কার্যক্রমের সাথে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রী, এমপি, এমএলএ ও ৫০ বছরের বেশি বয়সী সাধারণ জনগণ এ টিকাদান কর্মসূচির দ্বিতীয় পর্যায়ে ভ্যাকসিন নেবেন।
গত ১৬ জানুয়ারি এই টিকাদান কর্মসূচির প্রথম পর্যায় শুরু হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে প্রায় ৩০ মিলিয়ন স্বাস্থ্যকর্মী ও সম্মুখ সারির কর্মীরা ভ্যাকসিন গ্রহণ করবেন। বিশ্বের বৃহত্তম টিকাদান কর্মসূচিটির দ্বিতীয় পর্যায়ে ২৭০ মিলিয়ন লোককে ভ্যাকসিন দেয়া হবে।
ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, প্রথম পর্যায়ের টিকাদান কর্মসূচি সম্পন্ন হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রীর পালা এলে তিনি ভ্যাকসিন গ্রহণ করবেন। তিনি (মোদি) মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে বৈঠককালে বলেন, কোনোভাবেই রাজনীতিবিদদের লাইন ভাঙা উচিত নয় এবং যখন তাদের পালা আসবে, কেবল তখনই তাদের ভ্যাকসিন নেয়া উচিত।’



আরো সংবাদ


এলডিসি থেকে উত্তরণের চূড়ান্ত সুপারিশ পেলো বাংলাদেশ দুই রাষ্ট্র এক জাতি : নাগরনো-কারাবাখ বিজয়ের স্মরণে স্মৃতিসৌধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ব্যাপারে জানা যাবে বিকেলে হাইতিতে কারাগারে সহিংসতায় ২৫ জনের মৃত্যু চকরিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ নেইমারের সাথে নতুন চুক্তি নিয়ে আলোচনায় পিএসজি এরদোগানের ২০২০ গ্লোবাল মুসলিম পার্সোনালিটি অ্যাওয়ার্ড অর্জন বিদেশী নেতার সাথে দ্বিতীয় ‘ভার্চুয়াল’ সম্মেলন করতে যাচ্ছেন বাইডেন : হোয়াইট হাউস ডোমারে ভ্রাম্যমাণ আদালতে মাদকসেবীর ৭ দিনের জেল ঢাকা বারের সভাপতি আ’লীগের, সম্পাদক বিএনপি’র বিশ্বব্যাপী করোনায় মৃত্যু ২৫ লাখ ১৭ হাজার ছাড়াল

সকল