০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ৪ জিলহজ ১৪৪৩
`

আবার আলোচনায় নর্দান আয়ারল্যান্ড প্রটোকল

-

আবারো আলোচনায় নর্দান আয়ারল্যান্ড প্রটোকল। সম্প্রতি নর্দান আয়ারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে প্রথমবারের মতো সবচেয়ে বেশি আসনে জিতেছে আয়ারল্যান্ডপন্থি দল শিন ফেইন। কিন্তু তাদের সাথে সরকার গঠনে যেতে রাজি হচ্ছে না যুক্তরাজ্যপন্থি দল ডিইউপি।

নির্বাচনে ৯০টি আসনের মধ্যে শিন ফেইন পেয়েছে ২৫টি আসন। আর ডিইউপি পেয়েছে ২৫টি আসন।

সরকারে যেতে ডিইউপি ২০২০ সালের ডিসেম্বরে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে সই হওয়া ব্রেক্সিট চুক্তিতে থাকা নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড প্রটোকল বাতিলের দাবি জানিয়েছে।

এই প্রটোকলে ইইউ থেকে ব্রিটেন চলে যাওয়ার পর নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের বাণিজ্যনীতি কী হবে, তা বলা আছে। আয়ারল্যান্ড দ্বীপে সীমান্ত নির্মাণ এড়াতে এই প্রটোকল করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, আয়ারল্যান্ড দ্বীপের আয়ারল্যান্ড অংশটি ইইউর সদস্য। আর নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড যুক্তরাজ্যের অংশ।

ডিইউ মনে করে, নর্দান আয়ারল্যান্ড প্রটোকলের কারণে যুক্তরাজ্যের সাথে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের সম্পর্ক দুর্বল হচ্ছে। কিন্তু শিন ফেইন ও তৃতীয় সর্বোচ্চ আসন (৯টি) পাওয়া অ্যালায়েন্স পার্টি (পুরো আয়ারল্যান্ড এক হওয়া প্রশ্নে তারা নিরপেক্ষ অবস্থান থাকে) ওই প্রটোকলের পক্ষে আছে।

ডিইউপি সরকার গঠনে রাজি হচ্ছে না বলে সম্প্রতি নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড সফরে গিয়েছিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। কিন্তু ডিইউপি নেতারা জনসনকে জানান, প্রটোকল বাতিল হলেই কেবল তারা সরকারে যোগ দেবেন।

এই অবস্থায় আগামী মঙ্গলবার ব্রিটিশ সংসদে ব্রেক্সিট চুক্তি থেকে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড প্রটোকল বাদ দেয়ায় প্রস্তাব উঠতে যাচ্ছে। ব্রিটেন জানিয়েছে, এই প্রটোকল নিয়ে ইইউর সাথে আলোচনা ভেঙে গেলেই কেবল ব্রিটেন এককভাবে ওই প্রটোকল বাতিলের সিদ্ধান্ত নেবে।

এমন সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে জানিয়েছেন আয়ারল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাইমন কোভনি।

ইইউ বলে, তারা প্রটোকলের নিয়ম-কানুন সংস্কার করতে রাজি আছে।

নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের সব বড় ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান আছে। এমন একটি গ্রুপ হচ্ছে, নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড বিজনেস ব্রেক্সিট ওয়ার্কিং গ্রুপ।

তারা বিশ্বাস করে, প্রটোকল কার্যকর হতে পারে। তবে এতে পাঁচটি সম্ভাব্য পরিবর্তন আনলে তা আরো ভালো হবে বলে মনে করছে তারা।

এদিকে যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ইকোনমিক অ্যান্ড সোশ্যাল রিসার্চের গবেষণা বলছে, সাম্প্রতিক সময়ে যুক্তরাজ্যের অর্থনীতির চেয়ে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের অর্থনীতি ভালো করছে। এর অন্যতম একটি কারণ নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড প্রটোকল বলে গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে।

সূত্র : ডয়চে ভেলে


আরো সংবাদ


premium cement