০৮ আগস্ট ২০২০

দেশে করোনায় সুস্থ লাখের কাছাকাছি

-
24tkt

বাংলাদেশে করোনায় শনাক্তদের মধ্যে অর্ধেকের বেশি সুস্থ হয়েছেন। সংখ্যার দিক দিয়ে সেটি লাখের কাছাকাছি। দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন চার হাজার ৭০৩ জন। এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৯৮ হাজার ৩১৭ জন। সুস্থ হওয়ার ধারাবাহিকতায় আজ সুস্থ হওয়া ব্যক্তিদের যোগ করলে তা লাখ পেরিয়ে যাবে। অন্যদিকে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল দুই হাজার ৩৯১ জনে। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন তিন হাজার ৯৯ জন। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত হলেন এক লাখ ৮৬ হাজার ৮৯৪ জন।
কোভিড-১৯ সম্পর্কিত নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে গতকাল সোমবার এসব তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা। তার দেয়া তথ্যানুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ৩৫৮টি, আগের নমুনাসহ পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ৪২৩টি। এখন পর্যন্ত ৯ লাখ ৫২ হাজার ৯৪৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন তিন হাজার ৯৯ জন।
আর পরীক্ষা বিবেচনায় ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২৪ দশমিক ৯৫ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫২ দশমিক ৬১ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ২৮ শতাংশ।
স্বাস্থ্য বুলেটিনে নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ৩০ জন পুরুষ এবং ৯ জন নারী। এখন পর্যন্ত মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে পুরুষ এক হাজার ৮৯০ জন এবং নারী ৫০১ জন।
২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে একজন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৩ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ছয়জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিনজন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে একজন এবং ০ থেকে ১০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন। আবার মারা যাওয়া ব্যক্তিদের বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ঢাকা বিভাগে ১৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে পাঁচজন, ময়মনসিংহ বিভাগে একজন, রংপুর বিভাগে দুইজন, সিলেট বিভাগে দুইজন, খুলনা বিভাগে সাতজন এবং বরিশাল বিভাগে তিনজন রয়েছেন। এদের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ৩৪ জন এবং বাসায় মৃত্যুবরণ করেছেন পাঁচজন।
কিশোরগঞ্জে ২৪ ঘণ্টায় ৪ জনের মৃত্যু
কিশোরগঞ্জ সংবাদদাতা জানান, কিশোরগঞ্জে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আরো দুইজন। এ নিয়ে জেলায় ‘কোভিড-১৯’ রোগী হিসেবে মারা গেছেন ৩১ জন। গতকাল সোমবার দুপুরে নয়াদিগন্তকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন জেলার সিভিল সার্জন ডা: মো: মুজিবুর রহমান।
জানা গেছে, রোববার সকাল ৯টায় কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান কুলিয়ারচর উপজেলার বড়ছয়সূতী গ্রামের মৃত রইসউদ্দিনের ছেলে শাহাবউদ্দিন (৫৫)। গত বুধবার তার করোনা শনাক্ত হয়। করোনা শনাক্ত হয়ে মারা যাওয়া অন্য ব্যক্তি হচ্ছেন করিমগঞ্জ উপজেলার জয়কা ইউনিয়নের খোঁজারগাঁও গ্রামের মৃত নাজিমউদ্দিনের ছেলে আবদুল মান্নান (৬০)। রোববার রাত ৮টার দিকে বাড়িতে আইসোলেশনে থাকা অবস্থায় তিনি মারা যান। সপ্তাহখানেক আগে তার করোনা শনাক্ত হয়।
করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া দুইজন হলেন- সদর উপজেলার ঝকিরজোরা কড়িয়াইল গ্রামের মো: তাজুল ইসলাম (৬৫) ও শহরের ফায়ার সার্ভিস এলাকার বাসিন্দা অনিল চক্রবর্তী (৬৯)। প্রচ- জ্বর, শুকনো কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তারা ভর্তি হয়েছিলেন। গত রোববার রাতে তারা মারা যান।
উপসর্গ নিয়ে কুমেক হাসপাতালে তিনজনের মৃত্যু
কুমিল্লা সংবাদদাতা জানান, কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসের লক্ষণ-উপসর্গ নিয়ে এক নারীসহ আরো তিনজন মারা গেছে। হাসপাতালের করোনা ইউনিটের আইসিইউতে একজন, করোনা ওয়ার্ডে একজন এবং আইসোলেশনে একজন মারা যান। করোনা ইউনিটে পজিটিভ ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ১৯৮ জন। এদের মধ্যে করোনা পজিটিভ ৬৮ জন ও করোনা উপসর্গে ১৩০ জন। গতকাল সোমবার কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সহকারী সার্জন ডা: মোয়াজ্জেম এসব তথ্য জানান।
তিনি জানান, উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে আছেন আইসোলেশনে কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার আলী আহম্মেদের ছেলে শের খান (৬০), আইসিইউতে কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার গোবিন্দপুর এলাকার জাহাঙ্গীরের ছেলে সুজন (৩১) এবং করোনা ওয়ার্ডে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা এলাকার মাহেরপুর গ্রামের ফজলুর রহমানের মেয়ে রোকসানা বেগম (৭০)।
ঝালকাঠিতে উপসর্গ নিয়ে পল্লী চিকিৎসকসহ দুইজনের মৃত্যু
ঝালকাঠি সংবাদদাতা জানান, ঝালকাঠির নলছিটিতে করোনা উপসর্গ নিয়ে পল্লী চিকিৎসকসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। গত রোববার রাতে তাদের মৃতু্যু হয়।
জানা গেছে, গত পাঁচদিন ধরে জ্বর, বুকে ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে নলছিটি শহরতলীর খোঁজাখালী গ্রামের বাড়িতে বসেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন পল্লী চিকিৎসক জয়নাল আবেদীন (৬০)। রোববার সন্ধ্যায় তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে রাতে বাড়িতেই মারা যান। এদিকে জ্বর, বুকে ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে গত ৫ জুলাই বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হন নলছিটির কপালবেড়া গ্রামের সৈলাবুনিয়া মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক আবদুল লতিফ শিকদার (৭০)। গত রোববার রাতে তার মৃত্যু হয়। শাবাব ফাউন্ডেশন নামে একটি সেচ্ছাসেবী সংগঠন তাদের নামাজে জানাজা ও লাশ দাফন করে বলে জানিয়েছেন মুফতি হানযালা নোমানী।
টাঙ্গাইলে করোনায় আরেকজনের মৃত্যু
টাঙ্গাইল সংবাদদাতা জানান, টাঙ্গাইলে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর তালিকা। সব মিলিয়ে জেলায় ভয়াবহ আকার ধারণ করছে করোনা পরিস্থিতি। জেলার মির্জাপুরে নতুন করে আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মৃত্যু হলো ২১ জনের। নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫০ জন। সোমবার পর্যন্ত জেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৯৬৫ জনে। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৫৩৫ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন ৪০৯ জন।
টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা: মোহাম্মদ ওয়াহীদুজ্জামান জানান, নতুন আক্রান্তদের মধ্যে মির্জাপুরের পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের অতিরিক্ত পুুুলিশ সুপার, তিনজন কনস্টেবল ও দুইজন প্রশিক্ষণার্থী রয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট ৫২ জন পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হলেন।
নোয়াখালীতে একজনের মৃত্যু
নোয়াখালী সংবাদদাতা জানান, নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায় করোনায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া এক দিনে আরো ২৭ জনের করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে এবং সুস্থ হয়েছে ৬১ জন। এ নিয়ে নোয়াখালী জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দুই হাজার ৫৪১ জন, মৃত্যু হয়েছে ৫৫ জনের এবং সুস্থ হয়েছেন ১৫৪১ জন। গতকাল সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা: মাসুম ইফতেখার।
করোনা উপসর্গে রাজশাহী বিসিএসআইআর’র মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তার মৃত্যু
রাজশাহী ব্যুরো জানায়, করোনার উপসর্গ নিয়ে বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদের (বিসিএসআইআর) রাজশাহীর মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তার মৃত্যু হয়েছে। তার নাম আসাদুল ইসলাম (৫৫)। রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরায় কৃষকের মৃত্যু : এমপি ও পত্রিকার সম্পাদকসহ ৬ জন পজিটিভ
সাতক্ষীরা সংবাদদাতা জানান, করোনার উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। গত সোমবার ভোর রাতে সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আকতার হোসেন (৫২) নামের ওই কৃষক মারা যান। জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে রোববার দুপুরে সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি হন ওই কৃষক। এরপর সোমবার ভোর রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ নিয়ে সাতক্ষীরায় করোনার উপসর্গ নিয়ে এ পর্যন্ত ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ছয়টি রিপোর্ট পজিটিভ ছিল বলে জানিয়েছেন সাতক্ষীরার স্বাস্থ্য বিভাগ।
অপরদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সাতক্ষীরা-২ আসনের এমপি মীর মোস্তাক আহমেদ রবি ও স্থানীয় একটি দৈনিক পত্রিকার সম্পাদকসহ নতুন করে আরো ছয়জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। সোমবার বেলা ১১টার দিকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব থেকে পাঠানো এক রিপোর্টের ভিত্তিতে এ তথ্য জানায় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো মোট ৩৮৮ জন।
এমপির পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, সম্প্রতি উপসর্গ দেখা দিলে সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবির নমুনা সংগ্রহ করে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। তার রিপোর্ট পজিটিভ বলে রোববার সন্ধ্যায় সাতক্ষীরা স্বাস্থ্য বিভাগ বিষয়টি নিশ্চিত করে।
শরণখোলায় করোনায় প্রথম মৃত্যু
শরণখোলা (বাগেরহাট) সংবাদদাতা জানান, শরণখোলায় প্রথম করোনায় আক্রান্ত হয়ে শ্রমিক লীগ নেতা আবুল কাসেম খলিফার মৃত্যু হয়েছে। ইউপি সদস্য জালাল আহমেদ রুমী জানান, গতকাল সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার উত্তর কদমতলা গ্রামে আ: রহিম খলিফার ছেলে শ্রমিকলীগ নেতা আবুল কাসেম খলিফা (৫৫) নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে থাকাবস্থায় মারা যান। গত রোববার তিনি করোনা পজিটিভ হন। এ ছাড়া দীর্ঘদিন ধরে তিনি ডায়াবেটিস ও টাইফয়েট জ্বরে ভুগছিলেন।
নেত্রকোনায় বিএনপি নেতা আক্রান্ত
নেত্রকোনা সংবাদদাতা জানান, নেত্রকোনা জেলা বিএনপি আহ্বায়ক ও বিশিষ্ট অর্থোপেডিক অধ্যাপক ডা: আনোয়ারুল হক করেনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সোমবার বিকেলে ডা: আনোয়ারের ব্যক্তিগত সহকারী আজিজুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে নয়া দিগন্তকে জানান, তিনি এখন আইসোলেশনে রয়েছেন। গত বুধবার ডা: আনোরুল হক নিজ চেম্বারে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে অসুস্থ বোধ করলে তার শরীর থেকে নমুনা নিয়ে সংশ্লিষ্ট স্পেশালাইজড হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। গত শুক্রবার পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষার পর তার কোভিড ১৯ শনাক্ত হয়।
রাজশাহী বিভাগে নতুন ১৯৪ জনের করোনা শনাক্ত
রাজশাহী ব্যুরো জানান, রাজশাহী বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছেন ১৯৪ জন নতুন কোভিড-১৯ রোগী। আর সুস্থ হয়েছেন ১১৪ জন। গতকাল সোমবার দুপুরে রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা: গোপেন্দ্র নাথ আচার্য্য সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, বিভাগে এ পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা ১১৪ জন। এর মধ্যে ৭০ জনের মৃত্যু হয়েছে বগুড়ায়। এ ছাড়া রাজশাহীতে ১৫, নওগাঁয় ১০, নাটোরে এক এবং সিরাজগঞ্জ ও পাবনায় ৯ জন করে মারা গেছেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও জয়পুরহাটে এখনো কারো মৃত্যু হয়নি।
এদিকে, এক দিনে নতুন করে ৮৪ জন শনাক্ত হওয়ায় রাজশাহীতে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে এক হাজার ৬৮৫ জনে দাঁড়াল। এর মধ্যে এক হাজার ২৬৬ জনই নগরীর বাসিন্দা। এ পর্যন্ত করোনায় ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৩২১ জন।
কুমিল্লায় করোনায় নতুন আক্রান্ত ৯১
কুমিল্লা সংবাদদাতা জানান, নাঙ্গলকোটে ২৬ জনসহ গতকাল সোমবার কুমিল্লায় নতুন করে ৯১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। জেলায় সর্বমোট করোনা শনাক্ত হয়েছে চার হাজার ৫৬৫ জনের। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছে দুই হাজার ৫৩৯ জন। এ পর্যন্ত মোট মারা গেছে ১২২ জন। কুমিল্লার সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।
পাইকগাছায় নিয়ন্ত্রণহীন করোনা
পাইকগাছা (খুলনা) সংবাদদাতা জানান, প্রশাসনের সমন্বয়হীনতা এবং জনগণের অসচেতনতায় খুুলনার পাইকগাছায় করোনা স্বাস্থ্য সচেতনতা কার্যক্রম চরমভাবে ভেঙে পড়েছে। এখানকার শতকরা ৮০ ভাগ মানুষই মাস্কের ব্যবহারসহ সরকারি স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মানছে না। হাটবাজার, দোকানপাটসহ সর্বত্র আগের মতো খোলামেলা স্বাভাবিক অবস্থা বিরাজ করছে। চায়ের দোকানগুলোতে রীতিমতো নির্বাচনকালীন ভিড় পরিলক্ষিত হচ্ছে। ফলে ১ জুন প্রথম করোনা আক্রান্তের পর মাত্র ছয় সপ্তাহে সাবেক সংসদ সদস্য, একাধিক ইউপি চেয়ারম্যান, পুলিশ কর্মকর্তা, ডাক্তার, সাংবাদিক, শিক্ষকসহ ৭৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ২৯ জন আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়েছেন।
জামালপুরে করোনায় আক্রান্ত ১৬
জামালপুর সংবাদদাতা জানান, জামালপুর জেলা সদরসহ সাতটি উপজেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিনই বৃদ্ধি পাচ্ছে। সর্বশেষ প্রতিবেদনে জামালপুরে নতুন করে আরো ১৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৭২৮ জন। অন্যদিকে মোট সুস্থ হয়েছে ৪৪১ জন এবং করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১১ জনের। গতকাল সোমবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে জামালপুর স্বাস্থ্য বিভাগ। এদিকে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে সদর উপজেলায় ২৯৩ জন। দ্বিতীয় অবস্থানে ইসলামপুর উপজেলায় ১২০ জন।
চট্টগ্রামে আক্রান্ত সাড়ে ১১ হাজার ছাড়াল
চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, চট্টগ্রামে গত এক দিনে ৫৯৭ নমুনায় ১০৭ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে চট্টগ্রামে ১১ হাজার ৫৯৭ জনের মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়েছে। চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন ২১৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৪২ জনসহ এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৩৯৭ জন। গতকাল সোমবার সকালে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।
সূত্র জানায়, গত রোববার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১৪১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩০ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। বিআইটিআইডিতে ১৪২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৫ জনের দেহে করোনার জীবাণু পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে ৯৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩৪ জনের করোনা মিলেছে। এ ছাড়া কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ২১ জনের নমুনা পরীক্ষায় একজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে চট্টগ্রামের ১৯৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নগরের ২৫ জন ও উপজেলার দুইজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।
নবাবগঞ্জে করোনা শনাক্ত ১১ জন
দোহার (ঢাকা) সংবাদদাতা জানায়, ঢাকার নবাবগঞ্জে আরো ১১ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে উপজেলায় আক্রান্তর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৪৬ জনে। নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা: হরগোবিন্দ সরকার অনুপ আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
জানা গেছে, ১০ জুলাই উপজেলার বিভিন্ন এলাকার করোনা উপসর্গ নিয়ে ২৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআরে পাঠানো হলে সোমবার সকালে ১১ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়। আক্রান্তদের বাড়িতে রেখেই প্রয়োজনীয় চিকিৎসার দেয়া হবে বলে জানান হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
ঝিনাইদহে নতুন আরো ৩৭ জনের করোনা শনাক্ত
ঝিনাইদহ সংবাদদাতা জানান, ঝিনাইদহে নতুন আরো ৩৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এক দিনে এটাই জেলায় সর্বোচ্চ। গতকাল সোমবার কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাব থেকে আসা ৮৭ ফলাফলের মধ্যে ৩৭ জনের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৪৫২ জনে। ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা: সেলিনা বেগম এসব তথ্য জানিয়েছেন।
কটিয়াদীতে ১৩ জন করোনামুক্ত
কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ) সংবাদদাতা জানান, কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে দুইজন স্বাস্থ্যকর্মীসহ ১৩ জন করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন। গতকাল সোমবার বিকেলে কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এদিকে নতুন করে কটিয়াদী পৌরসভায় ৪২ বছরের এক পুরুষ করোনা পজিটিভ হয়েছেন। এ নিয়ে উপজেলায় মোট ১০৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে একজন মারা গেছেন।

 


আরো সংবাদ

মুজিব বর্ষেই বঙ্গবন্ধুর এক ঘাতককে দেশে ফিরিয়ে আনা সম্ভব হবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ১২ জেলায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি বাংলাদেশে করোনায় আরো ৩২ জনের মৃত্যু ওসি প্রদীপের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন চান্দিনার ওসি ফয়সল ফরিদপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৬০০ পরিবারে ত্রাণ দিলেন বিএনপি নেতা কামাল ইউসুফ বাবু যেভাবে বড়দের সম্মান দেখাতো সেটা দৃষ্টান্ত : খায়রুল কবির খোকন অপহরণের ৩২ বছর পর খুজেঁ পেলেন ছেলেকে ভোগাই নদীর ভাঙ্গনের কবলে আড়াইআনি ও চকপড়া ভারতে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪২ হাজার ছাড়ালো চুয়াডাঙ্গায় বাসের ধাক্কায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬ ‘বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সহযোদ্ধা ছিলেন ফজিলাতুন্নেছা’

সকল

প্রদীপের অপকর্ম জেনে যাওয়ায় জীবন দিতে হয়েছে সিনহাকে? (২৯৮২৮)মেজর সিনহা হত্যা : ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলীসহ ৭ পুলিশ বরখাস্ত (৮৪৬৩)পাকিস্তানের বোলিং তোপে লন্ডভন্ড ইংল্যান্ড (৬৬৫৪)জাহাজ ভর্তি ভয়াবহ বিস্ফোরক বৈরুতে পৌঁছল যেভাবে (৫৮২৮)অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ নিয়ে কড়া বিবৃতি পাকিস্তানের, যা বলছে ভারত (৫৭৬৬)আয়া সোফিয়ায় জুমার নমাজ শেষে যা বললেন এরদোগান (৫৭১৩)নতুন রাজনৈতিক দলের ঘোষণা দিলেন মাহাথির (৫৪৫৩)এসএসসির স্কোরের ভিত্তিতে কলেজে ভর্তি হবে শিক্ষার্থীরা (৫০৯৯)কানাডায়ও ঘাতক বাহিনী পাঠিয়েছিলেন মোহাম্মাদ বিন সালমান! (৫০৭৩)সাগরের ইলিশে সয়লাব খুলনার বাজার (৪৯৮৫)