৩১ মার্চ ২০২০
বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা উপেক্ষিত

এটিএম বুথে পর্যাপ্ত টাকা নেই গ্রাহক হয়রানি চরমে

দু’দিনে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাড়ে ২২ হাজার কোটি টাকা সরবরাহ
-

আজ স্বাধীনতা দিবসের ছুটিতে ব্যাংক বন্ধ থাকবে। পরের দু’দিন শুক্র ও শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি। ফলে এক টানা তিন দিন ব্যাংক লেনদেন করা যাবে না। পরের দিন অর্থাৎ ২৯ মার্চ থেকে সীমিত আকারে ২ ঘণ্টা ব্যাংক লেনদেন করা যাবে। এ কারণে গতকাল সাধারণ গ্রাহকের প্রয়োজনীয় কেনাকাটা করতে ব্যাংক থেকে বাড়তি অর্থ উত্তোলন করার প্রয়োজন দেখা দেয়। কিন্তু করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে নেয়া পদক্ষেপের কারণে বেশির ভাগ ব্যাংকের শাখায় প্রবেশ করা থেকে টাকা উত্তোলন পর্যন্ত বাড়তি ঝামেলা পোহাতে হয়। এ ঝামেলা এড়াতে তাই গ্রাহক ছোটেন ব্যাংকগুলোর এটিএম বুথে। কিন্তু বেশির ভাগ এটিএম বুথেই দুপুরের পর টাকা ছিল না। টাকা উত্তোলনের জন্য গ্রাহক এক ব্যাংকের শাখা থেকে আরেক ব্যাংকের শাখায় ছোটেন। কিন্তু সেখানেও নেটওয়ার্ক ত্রুটি দেখানো হয়। এতে টাকা না পেয়ে গ্রাহকরা চরম দুর্ভোগের শিকার হন।
বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে গত মঙ্গলবার জারি করা সার্কুলারে নির্দেশ দেয়া হয়, ব্যাংক লেনদেন সীমিত করায় ব্যাংকের এটিএম বুথগুলোতে পর্যাপ্ত নোট সরবরাহ করতে হবে। একই সাথে গ্রাহক যাতে তাদের প্রয়োজন মেটানোর মতো অর্থ উত্তোলন করতে পারেন সেজন্য এটিএম বুথগুলো সার্বক্ষণিক চালু রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিশ্চিত করারও নির্দেশ দেয়া হয়। কিন্তু সার্কুলার জারির একদিন যেতে না যেতেই ব্যাংকগুলোর এটিএম বুথে পর্যাপ্ত অর্থ না পাওয়া কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা উপেক্ষা করার শামিল বলে মনে করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো: সিরাজুল ইসলাম। তিনি বলেন, সেসব ব্যাংকের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ পাওয়া যাবে সেগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র বলেন, ব্যাংকের এটিএম বুথে যেন পর্যাপ্ত নোট রাখা হয় সেজন্য বাংলাদেশ ব্যাংক দু’দিনে প্রায় সাড়ে ২২ হাজার কোটি টাকা সরবরাহ করেছে। এর মধ্যে গত ২৪ মার্চ ১৩ হাজার ৬২২ কোটি টাকা এবং গতকাল ২৫ মার্চ ৮ হাজার ৬৫৮ কোটি ৯৫ লাখ টাকা সরবরাহ করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে কোনো ত্রুটি রাখা হয়নি। এরপরেও যদি ব্যাংকগুলোর এটিএম বুথে পর্যাপ্ত না রাখে তাহলে সেটা দুঃখজনক। কোনো ব্যাংকের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে।
জানা গেছে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা পরিপালনের জন্য ব্যাংকগুলোকে পরামর্শ দেয়া হয়েছিল। ওই পরামর্শ অনুযায়ী ব্যাংকগুলো প্রতিটি শাখায় বাড়তি সতর্কতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করে। এই সতর্কতার অংশ হিসেবে কোনো কোনো শাখায় গ্রাহকের সাথে বাড়াবাড়ি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শাহরিয়ার হাসান নামের একজন গ্রাহক গতকাল সকালে মতিঝিলের একটি বেসরকারি ব্যাংকের শাখায় টাকা উত্তোলন করতে যান। শাখার প্রবেশ মুখেই প্রথমে তার তাপমাত্রা নির্ণয় করা হয়। কিন্তু তার তাপমাত্রা একটু বেশি হওয়ায় তাকে শাখায় প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। পরামর্শ দেয়া হয় এটিএম বুথে যাওয়ার জন্য। তিনি বলেন, তিনি আধা ঘণ্টা হেঁটে এসেছেন। কিন্তু তার কোনো কথাই শোনা হয়নি। বাধ্য হয়ে তিনি এটিএম বুথে যান। কিন্তু সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের মতিঝিলের এটিএম বুথে টাকা উত্তোলনের জন্য গেলে সেখানেও দেখা যায় দীর্ঘ লাইন। কিন্তু তার সিরিয়াল আসার আগেই এটিএম বুথে টাকা শেষ হয়ে যায়। এরপর সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের কয়েকটি এটিএম বুথ ঘুরে টাকা উত্তোলন করেন তিনি।
সেলিম হোসেন নামের একজন গ্রাহক জানান, তার অ্যাকাউন্ট আছে ইসলামী ব্যাংকে। এটিএম বুথ দূরে হওয়ায় আর বাসার পাশে ব্র্যাক ব্যাংকের বুথ থাকায় চার্জ দিয়ে হলেও বাসার পাশের ব্র্যাক ব্যাংকের বুথ থেকে টাকা উত্তোলন করেন। কিন্তু গতকাল টাকা উত্তোলন করতে গেলে নেটওয়ার্ক ত্রুটি দেখায়। পরে কষ্ট করে জি ব্লক থেকে সি ব্লকে ইসলামী ব্যাংকের বুথে গিয়ে টাকা উত্তোলন করেন।
ডাচ বাংলা ব্যাংকের মতিঝিল বুথেও গতকাল শামীম নামের একজন গ্রাহক গিয়ে টাকা উত্তোলন করতে পারেননি। তিনি নয়া দিগন্তকে গ্রাহক হয়রানির চিত্র উল্লেখ করে বলেন, ব্যাংকগুলোর শাখায় নানা কড়াকড়ি করা হচ্ছে। তারা এটিএম বুথ থেকে টাকা উত্তোলনের জন্য উৎসাহ দিচ্ছে। কিন্তু বুথে পর্যাপ্ত টাকা না থাকায় গতকাল দুপুরের পরে আর টাকা পাওয়া যায়নি। বাধ্য হয়ে অন্য ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে টাকা উত্তোলন করতে পেরেছেন। তিনি জানান, ব্যাংকে আজ থেকে টানা তিন দিন ছুটি। আগামী রোববার থেকেও ব্যাংক লেনদেন করা যাবে মাত্র দু’ঘণ্টা।
অর্থাৎ সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। আবার সারা দেশে পরিবহন যোগাযোগও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এ কারণে বাড়তি কেনাকাটার জন্য টাকা উত্তোলন করতে গতকাল তিনি নানা হয়রানির শিকার হয়েছেন। তিনি প্রশ্ন করেন, তাহলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলারের কার্যকারিতা কী থাকল।

 


আরো সংবাদ

করোনা আতঙ্কের মধ্যে গণজমায়েত করে বিচারের আয়োজন, মারামারি করে ভণ্ডুল চৌগাছায় অর্ধশত দুস্থ পরিবারকে খুঁজে খাদ্য সামগ্রী দিলেন ইউএনও ইরাকে করোনায় মৃতদের কবর দেয়া নিয়ে শঙ্কা মধুপুরে করোনা উপসর্গে এক যুবকের মৃত্যু, বাড়ি লকডাউন করোনা আতঙ্কে বন্ধ জাদুঘর! চুরি ভ্যান গগের আঁকা বহুমূল্য চিত্র করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩৯ হাজার ছাড়িয়েছে করোনা আতঙ্কে হবিগঞ্জে ২৩ চা বাগানের শ্রমিকরা স্বেচ্ছা ছুটিতে টাঙ্গাইলে হোম কোয়ারেন্টাইনে ৫১৮ জন মুন্সীগঞ্জে সামাজিক দূরত্ব মানছেন না অনেকেই, বসছে সাপ্তাহিক হাট হাসপাতালে ঠাঁই পেলেন জ্বর নিয়ে স্টেশনে পড়ে থাকা সেই নারী শিশু হাসপাতালে এটেনডেন্টদের খাবার দিচ্ছে ফ্রেন্ডস আরএমসি ৩৩+৩

সকল