২৩ অক্টোবর ২০২০

এক সপ্তাহে পরীক্ষা শনাক্ত সুস্থতা মৃত্যু সবই কমেছে

আরো ২৬ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১৫৪৪
-

দেশে গত এক সপ্তাহে করোনার নমুনা পরীক্ষা, শনাক্ত, সুস্থতার হার ও মৃত্যু-সব সূচকই হ্রাস পেয়েছে। ওই সময়ে ৯৪ হাজার ১৯৮টি নমুনা পরীক্ষা, পরীক্ষায় ১১ হাজার ৩২৮ জন রোগী শনাক্ত, ১৬ হাজার ১১৫ জন সুস্থ এবং ২১১ জনের মৃত্যু হয়। করোনাভাইরাস সংক্রমণের ৩৮তম সপ্তাহের (১৩-১৯ সেপ্টেম্বর) তুলনায় পূর্ববর্তী সপ্তাহে নমুনা পরীক্ষা, শনাক্ত, সুস্থতার হার ও মৃতের সংখ্যা ছিল যথাক্রমে ৯৭ হাজার ৫২৩টি, ১২ হাজার ৪৭৯ জন, ২০ হাজার ৪১৯ জন এবং ২৫৫ জন। তুলনামূলক বিশ্লেষণে দেখা যায়, পরীক্ষা, শনাক্ত, সুস্থতা ও মৃতের হার হ্রাস পেয়েছে যথাক্রমে ৩.৪১ শতাংশ, ৯.২২ শতাংশ, ২১.০৮ শতাংশ এবং ১৭.২৫ শতাংশ। গতকাল রোববার স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা: নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনাভাইরাস বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এসব তথ্য জানা যায়।
এ দিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে আরো ২৬ জন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে পুরুষ ১৭ ও নারী ৯ জন। হাসপাতালে ২৪ জন ও বাড়িতে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল চার হাজার ৯৩৯ জন। করোনাভাইরাস শনাক্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৪টি পরীক্ষাগারে ১০ হাজার ৭৮৭টি নমুনা সংগ্রহ হয়। পরীক্ষা হয়েছে ১১ হাজার ৫৯১টি। একই সময়ে আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৫৪৪ জন। ফলে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল তিন লাখ ৪৮ হাজার ৯১৬ জন। এ পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮ লাখ ২১ হাজার ২৭০টি। স্বাস্থ্য অধিদফতরের হিসাবে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরো দুই হাজার ১৭৯ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন গত এক দিনে। তাতে সুস্থ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে দুই লাখ ৫৬ হাজার ৫৬৫ জন হয়েছে।
বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গত একদিনে করোনায় মৃত ২৬ জনের মধ্যে বিশোর্ধ্ব একজন, চল্লিশোর্ধ্ব একজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব সাতজন এবং ষাটোর্ধ্ব ১৭ জন। বিভাগ অনুযায়ী, মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৯ জন, চট্টগ্রামে চারজন, রাজশাহীতে একজন, খুলনায় একজন ও রংপুরে একজন রয়েছেন।
দেশে এ পর্যন্ত মারা যাওয়া চার হাজার ৯৩৯ জনের মধ্যে তিন হাজার ৮৪৬ জনই পুরুষ এবং এক হাজার ৯৩ জন নারী। তাদের মধ্যে দুই হাজার ৪৯৪ জনের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি। এ ছাড়া এক হাজার ৩৪৩ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, ৬৩৭ জনের বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে, ২৮৮ জনের বয়স ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে, ১১৪ জনের বয়স ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে, ৪২ জনের বয়স ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে এবং ২১ জনের বয়স ছিল ১০ বছরের কম।
চট্টগ্রামে মৃত্যুহীন দিনে আক্রান্ত ২৫
চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, চট্টগ্রামে গত এক দিনে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২৫ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত ১৮ হাজার ২৬৯ জন। তবে এ দিন মারা যাননি কেউ। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৯৮ জন। গত শনিবার চট্টগ্রামে ৪টি ল্যাব ও কক্সবাজার মেডিক্যাল ল্যাবে মোট ৩৯৫টি নমুনা পরীক্ষা হয়। চট্টগ্রাম সিভিল সার্জনের বুলেটিনে জানানো হয়েছে, বিআইটিআইডির নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছেন ৭ জন। মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ১২টি নমুনা পরীক্ষা করে শনাক্ত হয়েছে ৩ জন। চমেক ল্যাবে ৫ জন ও শেভরণ ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ৭ জন, কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে ৩ জন করোনা পজেটিভ হয়েছেন। সিভিল সার্জন ডা: সেখ ফজলে রাব্বি জানান, গত ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় ২৫ জন নতুন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নগরে ১৮ জন এবং উপজেলায় ৭ জন।
বগুড়ায় করোনায় নারী ও উপসর্গে ৩ জনের মৃত্যু
বগুড়া অফিস জানায়, বগুড়ায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মোহাম্মাদ আলী হাসপাতালে এক নারী এবং শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে করোনা উপসর্গে আরো তিনজন মারা গেছেন। এ নিয়ে গত দুই দিনে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুরে মোহাম্মাদ আলী হাসপাতালের আইসিইউতে মারা যান জেলার শেরপুর উপজেলার খামারকন্দি গ্রামের আঁখি খাতুন (৩০)। এ ছাড়া শুক্রবার ও শনিবার শজিমেক হাসপাতালে উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন বগুড়া সদরের সাবগ্রামের আব্দুর রহমান (৬৫), নওগার পতœীতলা উপজেলার দীপক কুমার (৩২) ও সুভাষ চন্দ্র (৫৩)। উভয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ দিকে বগুড়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৩৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে বগুড়ায় মোট আক্রান্ত ৭ হাজার ৩৭০ জন, মোট সুস্থ ৬ হাজার ৪৩৯ জন।
রাজশাহী বিভাগে মৃত্যু ২৯০
রাজশাহী ব্যুরো জানায়, রাজশাহী বিভাগে করোনাভাইরাসে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৯০ জনে দাঁড়াল। গতকাল রোববার বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা: গোপেন্দ্রনাথ আচার্য সাংবাদিকদের এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বিভাগে এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ ১৭৫ জনের মৃত্যু হয়েছে বগুড়ায়। এ ছাড়া রাজশাহীতে ৪৩ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৪ জন, নওগাঁয় ২০ জন, নাটোরে ৯ জন, জয়পুরহাটে সাতজন, সিরাজগঞ্জে ১৩ জন এবং পাবনায় ৯ জন মারা গেছেন। শনিবার বিভাগে নতুন ৮৪ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। শনিবার বিভাগে সুস্থ হয়েছেন ২১৮ জন করোনা রোগী।
সাটুরিয়ার ইউএনও আক্রান্ত
সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ) সংবাদদাতা জানান, সাটুরিয়ার ইউএনও আশরাফুল আলম করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: মো: মামুন উর রশিদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন। জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ১৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকার ল্যাবে পাঠায়। ওই নমুনা রিপোর্টে রোববার দুপুরে ইউএনওসহ ৪ জনের করোনা পজিটিভ বলে নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য বিভাগ।

 


আরো সংবাদ

শুধু কথা বলার কারণে সংগ্রাম সম্পাদক ও সাংবাদিককে গ্রেফতার করা হয়েছে : ডা: জাফরুল্লাহ দেশে করোনায় আরো ১৪ জনের মৃত্যু খালেদা জিয়াই হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রকৃত বন্ধু : খোরশেদ করোনায় স্থগিত সিএএফ চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেমি-ফাইনাল নিম্নচাপটি আজ সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ উপকূল অতিক্রম করতে পারে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পত্তিতে মহামারীর কামড়!‌ ধনী হয়ে উঠল চীন ও ভারত :‌ রিপোর্ট রাঙ্গাবালীতে স্পিডবোট ডুবির ঘটনায় এখনো নিখোঁজ ৫ ভারত নোংরা : ট্রাম্প বৈরী আবহাওয়ায় সেন্টমার্টিনে আটকা পড়েছেন চার শতাধিক পর্যটক কারাবাখ যুদ্ধে প্রায় ৫ হাজার লোক প্রাণ হারিয়েছে : পুতিন কোয়ারেন্টিনে থেকেও অনুশীলন করতে পারবেন কোহলি-রোহিতরা

সকল