১৪ আগস্ট ২০২০

করোনায় মৃত্যু ছাড়াল ২২০০

এক দিনে মৃত্যু ৪১, শনাক্ত ৩,৩৬০; ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের চেয়ে সুস্থতার হার বেশি; শনাক্ত পৌনে দুই লাখ
-
24tkt

এক দিনে আরো তিন হাজার ৩৬০ জনের মধ্যে নতুন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ায় দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক লাখ ৭৫ হাজার ৪৯৪ জনে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে, তাতে বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে দুই হাজার ২৩৮ জন।
আইইডিসিআরের হিসাবে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরো তিন হাজার ৭০৬ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন গত ২৪ ঘণ্টায়। তাতে সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল মোট ৮৪ হাজার ৫৪৪ জনে।
গতকাল বৃহস্পতিবার অনলাইনে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত বুলেটিনে অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির এই সবশেষ তথ্য তুলে ধরেন।
বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল ৮ মার্চ। তা দেড় লাখ পেরিয়ে যায় গত ২ জুলাই। সেদিন চার হাজার ১৯ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ। আর ১৮ মার্চ বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে প্রথম মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদফতর। ৫ জুলাই তা দুই হাজার ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৩০ জুন এক দিনেই ৬৪ জনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ মৃত্যু। নাসিমা সুলতানা বলেন, গত এক দিনে যারা মারা গেছেন, তাদের মধ্যে ২৯ জন পুরুষ এবং ১২ জন নারী। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩৮ জনের এবং বাড়িতে থাকা অবস্থায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে ১২ জন ঢাকা বিভাগের, ১৪ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, দুইজন রাজশাহী বিভাগের, দুইজন সিলেট বিভাগের, ছয়জন খুলনা বিভাগের, দুইজন ময়মনসিংহ বিভাগের এবং তিনজন রংপুর বিভাগের।
এই ৪১ জনের মধ্যে একজনের বয়স ১০ বছরের নিচে এবং দুইজনের বয়স ৮০ বছরের বেশি ছিল। এ ছাড়া ৯ জনের বয়স ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে, ১২ জনের বয়স ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে, ১১ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, তিনজনের বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে, দুইজনের বয়স ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে, একজনের বয়স ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ছিল।
বুলেটিনে জানানো হয়, দেশের ৭৬টি ল্যাবে গত এক দিনে ১৫ হাজার ৬৩২টি নমুনা পরীক্ষা হয়। এ পর্যন্ত দেশে পরীক্ষা হয়েছে ৯ লাখ চার হাজার ৭৮৪টি নমুনা। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৪০ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪৮ দশমিক ১৪ শতাংশ, মৃত্যু হার এক দশমিক ২৮ শতাংশ।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ৮৭৯ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৭ হাজার ৬৭ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৬৬৮ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ১৬ হাজার ৯৫৫ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ৩৪ হাজার ২২ জনকে।
তিনি আরো জানান গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিন মিলে কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে দুই হাজার ২৮২ জনকে। এখন পর্যন্ত তিন লাখ ৮৬ হাজার ৫৮১ জনকে কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড়া পেয়েছেন দুই হাজার ১৭৪ জন। এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন তিন লাখ ২৩ হাজার ৪৭৫ জন। বর্তমানে মোট কোয়ারেন্টিনে আছেন ৬৩ হাজার ১০৬ জন।
চট্টগ্রামে আরো ছয়জনের মৃত্যু, শনাক্ত ছাড়াল ১১ হাজার
চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, চট্টগ্রামে নতুন করে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ২৫৯ জনের দেহে। আক্রান্তদের মধ্যে ১৭৬ জন নগরের ও ৮৩ জন বিভিন্ন উপজেলার। একই সময়ে নগরে পাঁচজন ও উপজেলায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সকালে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা: সেখ ফজলে রাব্বি বিষয়টি নয়া দিগন্তকে নিশ্চিত করে জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ২৬৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নতুন আক্রান্ত হয়েছে ২৫৯ জন। এদের মধ্যে নগরে ১৭৬ জন এবং উপজেলায় ৮৩ জন। চট্টগ্রামের ছয়টি ল্যাব মোট এক হাজার ২৬৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ল্যাবে ১৭০টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩৯ জন করোনা পজিটিভ রোগী শনাক্ত হয়। তার নগরীর ১১ জন জেলার বিভিন্ন উপজেলার ২৮ জন পজিটিভ।
বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) ২৭৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে শনাক্ত হয় আরো ৩৮ জন। তার নগরীর ১৪ জন জেলার বিভিন্ন উপজেলার ২৪ জন পজিটিভ। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ২৩৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪২ জন করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। তার মধ্যে নগরীর ৩৬ জন জেলার বিভিন্ন উপজেলার ছয়জন পজিটিভ। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে (সিভাসু) ২০৬টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাস পাওয়া যায়। নগরীর ২১ জন জেলার বিভিন্ন উপজেলার সাতজন পজিটিভ। এ ছাড়া বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে ১৩২টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩৮ জন পজিটিভ। শেভরণ ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ২৪৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ৭৪ জন শনাক্ত হয়। নগরীর ৬৩ জন জেলার বিভিন্ন উপজেলার ১১ জন পজিটিভ। এ দিকে করোনা আক্রান্ত হয়ে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। তার মধ্যে নগরীর পাঁচজন ও উপজেলার একজন। করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৮ জন। তার মধ্যে নগরীর ১২ জন ও জেলার বিভিন্ন উপজেলা ছয়জন। কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে বুধবার চট্টগ্রামের কারো নমুনা পরীক্ষা হয়নি। চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত ১১ হাজার ৩১ জনের মধ্যে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। করোনায় মারা গেছেন ২১০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৮ জনসহ এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৩২৪ জন।
রাজশাহী বিভাগে নতুন শনাক্ত ১৫৯ জন
রাজশাহী ব্যুরো জানায়, রাজশাহী বিভাগে নতুন আরো ১৫৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। গত বুধবার নমুনা পরীক্ষায় তারা শনাক্ত হন। এ দিন সুস্থ হয়েছেন ১৯২ জন কোভিড-১৯ রোগী। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা: গোপেন্দ্রনাথ আচার্য্য সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নতুন শনাক্ত হওয়া ১৫৯ জনের মধ্যে ৭৭ জনই রাজশাহীর বাসিন্দা। এর বাইরে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ছয়, নাটোরে এক, নওগাঁয় এক, বগুড়ায় ৫০ এবং সিরাজগঞ্জে ২৪ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন।
এ দিন বিভাগের বগুড়া ও রাজশাহী জেলায় একজন করে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। বিভাগে এখন মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০৫ জন। এর মধ্যে ৬৫ জনের মৃত্যু হয়েছে বগুড়ায়। এ ছাড়া রাজশাহীতে ১৩, নওগাঁয় আট, নাটোরে এক এবং সিরাজগঞ্জ ও পাবনায় ৯ জন করে মারা গেছেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও জয়পুরহাটে এখনো কারো মৃত্যু হয়নি। রাজশাহী বিভাগে এ পর্যন্ত আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা সাত হাজার ৭৮৬ জন। এর মধ্যে বগুড়ায় সর্বোচ্চ তিন হাজার ৫৫১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যা রাজশাহীতে এক হাজার ৪১৫ জন। এ ছাড়া চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১২২ জন, নওগাঁয় ৫৮৭ জন, নাটোরে ২৫৭ জন, জয়পুরহাটে ৫১১ জন, সিরাজগঞ্জে ৭৪৪ জন এবং পাবনায় ৫৯৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। বুধবার সুস্থ হওয়া ১৯২ জনের মধ্যে ১৬৮ জনেরই বাড়ি বগুড়া। এ দিন রাজশাহীর তিন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের এক, নওগাঁর পাঁচ, নাটোরের ৯, জয়পুরহাটের এক এবং পাবনার পাঁচজন সুস্থ হয়েছেন। গোটা বিভাগে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন দুই হাজার ৮৭৩ জন। এর মধ্যে রাজশাহীর ২৫৭ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৯১ জন, নওগাঁর ৪৩০ জন, নাটোরের ৯৭ জন, জয়পুরহাটের ১৬৪ জন, বগুড়ার এক হাজার ৫২৫ জন, সিরাজগঞ্জের ১১৪ জন এবং পাবনার ১৯৫ জন করোনামুক্ত হয়েছেন।
রাজশাহীতে করোনায় একজনের মৃত্যু, উপসর্গে আরো এক : রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে করোনাভাইরাসে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া করোনার উপসর্গ নিয়ে আরেকজনের মৃত্যু হয়েছে। তিনিও করোনা আক্রান্ত ছিলেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই তার লাশ গ্রামের বাড়ি নিয়ে যাওয়া হয়নি। এই ব্যক্তির নাম শ্যামাপদ (৬৫)। নওগাঁ সদর উপজেলার পাড় নওগাঁয় তার বাড়ি। আর করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তির নাম তোফাজ্জল হোসেন (৫৮)। তার বাড়ি রাজশাহী নগরীর মালোপাড়া ভুবন মোহন পার্ক এলাকায়। পেশায় তিনি একজন ব্যবসায়ী ছিলেন। আর শ্যামাপদ ছিলেন গ্রাম্য চিকিৎসক।
কুমিল্লায় সাতজনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৫৭
কুমিল্লা সংবাদদাতা জানান, কুমিল্লা নগরীতে ১৩ জনসহ নতুন করে কুমিল্লা জেলায় ৫৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। কুমিল্লায় বৃহস্পতিবার ৯৩ জন সুস্থ হয়েছেন। মারা গেছেন সাতজন। এ পর্যন্ত ২১ হাজার ২৬৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ফল এসেছে ২০ হাজার ৬২৫টি নমুনার। জেলায় সর্বমোট করোনা শনাক্ত হয়েছে চার হাজার ২২৪ জনের। কুমিল্লার সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয় কুমিল্লা সিটি করপোরেশন এলাকার ১৩ জন, চৌদ্দগ্রামে চারজন, দেবিদ্বারে সাতজন, মুরাদনগরে ছয়জন, লাকসামে আটজন, নাঙ্গলকোট ও তিতাসে ছয়জন করে, মনোহরগঞ্জে পাঁচজন, আদর্শ সদর ও সদর দক্ষিণে একজন করে। এ দিন কুমিল্লায় ৯৩ জনসহ এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন দুই হাজার ১২৪ জন। নতুন করে সাতজনসহ এ পর্যন্ত মারা গেছে ১১৯ জন।
মঠবাড়িয়ায় উপসর্গ নিয়ে স্কুলশিক্ষিকার মৃত্যু
মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) সংবাদদাতা জানান, পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার ১১১ নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা মনিরা বেগম (৪০) করোনা উপসর্গ নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় মৃত্যুবরণ করেছেন। মৃত মনিরা বেগম উপজেলার সবুজনগর এলাকার দেলোয়ার হোসেন মুন্সির মেয়ে ও একই গ্রামের বাবুল মিয়ার স্ত্রী। গত চার-পাঁচ দিন আগে তার শরীরে জ্বর, সর্দি কাশি শুরু হয়। গতকাল সকালে অবস্থার অবনতি হলে মঠবাড়িয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল ১০টায় তিনি মারা যান।
জামালপুরে শিক্ষকসহ দুইজনের মৃত্যু
জামালপুর ও সরিষাবাড়ী সংবাদদাতা জানান, জামালপুরে শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজের করোনা আইসোলেশন সেন্টারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা রোগী মহিউদ্দিন (৫৫) নামে এক মাদরাসাশিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে। গত বুধবার রাত ১০টার দিকে তিনি মারা যান। তিনি জেলার সরিষাবাড়ী পৌরসভার মাইজবাড়ী গ্রামের মৃত কলিম উদ্দিনের ছেলে এবং সরিষাবাড়ী পৌরসভার কোনাবাড়ী দাখিল মাদরাসার সহকারী শিক্ষক ছিলেন।
এ ছাড়াও ময়মনসিংহের এস কে হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন সেন্টারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জামালপুরের সরিষাবাড়ী পৌরসভার করোনা রোগী তয়েজ আলীর (৭০) মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তিনি মারা যান বলে নিশ্চিত করেছেন জামালপুরের সিভিল সার্জন ডাক্তার প্রণয় কান্তি দাস। তিনি জেলার সরিষাবাড়ী পৌরসভার সিমলা বাজারের কুমলিবাড়ি এলাকার মৃত সুরুজ আলীর ছেলে। গত ১ জুলাই জামালপুরের শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজের করোনা আইসোলেশন সেন্টারে থেকে তাকে ময়মনসিংহের এস কে হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন সেন্টারে রেফার্ড করা হয়েছিল।
এদিকে সর্বশেষ প্রতিবেদনে জামালপুরে নতুন করে আরো আটজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় পাঁচজন, ইসলামপুর উপজেলায় একজন, মেলান্দহ উপজেলায় একজন ও বকশীগঞ্জ উপজেলায় একজন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৬৬৯ জন।
বগুড়ায় জনতা ব্যাংকের আরেক সিনিয়র অফিসারের মৃত্যু
বগুড়া অফিস জানায়, বগুড়ায় করোনায় জনতা ব্যাংকের আরো এক সিনিয়র কর্মকর্তার মৃত্যু হয়েছে। তিনি হলেন বগুড়া শহরের চকলোকমানের বাসিন্দা এবং জনতা ব্যাংক লিমিটেড সপ্তপদী শাখার সিনিয়র অফিসার আনিছুল হক ওরফে নান্টু (৫৭)। গত বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বেসরকারি টিএমএসএস মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ নিয়ে করোনায় বগুড়া শহরে জনতা ব্যাংকের দুইজন সিনিয়র অফিসারের মৃত্যু হলো।
সাতক্ষীরা সংবাদদাতা জানান, সাতক্ষীরায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে দুই চিকিৎসক, দুই স্বাস্থ্যকর্মী ও এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ আরো ২৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২৯৩ জন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়রে (যবিপ্রবি) জিনোম সেন্টার থেকে পাওয়া নমুনা রিপোর্ট ২৪ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে সাতক্ষীরার স্বাস্থ্য বিভাগ। সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসের মেডিক্যাল অফিসার ডা: জয়ন্ত সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
মাগুরা সংবাদদাতা জানান, মাগুরায় নতুন করে ছয়জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৭৯ জন। মাগুরা সিভিল সার্জন ডা: প্রদিপ কুমার সাহা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় নতুন ছয়জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। যার মধ্যে ইতোমধ্যে নতুন ছয়জনসহ সুস্থ হয়েছেন ৭৫ জন। শনাক্ত হওয়া ছয়জনের মধ্যে মাগুরা সদরে পাঁচজন ও শ্রীপুর উপজেলায় একজন। মাগুরায় এখন পর্যন্ত মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৭৯ জনের। করোনায় এ পর্যন্ত মারা গেছেন সাতজন।
টাঙ্গাইল সংবাদদাতা জানান, টাঙ্গাইলে নতুন করে আরো ১৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত জেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৮৫২ জনে। এ পর্যন্ত মারা গেছেন ১৭ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৪২৩ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন ৪১২ জন। টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা: মোহাম্মদ ওয়াহীদুজ্জামান জানান, নতুন আক্রান্ত ১৫ জনের মধ্যে টাঙ্গাইল সদরে সর্বোচ্চ চারজন, মধুপুর ও কালিহাতীতে তিনজন করে, মির্জাপুরে দুইজন, ঘাটাইল, নাগরপুর ও সখিপুরে একজন করে রয়েছেন। এখনো করোনা রিপোর্ট পেন্ডিং আছে ৭৭ জনের।
নোয়াখালী সংবাদদাতা জানান, নোয়াখালীতে এক দিনে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৮ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দুই হাজার ৪০০ জন। নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে নোয়াখালী সদর উপজেলায় ১০ জন, সুবর্ণচরে আটজন, বেগমগঞ্জে আটজন, সেনবাগে একজন, কোম্পানীগঞ্জে ছয়জন ও কবিরহাটে পাঁচজন রয়েছেন। জেলায় মোট মৃত্যু হয়েছে ৫২ জনের। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে জেলা সিভিল সার্জন মাসুম ইফতেখার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
ঝিনাইদহে বৃদ্ধের মৃত্যু
ঝিনাইদহ সংবাদদাতা জানান, ঝিনাইদহে গতকাল নতুন করে আরো ৩৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাব থেকে আসা ফলাফলের ৭৭ ফলাফলের মধ্যে ৩৩ জনের রিপোর্ট পজিটিভ। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৩৬৬ জনে। ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা: সেলিনা বেগম এসব তথ্য জানিয়েছেন। অন্যদিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত রাকিব হোসেনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। রাকিব করোনা উপসর্গ নিয়ে গত ৭ জুলাই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে মারা যান। এ দিকে ঝিনাইদহে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তাজুল ইসলাম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। তিনি ঝিনাইদহ শহরের ট্রাক টার্মিনাল পাড়ার বাসিন্দা। এক সপ্তাহ আগে তার করোনা শনাক্ত হয়। নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল সকালে মারা যান। ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা: সেলিনা বেগম এ তথ্য জানিয়েছেন।
যশোর অফিস জানায়, যশোরে নতুন করে আরো ২৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট ৮২৯ জন করোনায় আক্রান্ত হলেন। এ পর্যন্ত জেলায় করোনায় মারা গেছেন ১৪ জন। সুস্থ হয়েছেন ৩৭৬ জন। যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) এনএফটি বিভাগের চেয়ারম্যান ও জেনোম সেন্টারের পরীক্ষণ দলের সদস্য ড. শিরিন নিগার জানান, বুধবার তাদের ল্যাবে মোট ২৭১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ৭৯টি পজিটিভ রেজাল্ট দিয়েছে। বাদ বাকি ১৯২টি নমুনা ছিল নেগিটিভ। এ দিন যশোরের ১১৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৯টি পজিটিভ রেজাল্ট পাওয়া যায়। এ ছাড়া মাগুরার ৩৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ছয়টি, বাগেরহাটের ৬৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৮টি এবং সাতক্ষীরার ৫৬টির মধ্যে ১৬টি নমুনা পজিটিভ রেজাল্ট দেয়। যশোরের সিভিল সার্জন ডা: শেখ আবু শাহীন জানান, সকালে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২৯টি নমুনাকে পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত করা হয়, তার সব ক’টিই নতুন। শনাক্তদের অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে জানিয়ে সিভিল সার্জন বলেন, সংশ্লিষ্ট এলাকা লকডাউন করা হবে।
গলাচিপা (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার গলাচিপায় আরো তিনজনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ উপজেলায় মোট রোগীর সংখ্যা ৩৪ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে আটজন ও মারা গেছেন চারজন।
কলারোয়া (সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা জানান, সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন আরো সাতজন। গতকাল বৃহস্পতিবার এ রিপোর্ট এসেছে। এ নিয়ে উপজেলায় মোট আক্রান্ত হলেন ৪২ জন। তাদের মধ্যে ১১ জন ইতোমধ্যে সুস্থ হয়েছেন।
জুড়ী (মৌলভীবাজার) সংবাদদাতা জানান, মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার বেলাগাও গ্রামের একজন (৫৫) রোগী জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। গত বুধবার তার করোনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ আসে। পরে তাকে করোনার জন্য বিশেষায়িত শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।
কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) সংবাদদাতা জানান, নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরো পাঁচজনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে উপজেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৩৫ জন। এর মধ্যে ৪৭ জন সুস্থ হয়েছেন এবং একজনের মৃত্যু হয়েছে।

 


আরো সংবাদ

আরো বহু মুসলিম দেশ এগিয়ে আসবে : নেতানিয়াহুর আকুতি বিষখালী নদীর ভাঙনে পাল্টে যাচ্ছে বেতাগীর মানচিত্র ভারতীয়দের নেপাল ভ্রমণে কড়াকড়ি ব্যবস্থা, মানতে হবে সেসব নতুন শর্ত বাংলাদেশে ভারতের পরবর্তী হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী আড়াইহাজারে পানিতে ডুবে স্কুলছাত্রের মৃত্যু সব নাগরিকের জন্য বিনামূল্যে ভ্যাকসিন সরবরাহ করবে যুক্তরাষ্ট্র ঘিওরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, ভাঙনের আশঙ্কায় বসতবাড়ি-ফসলি জমি মিরসরাইয়ে অস্ত্র বিক্রি করতে গিয়ে র‌্যাবের ফাঁদে গ্রেফতার যুবক যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে ৩ কিশোর নিহত : যা বলছে আহতরা আর্ত-মানবতার কল্যাণে বন্যার্তদের পাশে এসে দাঁড়ান : ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ ঢাকাস্থ পাকিস্তান হাইকমিশনে ৭৪তম স্বাধীনতা দিবস পালিত

সকল