২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

আক্রান্ত ২ কোটি ছাড়াল

করোনার ভ্যাকসিন আনছে তুরস্ক; সংক্রমণে নাজেহাল ভারতে মৃত্যুও ঊর্ধ্বমুখী; যুক্তরাষ্ট্রে ১৭ দিনে শনাক্ত ১০ লাখ; ব্রাজিলে আক্রান্ত ৩০ লাখ ছাড়াল
-

শক্তিধর দেশগুলোকেও বিপর্যস্ত করে তুলেছে করোনাভাইরাস। বিশ্বের ২১৫টি দেশ ও অঞ্চলে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ৫৩ হাজার ৮১৮। এর মধ্যে মারা গেছেন ৭ লাখ ৩৪ হাজার ৫৫৬ জন।
গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে শনাক্ত হয়েছেন দুই লাখ ১৯ হাজার। এ ছাড়া মারা গেছেন চার হাজার ৭৯৮ জন। তবে করোনা থেকে সুস্থতার হারও কম নয়। ইতোমধ্যেই আক্রান্তদের মধ্যে বেশির ভাগই সুস্থ হয়ে উঠেছে। করোনা থেকে সুস্থতার সংখ্যা ১ কোটি ২৯ লাখ ১৬ হাজার ১৪৩।
আমেরিকার দুই মহাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ায় সংক্রমণ এখনো দ্রুত বাড়ছে। অন্য দিকে ইউরোপকে লণ্ডভণ্ড করে দিয়ে করোনা কিছুটা স্তিমিত হলেও সেখানে আবারো নতুন করে রোগটির প্রাদুর্ভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে। খবর বোস্টন গ্লোব, এংকরএইজ ডেইলি নিউজ, বিজিআর ডটকম, ট্রেন্ড নিউজ এজেন্সি, সিএনএন, দ্য সান, বিবিসি, ডেইলি সাবাহ, আনন্দবাজার পত্রিকা, এনডিটিভি, রয়টার্স, ওয়ার্ল্ডোমিটারস, এপি ও এএফপির।
করোনার ভ্যাকসিন আনছে তুরস্ক : যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের পর বিশ্বের তৃতীয় দেশ হিসেবে তুরস্ক করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরি করেছে। রাষ্ট্র, বেসরকারি খাত ও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বয়ে দেশটি নিজস্ব উপায়ে ভ্যাকসিন তৈরিতে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি সাধন করেছে। রোববার তুরস্কের বৈজ্ঞানিক ও প্রযুক্তিগত গবেষণা কাউন্সিল তোবিতাক এক্সিলেন্স সেন্টারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা জানান দেশটির প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান। তিনি বলেন, তুরস্কের বৈজ্ঞানিক ও প্রযুক্তিগত গবেষণা কাউন্সিলের (তোবিতাক) অর্থায়নে পরিচালিত কোভিড-১৯ তুর্কি প্ল্যাটফর্ম বর্তমানে ৮টি ভিন্ন ভ্যাকসিন এবং ১০টি ভিন্ন ওষুধ প্রয়োগ প্রকল্প নিয়ে কাজ করছে। এরই মধ্যে প্রাণীদের ওপর ভ্যাকসিনের দুই ধরনের প্রয়োগমূলক পরীক্ষা সফলভাবে সম্পন্ন করেছে তুরস্ক। তাদের মধ্যে একটি সম্প্রতি মানুষের ওপর পরীক্ষার নৈতিক অনুমোদন পেয়েছে।
সংক্রমণে নাজেহাল ভারতে মৃত্যুও ঊর্ধ্বমুখী : ভারতে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যু লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছেই। এবার করোনায় এক দিনেই এক হাজার তেরো জনের মৃত্যু দেখল ভারত। গত কয়েক দিন ধরেই ৬০ হাজারের বেশি সংক্রমণ ধরা পড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬২ হাজার ১১৭ জন। ফলে দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ২২ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। এখন পর্যন্ত সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ২২ লাখ ১৫ হাজার ৭৪। ভারতে বর্তমানে করোনার অ্যাকটিভ কেস ৬ লাখ ৩৪ হাজারের কাছাকাছি। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে এক হাজার সাতজনের। ফলে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৪৪ হাজার ৩৮৬ জন। ১৫ লাখ ৩০ হাজারের বেশি মানুষ ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন। দেশটিতে সুস্থতার হার ৬৯ দশমিক ৩৩ শতাংশ।
যুক্তরাষ্ট্রে ১৭ দিনে ১০ লাখ আক্রান্ত : যুক্তরাষ্ট্রে গত ১৭ দিনে ১০ লাখ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে রোববার পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের মোট সংখ্যা দাঁড়াল ৫০ লাখ ৪৪ হাজার ৪৩৫ জন। এ সময়ে মারা গেছেন ১ লাখ ৬২ হাজার ৯১৯ জন। এর মধ্যে সর্বশেষ রোববারে মৃত্যুর সংখ্যা ৫৭৯ জন। জুনের শেষ সপ্তাহের পর আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছে মধ্য-পশ্চিমাঞ্চলীয় স্টেটগুলোতে উদ্বেগজনক হারে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায়। ১৭ জুলাই আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৭৬ হাজার ৪৯১ জন। সারা বিশ্বে আক্রান্তের ২৫ শতাংশ হচ্ছে আমেরিকায়।
ফ্রান্সের উৎপাদন বাণিজ্য ও চাকরিতে আঘাত : নোভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে জারিকৃত লকডাউনের কারণে মারাত্মক নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে ফ্রান্সের সার্বিক অর্থনীতিতে। ফলে ২০২০ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন) নষ্ট হয়েছে দেশটির বেসরকারি খাতের ১ লাখ ১৯ হাজার ৪০০ পূর্ণকালীন চাকরি। এ ছাড়া প্রথম প্রান্তিকে চাকরি হারিয়েছেন আরো অন্তত পাঁচ লাখ মানুষ। একইভাবে লকডাউন নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে উৎপাদন খাত ও বাণিজ্যের ওপরও। দি ইনসি স্ট্যাটিস্টিকস এজেন্সি জানিয়েছে, বছরওয়ারি দ্বিতীয় প্রান্তিকে ফ্রান্সের বেসরকারি খাতে হারানো নিট চাকরির সংখ্যা ৪ লাখ ৮০ হাজার ৮০০। কৃষি ভিন্ন অন্য খাত যেমন শিল্প, নির্মাণ ও বাজারসেবায় কর্মসংস্থানের পতন হয়েছে শূন্য দশমিক ৬ শতাংশ। গত ৫০ বছরের মধ্যে অর্ধবার্ষিক হিসাবে দেশটির কর্মসংস্থানে এত বড় পতন আর হয়নি। ফ্রান্সের শুল্ক বিভাগ জানিয়েছে, মহামারী-পরবর্তী প্রভাবের ফলে দ্বিতীয় প্রান্তিকে দেশটির বাণিজ্য ঘাটতি বেড়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রের কর্মসংস্থানে শ্লথগতি : নোভেল করোনাভাইরাস মহামারী নিয়ন্ত্রণে হিমশিম খাওয়া যুক্তরাষ্ট্রের কর্মসংস্থান গত জুলাইয়ে মারাত্মকভাবে কমেছে। গত মাসে নতুন কর্মসংস্থান হয়েছে ১৮ লাখ, যা গত জুনে রেকর্ড ৪৮ লাখ কর্মসংস্থানের চেয়ে অনেক কম। গত জুলাইয়ে বেকারত্ব হার ১০ দশমিক ২ শতাংশে দাঁড়িয়েছে, যা এপ্রিলের ১৪ দশমিক ৭ শতাংশ বেকারত্ব হার থেকে কিছুটা কমেছে। অক্সফোর্ড ইকোনমিকসের চিফ ইউএস ফিন্যান্সিয়াল ইকোনমিস্ট ক্যাথি বোস্তজানচিক বলেন, শ্রমবাজার পুনরুজ্জীবিত বা চাঙ্গা হতে আরো সময় অপেক্ষা করতে হবে আমাদের। ইকোনমিক পলিসি ইনস্টিটিউটের অর্থনীতিবিদ হেইদি শিয়ারহোজ বলেন, গত জুলাইয়ে ১৮ লাখ নতুন কর্মসংস্থান হয়েছে। কিন্তু আমাদের কর্মসংস্থান খাত মারাত্মক সঙ্কটে রয়েছে। গত মাসে নতুন কর্মসংস্থানে শ্লথগতির ফলে এটি স্পষ্ট হয়ে উঠেছে যে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি গভীর সঙ্কটে রয়েছে।
অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়ায় এক দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু : অস্ট্রেলিয়ায় করোনাভাইরাস মহামারীর শুরু থেকে এ পর্যন্ত এক দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড গড়েছে ভিক্টোরিয়া রাজ্য। রোববার সেখানে মারা গেছেন ১৭ জন। মারা যাওয়ার ১৭ জনের মধ্যে আছে- বয়স ৫০, ৭০, ৮০ ও ৯০ এর কোঠায় থাকা ১১ পুরুষ এবং ৮০ ও ৯০ এর কোঠার ৬ নারী। একই দিনে রাজ্যটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন ৩৯৪ জন। অস্ট্রেলিয়ায় দ্বিতীয়-সর্বোচ্চ জনবহুল রাজ্য ভিক্টোরিয়া দ্বিতীয় ধাপের করোনাভাইরাস মহামারীর উপকেন্দ্র হয়ে উঠেছে। গত সপ্তাহেও এ রাজ্যে দৈনিক গড়ে ৪ শ’ থেকে ৫ শ’ জনের ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। রোববার রেকর্ড ১৭ জনের মৃত্যু নিয়ে ভিক্টোরিয়ায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২১০ জনে। এর চার দিন আগেই অস্ট্রেলিয়াজুড়ে এক দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছিল ১৫ জনের। ভিক্টোরিয়ায় নতুন মৃত্যু সে সংখ্যাকেও ছাড়িয়ে গেল।
অনিরাপদ মাস্ক কেনায় সরকারের বিরুদ্ধে মামলা : কোভিড-১৯ মহামারী রূপ নেয়ার পর স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য কেনা ৫ কোটি মাস্ক নিরাপদ নয় বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সরকার। মাস্ক সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের মালিক সরকারের ‘বোর্ড অব ট্রেড’- এর উপদেষ্টা। বিরোধী দলগুলো সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে জরুরি তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে। মাস্ক কেনার জন্য বিনিয়োগকারী ফার্ম আয়ান্দা ক্যাপিটেলের সাথে এপ্রিলে ২৫ কোটি ২০ লাখ পাউন্ডের চুক্তি সই করে ব্রিটিশ সরকার। কিন্তু মাস্কগুলো নিরাপদ নয় বলে আদালতে মামলা করা হয়েছে সরকারের বিরুদ্ধে। এতে বলা হয়েছে, মাথায় ফাঁকা রাখার বদলে কান দুটো ফাঁকা রাখা হয়েছে এবং এগুলো যথেষ্ট ‘টাইট’ নয়। এ কারণে মাস্কগুলো সরকার বিতরণ করেননি। বৃহস্পতিবার কনজারভেটিভ সরকারের বিরুদ্ধে মামলাটি করেছে দুটি ক্যাম্পেইনিং গ্রুপ ‘দ্য গুড ল প্রজেক্ট’ এবং ‘এভরি ডক্টর’।
ব্রাজিলে আক্রান্ত ৩০ লাখ ছাড়াল : লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে করোনার সংক্রমণ দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়ছে। দেশটিতে ইতোমধ্যেই করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে আরো ২৩ হাজারের বেশি মানুষ। গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৫৭২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা ৩০ লাখ ৩৫ হাজার ৫৮২। এর মধ্যে মারা গেছেন ১ লাখ ১ হাজার ১৪৯ জন। ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২১ লাখ ১৮ হাজার ৪৬০ জন। সেখানে বর্তমানে করোনার অ্যাকটিভ কেস ৮ লাখ ১৫ হাজার ৯৮৬। অপর দিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে ৮ হাজার ৩১৮ জন।
করোনায় কোনো মাস্ক কতটা কার্যকর : এখন বাজারে থাকা মাস্কগুলো করোনা প্রতিরোধে কতটা কার্যকর, তার ওপর একটি গবেষণা করেছেন আমেরিকার ডিউক ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক। তারা বলছেন, বাজারে থাকা সব মাস্ক করোনাপ্রতিরোধী নয়। ‘দ্য জার্নাল সায়েন্স অ্যাডভান্সেস’এ ৭ আগস্ট প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনা প্রতিরোধে সবচেয়ে কার্যকর মাস্ক হলো ভাল্ব ছাড়া এন৯৫ মাস্ক। এই মাস্ক স্বাস্থ্যকর্মীরা ব্যবহার করে। তিন স্তরবিশিষ্ট সার্জিক্যাল মাস্ক ও হাতে তৈরি সুতির মাস্কও করোনা প্রতিরোধে বেশ কাজে দেয়। দৌড়বিদেরা যেসব মাস্ক ব্যবহার করেন, সেসব মাস্ক ড্রপলেট আটকাতে না পারায় করোনা প্রতিরোধে ব্যবহার না করা ভালো। সাধারণ কাপড় বা রুমাল ও নিটেড মাস্কও করোনা প্রতিরোধে তেমন কোনো কাজ করে না। গবেষক দলের সদস্য ডিউক ইউনিভার্সিটির কেমিস্ট ও ফিজিসিস্ট মার্টিন ফিসার বলেছেন, ‘যেনতেন মাস্ক নয়, যেসব মাস্ক কার্যকর, কেবল সেসব মাস্কই পরতে হবে। তিন স্তরবিশিষ্ট সার্জিক্যাল মাস্ক ও ঘরে তৈরি সুতির মাস্ক করোনা প্রতিরোধে অনেক কার্যকর।
সিঙ্গাপুরে ভ্রমণকারীদের পরতে হবে ইলেকট্রনিক ট্যাগ : করোনাভাইরাসের কারণে কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতে আগত ভ্রমণকারীদের ইলেকট্রনিক পর্যবেক্ষণ ট্যাগ পরতে হবে বলে জানিয়েছে সিঙ্গাপুর। বন্ধ হওয়া সীমান্ত ধীরে ধীরে আবার খুলে দেয়ার অংশ হিসেবে এই সিদ্ধান্ত নেয় দেশটি। ১১ আগস্ট থেকে দেশটিতে আগত ভ্রমণকারীদের এই ডিভাইস দেবে সিঙ্গাপুর। দেশটির নাগরিক এবং অন্যান্য দেশের বাসিন্দারাও এই ডিভাইস পাবেন। এ ছাড়া নির্দিষ্ট কিছু দেশের নাগরিক সিঙ্গাপুরে প্রবেশের পর রাষ্ট্রীয় স্থাপনার পরিবর্তে বাড়িতেই কোয়ারেন্টিন পালনের অনুমতি পাবেন। সিঙ্গাপুরে ভ্রমণকারীদের জিপিএস এবং ব্লুটুথ সিগন্যাল ব্যবহারে এই ডিভাইসটি সচল করতে হবে। তারা বাড়িতে পৌঁছানোর পর ডিভাইসের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের নোটিফিকেশন পাবেন, তাদের এই নোটিফিকেশন প্রাপ্তি অবশ্যই স্বীকার করতে হবে।
চীনে নতুন করে আক্রান্ত ৪৯ জন : চীনে নতুন করে ৪৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন। এর আগের দিন ২৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। দেশটির ন্যাশনাল হেলথ কমিশন বলেছে, নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ৩৫ জন বাইরে থেকে সংক্রমিত হয়েছেন। নতুন করে কেউ মারা যাননি। করোনার লক্ষণযুক্ত ৩১ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এর একদিন আগে এ সংখ্যা ছিল ১১।
করোনার নতুন লক্ষণ হেঁচকি : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাব্য নতুন লক্ষণ ‘হেঁচকি’ বলে সতর্ক করেছেন চিকিৎসকরা। আমেরিকান জার্নাল অব ইমারজেন্সি মেডিসিনে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। আক্রান্ত একজনের করোনা শনাক্ত হওয়ার আগে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার প্রধান সমস্যা ছিল একটানা চার দিন হেঁচকি। শিকাগোর কুক কাউন্টি হেলথ হাসপাতালের চিকিৎসকরা বলেছেন, আমাদের জানা মতে, করোনারোগীর একটানা হেঁচকি লেগে থাকার ঘটনা এটাই প্রথম। হেঁচকিতে আক্রান্ত ব্যক্তিকে হেলায় ছেড়ে দেয়া উচিত নয়। যদি কেউ ২৪ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে হেঁচকিতে ভোগেন তাহলে দ্রুত চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করতে হবে।
ব্রিটেনের যেসব জায়গায় মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক : ব্রিটেনের প্রায় সব জায়গায় ফেইস মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এখন থেকে পাবলিক ট্রান্সপোর্ট, সিনেমা হল, বিংগ হল, স্কুল, শপিং সেন্টার, শপ, পোস্ট অফিস, সুপারমার্কেট, ব্যাংক, টেইকওয়ে, থিয়েটার, কনর্সাট হল, মিউজিয়াম, প্রার্থনাস্থল, চুল কাটার সেলুন, গ্যালারিস, অ্যাকুরিয়ামস, ইনডোর চিড়িয়াখানা, ভিজিটর ফার্মস, ইনডোর ট্যুরিস্ট, হ্যারিটেজ অথবা কার্লচারাল সাইট, ফিউনারেল ডাইরেক্টরস, প্রফেশনালস, লিগ্যাল অথবা ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস বিল্ডিংস, নেই, বিউটি, বারবার, ম্যাসেস পার্লাস, হোটেলস, লাইব্রেরিস, কমিউনিটি সেন্টারস, স্যোশাল ক্লাব, টেটু, ইনডোর বিনোদন কেন্দ্র, স্টোরেজ অ্যান্ড ডিসট্রিবিউশন ফ্যাসিলিটিস, ভ্যাটেরিনারি সার্ভিসেস, অকশন হাউজ ইত্যাদি জায়গায় মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

 


আরো সংবাদ

রংপুরে শতাব্দীর সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড সৌদি আরবকে ফ্লাইট সংখ্যা বাড়ানোর অনুরোধ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এক ডোজেই কাজ! প্রাথমিক ট্রায়ালে সফল জনসনের টিকা সুনামগঞ্জে টানা বৃষ্টিতে ডুবেছে জমি, দুশ্চিন্তায় আমন চাষীরা আওয়ামী লীগ দেশে বিপথগামী ও পৈশাচিক সমাজ তৈরি করেছে : রিজভী ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক : মার্কিন প্রস্তাবে রাজি নয় সুদান এমসি কলেজে গণধর্ষণ : আদালতে ওই রাতের বর্ণনা দিয়েছেন গৃহবধূ কাশ্মির সীমান্তে পাক-ভারত উত্তেজনা; নিহত ১ ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চায় ছাত্রলীগ আইনজীবী ইউনুছ আলী ২ সপ্তাহ পেশা থেকে বরখাস্ত আজারবাইজানের পাশে দাঁড়ালেন এরদোগান, আর্মেনিয়াকে হুমকি

সকল

ক্রিকেট ছেড়ে সাকিব এখন পাইকারি আড়তদার! (১৪৫৬৮)নতুন বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সামনে আনলো ইরান (১২৪৩৪)যে কারণে এই মুহূর্তেই এ সরকারের পতন চান না নুর (১২৩৭২)নর্দমা পরিষ্কার করতে গিয়ে ধরা পড়ল দৈত্যাকার ইঁদুর! (ভিডিও) (১১৮৯৮)এমসি কলেজে গণধর্ষণ : আ’লীগ নেতারা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেছিলেন! (১০১০০)সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে গণধর্ষণ ছাত্রলীগ কর্মীদের (৭৮৮২)এমসি কলেজে ‘গণধর্ষণ’ : ছাত্রদের ছাত্রাবাস ছাড়ার নির্দেশ (৭০৯৯)করোনার দ্বিতীয় ঢেউ : বাড়বে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি (৭০১১)সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে গণধর্ষণ ছাত্রলীগ কর্মীদের (৬৫৭১)ডোপ টেস্টে পজেটিভ ২৬ পুলিশকে চাকরিচ্যুত করা হবে : ডিএমপি কমিশনার (৫৯৯৬)