২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর

২০২১ সালে ২০টি শিল্পপ্রতিষ্ঠান কারখানা নির্মাণ শুরু করবে

১১টি শিল্পপ্রতিষ্ঠান কারখানা নির্মাণের কাজ শুরু করেছে; ১৫ বিলিয়ন ডলারের বেশি বিনিয়োগের প্রস্তাব এসেছে; ১১৫ মিলিয়ন ডলার ঋণ দিচ্ছে ভারত
-

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর ক্রমশ দৃশ্যমান হতে শুরু করেছে। ২০২১ সালে ২০টি শিল্পপ্রতিষ্ঠান কারখানা নির্মাণকাজ শুরু করবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ইকোনমিক জোন অথরিটির (বেজা) নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী। ইতোমধ্যে ১১টি শিল্পপ্রতিষ্ঠান নির্মাণকাজ শুরু করেছে। এদের মধ্যে এশিয়ান পেইন্ট ও বসুন্ধরা গ্রুপ উল্লেখযোগ্য। এশিয়ান পেইন্ট ২০ একর ও বসুন্ধরা ৫০০ একর জমিতে কারখানা নির্মাণকাজ শুরু করেছে।
বেজা সূত্রে জানা গেছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর উন্নয়নে ১৭ হাজার কোটি টাকা ব্যয় করা হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর হবে স্মার্টসিটি। পণ্য আমদানি রফতানির জন্য এখানে একটি সমুদ্রবন্দর নির্মাণ করা হবে। এ ছাড়া সোনাগাজী অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিমানবন্দর নির্মাণ করা হবে। মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে দু’টি শিল্পপ্রতিষ্ঠান নির্মাণের কাজ শেষ হয়েছে। এগুলো যেকোনো সময় প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করবেন। ২৫ কিলোমিটার সড়ক উন্নতীকরণের কাজ প্রায় শেষ। এগুলোর মধ্যে বেজা করছে ১৫ কিলোমিটার ও সড়ক ও জনপথ বিভাগ করছে ১০ কিলোমিটার। ১৮টি কালভার্ট নির্মাণের কাজ শেষ করেছে বেজা। এ ছাড়া ৫১, ৫৭ ও ২৫ মিটারের তিনটি ব্রিজ নির্মাণকাজ শেষ করেছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ। শেষ হয়েছে দাফতরিক অবকাঠামো নির্মাণ ও পাওয়ার প্ল্যান্ট নির্মাণকাজ। যেকোনো শিল্পপ্রতিষ্ঠান চাইলে গ্যাস সরবরাহ করতে পারবে।
আরো জানা গেছে, সাতটি স্লুইস গেটের মধ্যে ৬টির কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ইতোমধ্যে ১১টি শিল্পপ্রতিষ্ঠান তাদের কারখানা নির্মাণকাজ শুরু করেছে। ২০২১ সালে আরো ২০টি শিল্পপ্রতিষ্ঠান কারখানা নির্মাণকাজ শুরু করবে। এ ছাড়া গত ১৯ জুলাই বিশ্বব্যাংকের বোর্ডসভায় ৫০ কোটি ডলারের একটি প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে বিশ্বব্যাংক, যা দিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরে নতুন করে আরো সড়ক নির্মাণসহ বিভিন্ন উন্নয়নকাজে ব্যয় করা হবে।
এ বিষয়ে এসবিজি ইকোনমিক জোনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহবুবুর রহমান রুহেল বলেন, বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেয়ার দিন শেষ। বিশ্বের উন্নত রাষ্ট্রগুলো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরে বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশকে খুঁজছে। কারণ তারা জানে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে তাদের বিনিয়োগ বিফলে যাবে না।
বেজার সহকারী প্রকৌশলী ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান, কোনো শিল্পপ্রতিষ্ঠান চাইলে গ্যাস সরবরাহ করে কারখানায় উৎপাদনকাজ শুরু করতে পারবে। ইতোমধ্যে জিং জিয়াং ও পাওয়ার প্ল্যান্ট গ্যাস সরবরাহ করেছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর এখনো পুরোপুরি দৃশ্যমান। নতুন নতুন বিনিয়োগ আসছে।
বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান (সচিব) পবন চৌধুরী জানান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরে ১৫ বিলিয়ন ডলারের বেশি বিনিয়োগ প্রস্তাব এসেছে। সর্বশেষ চীনের ইয়াবাং গ্রুপএকশত একর জমির ইজারা চুক্তি করেছে। এতে তারা প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে। এ ছাড়া ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের জন্য অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠায় তৃতীয় এলওসির আওতায় ১১৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ দিচ্ছে ভারত।


আরো সংবাদ

নতুন বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সামনে আনলো ইরান (১৮৩৫০)ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ : সেই রাতের ঘটনা আদালতকে জানালেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ (১১১৬৩)ক্রিকেট ছেড়ে সাকিব এখন পাইকারি আড়তদার! (১০৩৩৩)নর্দমা পরিষ্কার করতে গিয়ে ধরা পড়ল দৈত্যাকার ইঁদুর! (ভিডিও) (৮০৪১)করোনার দ্বিতীয় ঢেউ : বাড়বে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি (৭৮৭৫)আজারবাইজানের পাশে দাঁড়ালেন এরদোগান, আর্মেনিয়াকে হুমকি (৬৮৩১)যে কারণে আবারো ভয়াবহ যুদ্ধে জড়ালো আর্মেনিয়া-আজারবাইজান (৬০৩৬)সিসিবিরোধী অব্যাহত বিক্ষোভে উত্তাল মিসর (৫৩৯৭)এবার মথুরা! ঈদগাহ মসজিদ সরিয়ে জমি ফেরানোর দাবিতে আদালতে ‘‌ভগবান শ্রীকৃষ্ণ’‌ (৫২৬৯)ড. কামাল ও আসিফ নজরুল ঢাবি এলাকায় অবা‌ঞ্ছিত : সন‌জিত (৪৭১০)