২৩ অক্টোবর ২০২০

ভিসার মেয়াদ বাড়াতে রোববার খুলছে ঢাকার সৌদি দূতাবাস

যাত্রীদের নমুনা সংগ্রহের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে পৌঁছাতে হবে দেশটিতে
-

দীর্ঘ দিন বন্ধ থাকার পর সরকারের আন্তরিক প্রচেষ্টায় আটকে পড়া প্রবাসী বাংলাদেশীরা আবারো সৌদি আরবে যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন। যাদের ভিসার মেয়াদ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে, তাদের ভিসা ঢাকার সৌদি দূতাবাসের মাধ্যমে প্রদান করতে সৌদি কর্তৃপক্ষ রাজি হয়েছে। আগামী রোববার থেকে সৌদি দূতাবাস খুলবে। এ ছাড়া ইকামার মেয়াদ চলতি আরবি সফর মাসের শেষ দিন পর্যন্ত বৈধ থাকবে। পাশাপাশি সৌদি এয়ারলাইন্স ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স টিকিট ইস্যু করবে।
গতকাল বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার মো: তৌহিদুল ইসলামের পাঠানো খুদে বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়।
বার্তায় আরো বলা হয়, সৌদি দূতাবাসের ভিসা প্রার্থীরা এবং সৌদি এয়ারলাইন্স ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে টিকিট করতে ইচ্ছুকদেরকে বিশৃঙ্খলা না করে নিয়মতান্ত্রিকভাবে এসব কাজ সম্পন্ন করার অনুরোধ জানানো হয়। বলা হয়, ভিসা সংগ্রহের সময় ঢাকার সৌদি দূতাবাসে অথবা টিকিট সংগ্রহের সময় সৌদি এয়ারলাইন্স বা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সামনে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা না করতে। এ ছাড়া সৌদি প্রবাসী বাংলাদেশীদের তৃতীয়পক্ষের প্ররোচনায় কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা না করার জন্য বার্তায় আহ্বান জানানো হয়।
এ দিকে আগামী ১ অক্টোবর থেকে সৌদি আরবে নন শিডিউল ফ্লাইট পরিচালনার জন্য ল্যান্ডিং পারমিশন পাওয়া গেছে বলে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে। এ ছাড়া সেপ্টেম্বর মাসেই জেদ্দা ও রিয়াদগামী দু’টি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে বলে জানিয়েছে বিমানের জনসংযোগ বিভাগ।
অপর একটি সূত্র জানিয়েছে, ১ অক্টোবর সৌদি আরবের জেদ্দা, রিয়াদ, দাম্মামে বাণিজ্যিক ফ্লাইটের ল্যান্ডিং পারমিশন পাওয়া গেছে। তবে এ বিষয়টি অস্বীকার করে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো: মোকাব্বির হোসেন নয়া দিগন্তকে বলেন, আমাদের চেষ্টা অব্যাহত আছে। এখন পর্যন্ত আমরা ল্যান্ডিং পারমিশন পাইনি।
এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, বিষয়টা আমাদের প্রসেসের মধ্যে আছে। আমাদেরকে সবাই দুর্বল মনে করে। সবাই আমাদেরকে চাপে রাখে। এখানে আমার অনেক ক্ষতির বিষয় আসছে। তিনি বলেন, নিয়ম হলো চার্টার্ড ফ্লাইটে নতুন করে টিকিট বিক্রি করা। যেটা সব এয়ারলাইন্স করে আসছে। সাউদিয়া টিকিট বিক্রি করছে। সাউদিয়ার টিকিট আছে মানুষের কাছে। কিন্তু তারা ফ্রেশ টিকিট করছে। আমি তো আমাদের যারা প্যাসেঞ্জার আছে, যারা ৭-৮ মাস ধরে বাড়িতে কষ্টের মধ্যে আছে, আমি তাদেরকে আগের কাটা টিকিটেই নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করব। তিনি বলেন, তারা আমাদেরকে নন শিডিউল ফ্লাইট দিচ্ছে। এই ফ্লাইটে গ্রাউন্ড হ্যান্ডলিং চার্জ, ল্যার্ন্ডিং চার্জ প্রায় তিন গুণ। তারপরও আমি লোকসান দিয়ে হলেও প্যাসেঞ্জারের ঘাড়ে দিচ্ছি না। কোভিড সার্টিফিকেট কারো পজিটিভ হলে সে কিন্তু যেতে পারবে না। বিমানের ১৭ এবং ১৮ মার্চের যাদের কাছে রিটার্ন টিকিট আছে তাদেরকে গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে কনফার্মেশন দেয়ার কাজ শুরু হয়েছে। আমরা বিষয়গুলো মনিটরিং করছি। দিনশেষে পরের দিনেরটা ডিক্লেয়ার করব। আমরা দেখছি কী পরিমাণ টিকিটধারী আছে। ‘ওইখানে সৌদি আরবের প্যাসেঞ্জার ছাড়াও অন্য লোকজন ভিড় জমাচ্ছেন। ফরেন মিনিস্ট্রির সাথে আপনারা কথা বলেন, পরশু দিন যারা দাবিদাওয়া দিতে গিয়েছিল তারা কারা? তাহলে বুঝতে পারবেন কী হচ্ছে।
এর আগে বিমানের জনসংযোগ বিভাগ থেকে জানানো হয়, ১৬ মার্চের জেদ্দায় রিটার্ন টিকিটধারীদের জন্য ২৬ সেপ্টেম্বর এবং ১৭ মার্চের রিয়াদের রিটার্ন টিকিটধারীদের ২৭ সেপ্টেম্বর ঢাকা থেকে দু’টি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। ১৬ ও ১৭ মার্চের রিটার্ন টিকিটধারী যাত্রীদের এই ফ্লাইটে বুকিংয়ের জন্য বিমান সেলস অফিসে টিকিট, পাসপোর্ট, সৌদি আরব নির্ধারিত অ্যাপস অথবা লিংক থেকে অনুমোদন, আনুষঙ্গিক কাগজপত্রসহ গতকাল বৃহস্পতিবারের (২৪ সেপ্টেম্বর) মধ্যে যোগাযোগ করেছে। নতুন ফ্লাইট অনুমোদনসাপেক্ষে পর্যায়ক্রমে অন্য যাত্রীদেরও বুকিংয়ের বিষয়টি পরে জানিয়ে দেয়া হবে। এর আগ পর্যন্ত অন্য যাত্রীদের টিকিট কাউন্টারে ভিড় না করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। বিমানের পক্ষ থেকে জানানো হয়, সৌদি আরব যাওয়ার জন্য কোভিড নেগেটিভ সার্টিফিকেট বাধ্যতামূলক এবং নমুনা সংগ্রহের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সৌদি আরব পৌঁছাতে হবে। এ জন্য সব যাত্রীকে ঢাকা থেকে কোভিড পরীক্ষা করতে হবে। এ ছাড়া বিশেষ ফ্ল¬াইটগুলো ঢাকা থেকেই ছেড়ে যাবে বলে জানানো হয়।
চতুর্থ দিনেও টিকিট পেতে লম্বা লাইন : এ দিকে সৌদিগামী যাত্রীরা টিকিট পেতে চতুর্থ দিনের মতো রাজধানীর পাঁচ তারকা হোটেল সোনারগাঁওয়ের গেটের সামনে গতকাল সকাল ১০টা থেকে অপেক্ষা করছেন। এদের মধ্যে কয়েকজন যাত্রী অভিযোগ করেন, তাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। টিকিট রিকর্নফার্ম করার জন্য সকাল থেকে সৌদি এয়ারলাইন্সের কাউন্টারে আসি; কিন্তু আড়াই ঘণ্টায়ও ভেতরে প্রবেশ করতে পারিনি। টিকিট কিভাবে পাবেন সে ব্যাপারেও তারা কিছু বলছেন না। যাত্রীদের মধ্যে একজন নাম না জানিয়ে অভিযোগ করে বলেন, তার পরে দেশে ফিরে পরিচিত একজন এজেন্সির কাছ থেকে বেশি টাকায় টিকিট কেটে দু’দিন আগে সৌদি চলে গেছেন। কাউন্টারের সামনে যারা ভিড় জমিয়েছে তাদের টোকেন দেয়া হলেও প্র্রবেশের অনুমতি দেয়া হচ্ছে না। ভুক্তভোগী প্রবাসী শ্রমিকদের অভিযোগ, বিভিন্ন এজেন্সির মাধ্যমে মোটা অঙ্কের টাকায় সৌদি এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ টিকিট বিক্রি করে দিচ্ছে। এ পর্যন্ত দুই হাজার শ্রমিককে এয়ারলাইন্সের টিকিট ইস্যু করার জন্য বিশেষ টোকেন দেয়া হলেও সিরিয়াল অনুযায়ী টিকিট দেয়া হচ্ছে না।
রোববার খুলছে সৌদি দূতাবাস : বিমানের আরো দু’টি বিশেষ ফ্লাইট : আটকেপড়া প্রবাসী বাংলাদেশীদের সৌদি আরব নিয়ে যেতে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ আরো দু’টি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী ২৯ ও ৩০ সেপ্টেম্বর বিমানের বিশেষ ফ্লাইট দু’টি পরিচালনা করা হবে।
গতকাল বৃহস্পতিবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো: মোকাব্বির হোসেন ক্ষুদে বার্তায় এ তথ্য জানান।
বার্তায় বলা হয়, জেদ্দা ও রিয়াদগামী বিমানের যাত্রীদের জানানো যাচ্ছে, ১৮-২০ মার্চের জেদ্দা এবং ১৮-১৯ মার্চের রিয়াদগামী যাত্রীদের বিমানের রিটার্ন টিকিটধারী যাত্রীদের জন্য আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর ঢাকা রিয়াদ ও ৩০ সেপ্টেম্বর ঢাকা জেদ্দা রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করবে। জেদ্দা ও রিয়াদের ফিরতি টিকিটধারী যাত্রীদের এই ফ্লাইটে বুকিং করার জন্য বিমান সেলস অফিসে টিকিট, পাসপোর্ট, সৌদি আরব নির্ধারিত এ্যাপস/লিংক থেকে অনুমোদন ইত্যাদিসহ ২৫-২৬ সেপ্টেম্বর যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। বুকিং আগে এলে আগে পাবেন ভিত্তিতে হবে। নতুন ফ্লাইট অনুমোদন সাপেক্ষে পর্যায়ক্রমে অন্য যাত্রীদেরও বুকিংয়ের জন্য অবহিত করা হবে।


আরো সংবাদ