০৯ আগস্ট ২০২০

করোনা মহামারিতেও বাড়ির দাম বাড়ছে পর্তুগালে

করোনা মহামারিতেও বাড়ির দাম বাড়ছে পর্তুগালে - ছবি : নয়া দিগন্ত
24tkt

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যেও পর্তুগালের বেশির ভাগ এলাকায় কমেনি বাড়ির দাম বরং বেড়েই চলেছে। পর্তুগালের প্রধান শহর লিজবনে একটু কমলেও পর্তু ও কোইম্রা শহরে বেড়েছে অস্বাভাবিক হারে।

চলতি বছরের প্রথম কোয়ার্টারের তুলনায় দ্বিতীয় কোয়ার্টারে বাড়ির দাম বেড়েছে ০.৫%।বর্তমানে প্রত্যেক স্কোয়ার মিটারে বাড়ির দাম নির্ধারিত করা হয়েছে ২০৭০ ইউরো। যা আগের বছরের তুলনায় ৭.১ ভাগ বেশি।

দি আইডিয়ালিস্টা রিয়েল ইস্টেট পোর্টালের মতে, পর্তুগালের যেসব অঞ্চলে বাড়ির দাম বেড়েছে তা হলো নর্থ (২.৮%) ও আলগার্ভ (১.৯%)। অন্যদিকে দাম পড়েছে আলেনতেজু (-১.৬%), মাদেইরা (-০.৬%), লিজবন মেট্রোপলিটনে (-০.৩%) ও সেন্ট্রো (-০.২%)।


লিজবন মেট্রোপলিটন এরিয়াই হচ্ছে পর্তুগালের সবচেয়ে দামি এলাকা। মহামারিতে এখানে বাড়ির দাম কিছুটা কমেছে। বর্তমানে লিজবনে প্রত্যেক স্কোয়ার মিটারে বাড়ির দাম ২৯৯৭ ইউরো। এর পরের অবস্থানে আছে আলগার্ভ ২২৯৫ ইউরো ও নর্থ ১৭৬৫ ইউরো ও মাদেইরা ১৫৫৭ ইউরো।

অন্যদিকে সস্তার দিক থেকে আলেনতেজু এরিয়া হচ্ছে প্রথম। এখানে প্রত্যেক স্কোয়ার মিটারে বাড়ির দাম ১০৩১ ইউরো এবং সেন্ট্রো ১০৩৮ ইউরো।

প্রত্যেকটি জেলা বিশ্লেষণ করলে দেখা যায় পর্তু (৩.৪%), ব্রাগা (২.৬%), সেতুবাল (২.৪%), আভেইরো (২.২%), ফারো (১.৯%), ও ভিজু (১.৭%) দাম বেড়েছে।

অন্যদিকে দাম কমেছে বেজা ( -৩%), লেইরা (-১.২%), গোয়ার্দা (-০.৯%), সানাতারাই (-০.৬%), এভোরা (-০.২%)।

র‌্যাংকিং অনুযায়ী দামি জেলা হচ্ছে লিজবন ফারো ও পর্তু। অন্যদিকে সস্তা জেলা হচ্ছে গোয়ার্দা, পর্তালেগ্রা, ও কাস্টেলো ব্রাংকো।


আরো সংবাদ