১০ এপ্রিল ২০২০

আইসোলেশনে করোনাক্রান্ত প্রিন্স চার্লস

-

করোনাভাইরাস এবার ঢুকে পড়েছে ব্রিটিশ রাজপ্রাসাদেও। প্রিন্স চার্লসই আক্রান্ত হয়েছেন এ ভাইরাসে। এ মুহূর্তে স্কটল্যান্ডের বালমোরাল প্রাসাদে আইসোলেশনে রয়েছেন তিনি। তার স্ত্রী ডাচেস অব কর্নওয়াল ক্যামিলারও ডাক্তারি পরীক্ষা হয়েছে। তবে তার শরীরে করোনার সন্ধান পাওয়া যায়নি। তারপরও তিনি হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন।
গতকাল বুধবার ক্ল¬্যারেন্স হাউজের এক মুখপাত্র জানান, ৭১ বছর বয়সী প্রিন্স চার্লসের রিপোর্ট পজিটিভ। হালকা কিছু উপসর্গ দেখা দিলেও, এত দিন সুস্থই ছিলেন তিনি। বাড়ি থেকে কাজও চালিয়ে যাচ্ছিলেন। ডাচেস অব কর্নওয়ালেরও ডাক্তারি পরীক্ষা হয়েছে। তবে তার শরীরে ভাইরাস ধরা পড়েনি। চিকিৎসক ও সরকারের পরামর্শে এ মুহূর্তে স্কটল্যান্ডে রয়েছেন তারা।
গত ১০ মার্চ লন্ডনে একটি অনুষ্ঠানে মোনাকোর প্রিন্স অ্যালবার্টের সাথে মুখোমুখি বসেছিলেন চার্লস। চলতি সপ্তাহেই প্রিন্স অ্যালবার্টের শরীরে কোভিড-১৯ ভাইরাস ধরা পড়েছে। প্রিন্স অ্যালবার্টের সাথে সাক্ষাতের পরও চার্লসের মধ্যে করোনার উপসর্গ দেখা দেয়নি। যে কারণে ১২ মার্চ বাকিংহ্যাম প্রাসাদেও যান চার্লস। এমনকি বেশ কিছু অনুষ্ঠানেও যোগ দিতে দেখা যায় তাকে। করোনার প্রকোপ এড়াতে সেখানে করমর্দন এড়িয়ে যান চার্লস।
এ দিকে রানী এলিজাবেথ এই মুহূর্তে বাকিংহ্যাম প্রাসাদের বাইরেই রয়েছেন। ব্রিটেনে করোনা হানা দেয়ার কিছু দিন পরই স্বামী প্রিন্স ফিলিপের সাথে উইন্ডসর প্রাসাদে সরে যান তিনি। ছেলেমেয়েদের নিয়ে অ্যামনার হলে রয়েছেন প্রিন্স উইলিয়াম ও ডাচেস অব ক্যামব্রিজ কেট।


আরো সংবাদ