২৯ অক্টোবর ২০২০

বিএনপি প্রার্থী সালাহউদ্দিনের গণসংযোগে হামলা

বিএনপি প্রার্থী সালাহউদ্দিনের গণসংযোগে হামলা - ছবি : সংগৃহীত

ঢাকা-৫ সংসদ উপনির্বাচনের প্রচারণার দ্বিতীয় দিনে হামলার শিকার হয়েছেন বিএনপি প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ ও তার সমর্থকরা। এসময় সাংবাদিক মোর্শেদ মিলন, যাত্রাবাড়ী থানা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মো. রফিকুল ইসলাম রফিক, ছাত্রদল নেতা আশিকুর রহমান সুজন, মেহেদী হাসান রাব্বি সহ কয়েকজন নেতাকর্মী মারাত্বকভাবে আহত হন।

তাৎক্ষণিকভাবে এই হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বিএনপি প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ ও তার ছেলে তানভীর আহমেদ রবিন।

তানভীর আহমেদ রবিন বলেন, আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে হামলা চালানো হয়েছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই ও হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করার দাবি জানাচ্ছি।

এর আগে প্রতীক বরাদ্দের দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে তিনটায় রাজধানীর কদমতলীর ৬১ নং ওয়ার্ডের কুদারবাজার মোড় এলাকা থেকে নির্বাচনী গণসংযোগ শুরু করে, বাবর আলী মার্কেটে, হাজী নাসির উদ্দিন রোড, সরাই মসজিদ রোড, হাজী কমর আলী সড়ক, দক্ষিণ কুতুবখালির বিভিন্ন গলি, উত্তর কুতুবখালি খালপাড়, দনিয়া কবরস্থান রোড, দনিয়া রোড সহ দনিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যান বিএনপি প্রার্থী। গণসংযোগটি পুনরায় কুদারবাজার এলাকায় গেলে একদল সন্ত্রাসী হামলা চালায়।

এসময় তার সাথে সিটি করপোরেশনের ৬১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও সাবেক দনিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. জুম্মন মিয়া, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক তানভীর আহমেদ রবিন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম বাদল, যাত্রাবাড়ী থানা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রফিক সহ শতাধিক নেতাকর্মী ও সমর্থক উপস্থিত ছিলেন।

এসময় বর্ণমালা স্কুলের সামনে এক পথসভায় ১৭ তারিখ ভোট কেন্দ্রে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ঢাকা-৫ সংসদীয় আসনে বিএনপির প্রার্থী হাজী সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, এই সরকার জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে, তাই আমরা মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিতে এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি।

এসময় তিনি বলেন, আমি এই এলাকার সন্তান, এই এলাকা থেকে তিনবার নির্বাচিত হয়েছি। আমরা ১৭ তারিখ ভোট কেন্দ্রে থাকবো। আপনারা ভোটকেন্দ্রে যাবেন এবং যাকে খুশি তাকে ভোট দিবেন।

ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেন, আমি চাই জনগণ তার অধিকার ফিরে পাক। কারণ জনগন হচ্ছে এদেশের মালিক কিন্তু জনগণের সেই অধিকার এই সরকার হরণ করেছে। তাই আপনাদের কাছে অনুরোধ করবো এদেশের উন্নয়ন ও গণতন্ত্রের স্বার্থে ১৭ অক্টোবর ভোট কেন্দ্রে গিয়ে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারুণ্যের অহংকার দেশনায়ক তারেক রহমানের ধানের শীষে ভোট দিয়ে গণতন্ত্র পুঃনপ্রতিষ্ঠা করুন।

এসময় সাথে থাকা নেতাকর্মীরা বিভিন্ন স্লোগান দিয়ে আগামী ১৭ তারিখ সবাইকে ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার আহ্বান জানান।


আরো সংবাদ