২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯, ৩০ সফর ১৪৪৪ হিজরি
`

নারী কর্মকর্তার ফাঁদ, ভল্ট থেকে ৯ মিলিয়ন ডলার নিয়ে চম্পট

নারী কর্মকর্তার ফাঁদ, ভল্ট থেকে ৯ মিলিয়ন ডলার নিয়ে চম্পট - ছবি : সংগৃহীত

ইনেসা ব্র্যান্ডেনবার্গ। প্রায় সাড়ে চার বছর আগে নিজেদের পরিচালনাধীন ব্যাংক থেকে প্রায় ৯ মিলিয়ন মার্কিন হাতিয়ে চম্পট দিয়েছিলেন ওই নারী। এত দিন খোঁজ মিলছিল না রাশিয়ার ওই নারীর। তবে অবশেষে তার খোঁজ মিলেছে। স্পেনেই নাকি গা ঢাকা দিয়েছিলেন তিনি। একেবারে নিখুঁত পরিকল্পনা করেছিলেন। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না ইনেসার। ইন্টারপোলের মাধ্যমে তাকে রাশিয়ায় ফেরৎ আনা হয়েছে।

এদিকে তদন্তে নেমে হতবাক রাশিয়ার পুলিশ। কিভাবে ওই বিপুল টাকা সরানো হয়েছিল? সূত্রের খবর, ব্যাংকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা তথা বোর্ডের চেয়ারম্যান গ্রিগোরি রোমানুতা। কার্যত তিনি ছিলেন ওই ব্যাংকের সর্বময় কর্তা। কিন্তু ইনেসার সাথে ছিল তার বিশেষ সম্পর্ক। আর সেই বন্ধুত্বের খাতিরেই রাতারাতি উত্থান ইনেসার। ভল্টের চাবিও নাকি থাকত তার কাছে। আর সেই সুযোগটাই কাজে লাগিয়েছিলেন তিনি।

২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে ব্যাংকের ভল্ট থেকে সরিয়ে ফেলেছিলেন প্রায় ৯ মিলিয়ন ডলার (৫৬১ মিলিয়ন রুশ রুবল)। এরপর সেখানে রাখা হয়েছিল থরে থরে মুদিখানার সামগ্রী। এরপর একেবারে পগার পার। এরপর প্রাইভেট জেট ধরে সোজা মস্কোয়। সেখান থেকে জার্মানির বার্লিনে। এরপর স্পেনেই তিনি বছর চারেক ধরে গা ঢাকা দিয়েছিলেন বলে খবর।

কিন্তু এত টাকা কেন ব্যাংকের ভল্টে রাখা হয়েছিল? তদন্তকারীদের দাবি এখানেও মাথা খাটিয়েছিলেন ইনেসা। তিনি ব্যাংককে বুঝিয়েছিলেন সুদ কমে গেলে গ্রাহকরা দলে দলে টাকা তুলতে আসবেন। সেক্ষেত্রে ভল্টেই টাকা রাখা দরকার। সেই টাকা হাতিয়েই চম্পট দিয়েছিলেন ইনেসা।
সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস


আরো সংবাদ


premium cement