২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০
করোনায় মৃত্যুর দেড় শ’ দিন

দেশে মৃতের সংখ্যা সাড়ে তিন হাজার ছাড়াল

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪২; শনাক্ত ২৯৯৫; সুস্থ ১১১৭
-

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আরো ৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত করোনায় মোট মারা গেছেন তিন হাজার ৫১৩ জন। বাংলাদেশে প্রথম করোনা পজিটিভ রোগী শনাক্ত হন গত ৮ মার্চ। করোনায় প্রথম মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ। সে হিসেবে শনাক্তের ১৫৮তম দিনে এবং প্রথম মৃত্যুর ১৫০তম দিনে করোনায় মৃত্যু সাড়ে তিন হাজার ছাড়িয়ে গেল। গতকাল বুধবার করোনাবিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। করোনাবিষয়ক বুলেটিন বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর প্রথম সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ সংক্রান্ত তথ্য জানানো হয়।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা: নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৯৯৫ জন, এখন পর্যন্ত মোট শনাক্ত হয়েছেন দুই লাখ ৬৬ হাজার ৪৯৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ১১৭ জন, মোট সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ৫৩ হাজার ৮৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৩০ এবং এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৪৬ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৭ দশমিক ৪৪ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুহার এক দশমিক ৩২ শতাংশ।
গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৪২ জনের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ৩৯ জন আর বাড়িতে তিনজন। পুরুষ ৩৩ জন, নারী ৯ জন। এখন পর্যন্ত পুরুষ মারা গেছেন দুই হাজার ৭৮২ জন, শতাংশের হিসাবে ৭৯ দশমিক ১৯ শতাংশ এবং নারী ৭৩১ জন, শতাংশের হিসাবে ২০ দশমিক ৮১ শতাংশ।
গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে বয়স বিবেচনায় রয়েছে ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুইজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে চারজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ২২ জন এবং ৬০ বছরের বেশি বয়সের রয়েছেন ২৪ জন। বিভাগ বিশ্লেষণে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৪২ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ২৭ জন, চট্টগ্রাম ও খুলনা বিভাগের তিনজন করে, বরিশাল বিভাগে একজন, সিলেট বিভাগে চারজন এবং রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে দুইজন করে।
কুমেক হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে ৫ জনের মৃত্যু
কুমিল্লা সংবাদদাতা জানান, কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে পাঁচজন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে চারজন পুরুষ ও একজন নারী। গতকাল বুধবার কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা: মো: মুজিবুর রহমান এসব তথ্য জানান।
মারা যাওয়া পাঁচজনের মধ্যে মিজানুর রহমান (৫০) নামে এক ব্যক্তির করোনা পজিটিভ ছিল। তিনি কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার মনি মিয়ার ছেলে। এ ছাড়া করোনা উপসর্গে মারা যাওয়া ব্যক্তিরা হলেন, কুমিল্লা সদর উপজেলায় বানু রঞ্জন দে (৬০), চান্দিনা উপজেলায় আয়শা বেগম (৫০), নাঙ্গলকোট উপজেলায় নূর আহম্মেদ (৬৫) এবং বুড়িচং উপজেলায় রমিজ মিয়া (৪৫)। উল্লেখ্য, এ হাসপাতালে করোনা ইউনিটে পজিটিভ ও উপসর্গ নিয়ে মোট মারা গেছেন ৩৩৫ জন।
চট্টগ্রামে ১৪৯ জন করোনা পজিটিভ
চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, চট্টগ্রামে আবারো করোনায় মৃত্যুহীন একটি দিন পার হলো। গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৫ জন সুস্থ হলেও নতুনভাবে আক্রান্ত হয়েছেন ১৪৯ জন। ফলে করোনামুক্ত ব্যক্তির সংখ্যা বেড়ে তিন হাজার ৩১০ জনে উন্নীত হওয়ার পাশাপাশি করোনা শনাক্ত এখন ১৫ হাজার ৪৯১ জন। যাদের মধ্যে ১০ হাজার ৮৯৯ জন নগরের এবং চার হাজার ৫৯২ জন উপজেলার বাসিন্দা। অন্যদিকে করোনায় মৃতু্যুর সংখ্যা এখন ২৪৬। এর মধ্যে নগরে ১৭১ এবং উপজেলায় ৭৫ জন। গতকাল বুধবার দুপুরে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা: সেখ ফজলে রাব্বি এসব তথ্য জানান।
নলছিটিতে উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু
ঝালকাঠি সংবাদদাতা জানান, ঝালকাঠির নলছিটিতে করোনা উপসর্গ নিয়ে কবির হোসেন কবির হোসেন (৫০) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে তার মৃত্যু হয়। হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানান, জ্বর, শ্বাসকষ্ট ও বুকে ব্যথা নিয়ে নলছিটি উপজেলার করুয়াকাঠি গ্রামের হারন-অর রশীদের ছেলে কবির হোসেনকে গত মঙ্গলবার রাতে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। বুধবার সকালে তিনি মারা যান। তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠানো হয়েছে।
ঝিনাইদহে উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু
ঝিনাইদহ সংবাদদাতা জানান, ঝিনাইদহে সদর হাসপাতাল আইসোলেশন ওয়ার্ডে করোনা উপসর্গ নিয়ে সন্তোষ (৫২) নামের এক জুয়েলারি ব্যবসায়ী মারা গেছেন। তিনি ঝিনাইদহ শহরের ব্যাপারিপাড়ার বাসিন্দা। তিনি করোনা উপসর্গ নিয়ে গত মঙ্গলবার ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি হন এবং গতকাল বুধবার সকালে মারা যান। অন্য দিকে বুধবার জেলায় নতুন আরো ৬৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত ১২১৩ জন। ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা: সেলিনা বেগম এ তথ্য জানিয়েছেন।
কক্সবাজারের করোনায় মারা গেছেন পর্যটকদের বন্ধু গিয়াসউদ্দিন
কক্সবাজার সংবাদদাতা জানান, কক্সবাজারের পর্যটন শিল্প বিকাশের অন্যতম প্রধান কারিগর, ঐতিহ্যবাহী বিরাম ও রোদেলা রেস্তোরাঁর মালিক এবং সবার প্রিয়মুখ আলহাজ গিয়াস উদ্দিন আহমদ (৫৪) কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা ৫ মিনিটে ঢাকার বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। গত ১৭ জুন তিনি সপরিবারে করোনায় আক্রান্ত হন। পরে ৯ জুলাই তিনিসহ পরিবারের সদস্যরা করোনা নেগেটিভ হন। এরপরও তিনি প্রায় দেড় মাস যাবৎ পোস্ট কোভিড ইনফেকশনে ওই হাসপাতালের আইসিউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। গতকাল বুধবার জোহরের নামাজের পর কক্সবাজার বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্স মাঠে তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয় এবং বইল্যাপাড়া কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।
চুয়াডাঙ্গায় এক নারীর মৃত্যু
চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা জানান, চুয়াডাঙ্গায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুরে সদর হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ডে মারা যান তিনি। মৃত ফারজানা তাসলিমা (৪২) আলমডাঙ্গা শহরের থানাপাড়ার আব্দুল গনির স্ত্রী। এ দিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় এক ইউপি চেয়ারম্যানসহ জেলায় নতুন করে আরো ২২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৮৯০ জন। আর মারা গেলেন ১৫ জন। চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা: শামিম কবির এসব তথ্য জানান।
শেরপুরে করোনায় ব্যবসায়ীর মৃত্যু
শেরপুর সংবাদদাতা জানান, করোনায় আক্রান্ত হয়ে শেরপুরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কর্ণফুলী পেপার হাউজের স্বত্বাধিকারী মো: রেজাউল করিম মুক্তা (৭২) ঢাকার গ্রিন লাইফ হাসপাতালে গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় মারা গেছেন। তাকে গত ৩১ জুলাই ঢাকার ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ দিকে শেরপুরের পুলিশ সুপারের স্ত্রী সন্তানসহ নতুন করে আরো ১৬ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় করোনা শনাক্ত হলেন ৩৫৪ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন মোট ৩০৩ জন। এ পর্যন্ত জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬ জন।
সাতক্ষীরায় করোনায় ও উপসর্গে দু’জনের মৃত্যু
সাতক্ষীরা সংবাদদাতা জানান, সাতক্ষীরায় করোনা আক্রান্ত হয়ে এক যুবলীগ নেতা ও উপসর্গে আরো এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টায় সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার ভাতশালা জাহাপুর গ্রামের মেম্বর আবুল কাশেমের ছেলে বদরুজ্জামান ওরফে কান্ত (৪২) মারা যান। তিনি দেবহাটা উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। অন্য দিকে বুধবার দুপুর ১২টার দিকে করোনা উপসর্গে সদর উপজেলার ফিংড়ি গ্রামের লাল বিহারী ঘোষের ছেলে শংকর কুমার ঘোষের (৬৫) মৃত্যু হয়। উভয়েই সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ (সামেক) হাসপাতালের আইসিইউতে মারা যান। সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা: রফিকুল ইসলাম এসব তথ্য জানান। এ নিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়ে সাতক্ষীরা জেলায় ২৫ জনের মৃত্যু হলো। এ ছাড়া করোনা উপসর্গ নিয়ে গতকাল পর্যন্ত ৬৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে নমুনা পরীক্ষায় ১২ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে।
বগুড়ায় আরো ৫৬ জন করোনায় সংক্রমিত
বগুড়া অফিস জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় বগুড়ায় আরো ৫৬ জন করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন। এদের মধ্যে ৩৪ জন পুরুষ ও ২২ জন নারী। একই সময়ে সুস্থ হয়েছেন ৭৪ জন। এই নিয়ে মোট করোনামুক্ত হলেন ৪ হাজার ২৫৬ জন। গতকাল বুধবার বগুড়া সিভিল সার্জন অফিসের মেডিক্যাল অফিসার ডা: ফারজানুল ইসলাম নির্ঝর এ তথ্য জানান।
চৌগাছায় কলেজশিক্ষকসহ ৯ জন আক্রান্ত
চৌগাছা (যশোর) সংবাদদাতা জানান, যশোরের চৌগাছায় রাজনৈতিক নেতা ও কলেজশিক্ষকসহ আরো ৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। চৌগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ স¤পাদক, পৌর বিএনপির যুগ্ম-আহবায়ক ও চৌগাছা সরকারি কলেজের শিক্ষকসহ ৯ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে উপজেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ১শ ৩ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৭৩ জন। দুইজনের শরীরে মৃত্যুর পর করোনা শনাক্ত হয়। গতকাল বুধবার তাদের করোনা আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হয়। এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: লুৎফুন্নাহার লাকি।
রাজবাড়ীতে ৮৭ জন করোনা আক্রান্ত
বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) সংবাদদাতা জানান, রাজবাড়ীতে নতুন করে আরো ৮৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে রাজবাড়ীতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৭৪৫ জনে। গতকাল বুধবার বিকেলে রাজবাড়ী সিভিল সার্জন ডা: মো: নুরুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, করোনায় আক্রান্ত হয়ে জেলায় এ পর্যন্ত মারা গেছেন ১৬ জন। সুস্থ হয়েছেন ৯৫০ জন, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ২৫ জন, বাকি সবাই বাড়িতে চিকিৎসা গ্রহণ করছেন।
বাজিতপুরে ৩ জন করোনায় আক্রান্ত
কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ) সংবাদদাতা জানান, কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে নতুন করে একজন চিকিৎসকসহ আরো তিনজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে একজন ডাক্তারসহ ২ জন নারী রয়েছেন। গত মঙ্গলবার রাতে বাজিতপুর হাসপাতালের ডা: তাহলিল হোসেন শাওন নয়া দিগন্তকে এ তথ্য জানান।
নতুন শনাক্তরা হলেন, বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের একজন চিকিৎসক, বাজিতপুর পৌরসভার চারবাড়ি মহল্লার ৪৬ বছরের নারী ও পিরিজপুর ইউনিয়নের জহরপুর গ্রামের ৫৫ বছরের একজন নারী। এ নিয়ে উপজেলায় সর্বমোট ১৮১ জন আক্রান্ত হলেন। এদের মধ্যে ২ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন। এ দিকে উপজেলায় এ পর্যন্ত মোট ১৫৯ জন সুস্থ হয়েছেন। বর্তমানে উপজেলায় ২০ জন আক্রান্ত ব্যক্তি চিকিৎসাধীন আছেন।

 


আরো সংবাদ

ক্রিকেট ছেড়ে সাকিব এখন পাইকারি আড়তদার! (১৪৫৬৮)নতুন বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সামনে আনলো ইরান (১২৪৩৪)যে কারণে এই মুহূর্তেই এ সরকারের পতন চান না নুর (১২৩৭২)নর্দমা পরিষ্কার করতে গিয়ে ধরা পড়ল দৈত্যাকার ইঁদুর! (ভিডিও) (১১৮৯৮)এমসি কলেজে গণধর্ষণ : আ’লীগ নেতারা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেছিলেন! (১০১০০)সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে গণধর্ষণ ছাত্রলীগ কর্মীদের (৭৮৮২)এমসি কলেজে ‘গণধর্ষণ’ : ছাত্রদের ছাত্রাবাস ছাড়ার নির্দেশ (৭০৯৯)করোনার দ্বিতীয় ঢেউ : বাড়বে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি (৭০১১)সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে গণধর্ষণ ছাত্রলীগ কর্মীদের (৬৫৭১)ডোপ টেস্টে পজেটিভ ২৬ পুলিশকে চাকরিচ্যুত করা হবে : ডিএমপি কমিশনার (৫৯৯৬)