২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
চীনের সাথে উত্তেজনা

ভারতীয় সেনাদের যুদ্ধের প্রস্তুতির নির্দেশ

-

চীন-ভারতের মধ্যকার উত্তেজনা যেন থামছেই না। মনে হচ্ছে ভারতীয় সেনাদের ধৈর্যের পরীক্ষা নিচ্ছে চীন। প্যাংগং লেকের ফিঙ্গার পয়েন্ট এবং দেপসাং উপত্যকা থেকে সেনা সরাতে রাজি নয় চীন। সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে দফায় দফায় বৈঠকেও দু’দেশের মধ্যে বরফ গলেনি। ভারতের দাবি, তাদের ভূখণ্ডে ঘাঁটি গেড়ে বসে আছে চীনের সেনারা। চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির এই আচরণে ক্ষুব্ধ ভারত। সে কারণেই এবার ভারতীয় সেনা কমান্ডারদের ‘যুদ্ধের প্রস্তুতি’ নিয়ে রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
প্রায় তিন মাস ধরে ভারত-চীনের মধ্যে উত্তেজনা চলছে। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে ভারতীয় ভূখণ্ডে ঘাঁটি গেড়েছে চীন। বারবার তাদের সাথে আলোচনা করেও এ বিষয়ে এখনো কোনো সমাধানে পৌঁছানো সম্ভব হয়নি। গালওয়ান, হটস্প্রিং, ফিঙ্গার পয়েন্ট ফোর থেকে সেনা সরালেও ভারতীয় ভূখণ্ডের প্যাংগং, দেপসাংয়ে এখনো ঘাঁটি গেড়ে বসে আছে চীনা সেনারা। সে কারণেই ভারতীয় সেনাদেরকে সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে।
প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর পরিস্থিতি সরেজমিন খতিয়ে দেখতে গত কয়েক দিনে সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে লাদাখ থেকে আসাম পর্যন্ত প্রতিটি এলাকায় গেছেন। সেখানে কর্তব্যরত সেনা কমান্ডারদের সাথে তিনি বৈঠক করেছেন। সিকিম, অরুণাচলে চীনের সাথে সীমান্ত এলাকার পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেছেন। সব ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলায় ভারতীয় সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। নয়া দিল্লির দাবি, দেপসাঙের বিপরীতে প্রায় ১৫ হাজার সেনা, ট্যাঙ্ক, কামান মোতায়েন করেছে চীন। লাদাখের উত্তরে অবস্থিত দেপসাঙের রণ-কৌশলগত গুরুত্ব রয়েছে।


আরো সংবাদ