০৬ জুন ২০২০

ইউরোপে করোনাভাইরাসে কনিষ্ঠতম শিশুর মৃত্যু

ইউরোপে করোনাভাইরাসে কনিষ্ঠতম শিশুর মৃত্যু - ছবি : সংগৃহীত

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বেলজিয়ামে ১২ বছর বয়সী এক মেয়ে শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ইউরোপে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতদের মধ্যে সে সর্বকনিষ্ঠ।

বেলজিয়াম সরকারের মুখপাত্র ডা. এমানুয়েল আন্দ্রে বলেন, করোনাভাইরাসে এত কম বয়সী কারো মারা যাওয়া খুবই বিরল ঘটনা। তার মৃত্যুতে আমরা শোকাহত।

আরেক মুখপাত্র স্টিভেন ভ্যান গুচ জানান, তিন দিন জ্বরে ভোগার পর মেয়েটি মারা যায়। তার কোভিড-১৯ টেস্টের ফল পজিটিভ এসেছিল। এছাড়া তার অন্য কোনো শারীরিক সমস্যা ছিল কী না, সে ব্যাপারে কিছু বলা হয়নি।

সর্বশেষ অফিসিয়াল তথ্য অনুযায়ী, এটি বেলজিয়ামে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে প্রথম কোনো শিশুর মৃত্যু। বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে ৭০৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বেলজিয়ামের এই মেয়েটি মারা যাওয়ার আগে, সবচেয়ে কম বয়সী শিশুর মৃত্যু হয়েছে পর্তুগালে। ভিটর গোধিনো নামের ওই ছেলের বয়স ছিল ১৪ বছর। রোববার ভোরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সে মারা যায়।

এর আগে ইউরোপে সবচেয়ে কম বয়সীর মৃত্যু হয়েছে ফ্রান্সে। ১৬ বছরের জুলি অ্যালিয়ট ২৫ মার্চ প্যারিসের একটি হাসপাতালে মারা যায়। কাশি ছাড়া তার অন্য কোনো শারীরিক সমস্যা ছিল না।

এদিকে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সারাবিশ্বে মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। সর্বশেষ পাওয়া তথ্য মতে, বিশ্বব্যাপী ৩৬ হাজার ৯৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সর্বাধিক ১১ হাজার ৫৯১ জন মারা গেছেন ইউরোপের দেশ ইতালিতে।

মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যাও। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে ৮ লাখ ৪ হাজার ৭৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। একই সাথে সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৭২ হাজার ৪৩৫ জন।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে প্রথম কোভিড-১৯ ভাইরাসের সংক্রমন শুরু হয়। এরপর ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়ে সারাবিশ্বে। বিশ্বের ২০০টি দেশ এবং অঞ্চলে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়েছে।

সূত্র : ডেইলি মেইল


আরো সংবাদ





justin tv