১৭ জানুয়ারি ২০২১
`

লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ

-

দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল ৮ মার্চ। সে সময়ের আট মাস ১৬ দিনের মাথায় গতকাল মঙ্গলবার শনাক্ত রোগীর সংখ্যা সাড়ে চার লাখ ছাড়িয়ে গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরো দুই হাজার ২৩০ রোগী শনাক্ত হয়েছে; তাতে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা পৌঁছেছে চার লাখ ৫১ হাজার ৯৯০ জনে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে এ দিন মারা গেছেন ৩২ জন। এর ফলে করোনায় মৃত্যুর মোট সংখ্যা গিয়ে পৌঁছেছে ছয় হাজার ৪৪৮ জনে। একই সময়ে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরো দুই হাজার ২৬৬ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তাতে সুস্থ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে তিন লাখ ৬৬ হাজার ৮৭৭ জন হয়েছে। এ দিকে গতকাল মারা যাওয়া ব্যক্তিদের তিন-চতুর্থাংশই ঢাকার বাসিন্দা।
গতকাল মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদফতর নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানায়।
জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় আরো দুই হাজার ২৩০ রোগী শনাক্ত হয়েছে দেশে; তাতে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা পৌঁছেছে চার লাখ ৫১ হাজার ৯৯০ জনে।
স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ১১৭টি ল্যাবে ১৫ হাজার ১৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে ২৬ লাখ ৮০ হাজার ১৪৯টি নমুনা। ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৮৫ শতাংশ, এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৮৬ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮১ দশমিক ১৭ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪৩ শতাংশ। গত এক দিনে যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ২৫ জন, নারী সাতজন। তাদের মধ্যে ৩১ জন হাসপাতালে ও একজন বাড়িতে মারা গেছেন। মৃতদের মধ্যে ১৯ জন ষাটোর্ধ্ব বয়সী, পাঁচজনের বয়স ৫১-৬০, সাতজনের বয়স ৪১-৫০ বছরের মধ্যে এবং একজনের বয়স ৩১-৪০ বছরের মধ্যে ছিল। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৩২ জনের মধ্যে ২৪ জন ঢাকা বিভাগের, চারজন চট্টগ্রাম বিভাগের, তিনজন রাজশাহী বিভাগের এবং একজন রংপুর বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন। এ পর্যন্ত যারা মারা গেছেন, তাদের মধ্যে তিন হাজার ৪২২ জন ঢাকা বিভাগের, এক হাজার ২৪২ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, ৩৯৪ জন রাজশাহী বিভাগের, ৪৮৮ জন খুলনা বিভাগের, ২১৫ জন বরিশাল বিভাগের, ২৬৩ জন সিলেট বিভাগের, ২৯২ জন রংপুর বিভাগের এবং ১৩২ জন ময়মনসিংহ বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন।
রাজশাহী বিভাগে আরেকজনের মৃত্যু
রাজশাহী ব্যুরো জানায়, রাজশাহী বিভাগে করোনাভাইরাসে আরেকজনের মৃত্যু হয়েছে। গত সোমবার বিভাগের রাজশাহীতে মৃত্যু হয় তার। এ নিয়ে বিভাগের আটটি জেলায় এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে মোট ৩৩৪ জনের মৃত্যু হলো। গতকাল মঙ্গলবার বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা: গোপেন্দ্রনাথ আচার্য্য সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, বিভাগে এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ ২০২ জনের মৃত্যু হয়েছে বগুড়ায়। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজশাহীতে। এর বাইরে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৪ জন, নওগাঁয় ২৪ জন, নাটোরে ১২ জন, জয়পুরহাটে সাতজন, সিরাজগঞ্জে ১৪ জন এবং পাবনায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার বিভাগে নতুন ৫৩ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ দিন বিভাগে সুস্থ হয়েছেন ৩১ জন। বিভাগে এখন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা মোট ২২ হাজার ২১৭ জন। এদের মধ্যে মোট ২০ হাজার ৪৭৮ জন সুস্থ হয়েছেন।
চট্টগ্রামে ২ জনের মৃত্যু
চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়ে গতকাল দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন মোট ৩১৫ জন। এর মধ্যে ২২১ জন নগরের ও ৯৪ জন উপজেলার বাসিন্দা। পাশাপাশি কয়েকদিন ধরে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। গত একদিনে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ১৮৩ জন। এ পর্যন্ত মোট এক হাজার ৩৩৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন শনাক্তদের চিহ্নিত করা হয়েছে। নতুন শনাক্তদের মধ্যে ১৫৫ জন নগরের ও ২৮ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।
সিভিল সার্জন জানান, গত সোমবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে নমুনা পরীক্ষায় ৩৯ জনের ও ফৌজদারহাটের বিআইটিআইডিতে ১৮ জন, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে ৮০ জন ও সিভাসুতে ১১ জন, ইমপেরিয়াল হাসপাতালে ২৩ জনের, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালে আটজনের এবং আরটিআরএলে চারজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।



আরো সংবাদ