০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯, ১১ রজব ১৪৪৪
ads
`

ইবিতে পিলারের আঘাতে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু

ইবিতে পিলারের আঘাতে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু - ছবি : নয়া দিগন্ত

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) নির্মাণাধীন ভবনের পাইলিং করার সময় পিলারের আঘাতে ওবায়দুর রহমানের (৪০) নামের এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় প্রশাসন ভবনের সামনে নির্মাণাধীন ভবনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ওবায়দুরের বাড়ি পাবনা জেলার ঈশ্বরদী থানায়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সিকিউরিটি ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: আব্দুস সালাম সেলিম বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় প্রশাসন ভবনের সামনে নির্মাণাধীন ভবনে পাইলিংয়ের কাজ করছিলেন তিনি। এসময় যন্ত্রাংশ দিয়ে পিলারের অবশিষ্টাংশ কাটার সময় পিলারের বড় একটা অংশ তার শরীরের ওপর পড়ে। এতে গুরুতর আহত হন তিনি। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাম্বুলেন্সে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে ঘটনার প্রেক্ষিতে সন্ধ্যার পর শ্রমিকদের যথাযথ নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবিতে আন্দোলন শুরু করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এসময় বিশ্রামরত শ্রমিকদের থাকার কক্ষ থেকে বের করে দিয়ে পাশের টিনের বেড়া ভাঙচুর করেন তারা।

ঘর থেকে বের করে দেয়া এক শ্রমিক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘আমাদেরই সহকর্মী মারা গেল আবার আমাদের উপরই অত্যাচার করা হচ্ছে। একবার এসে বলতেছে বাসায় চলে যান, আবার বলতেছে রুমে থাকেন। আবার এসে রুম থেকে বের করে দিচ্ছেন। আমরা এই রাতে কোথায় যাব? আসলে গরীব মানুষের কোনো দাম নেই।’

আন্দোলনের সময় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা নির্মাণশ্রমিকদের যথাযথ নিরাপত্তা নিশ্চিত না করেই কাজ করানোর জন্য প্রশাসন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল বিভাগকে দায়ী করেন। পরে প্রক্টোরিয়াল বডির আশ্বাসে ছাত্রলীগ সভাপতি ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত তাদের চলে যেতে বললে আন্দোলন স্থগিত করেন তারা।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশল মুন্সী সহিদ উদ্দীন মো: তারেক বলেন, ওই শ্রমিকের মৃত্যুর জন্য অব্যবস্থাপনা দায়ী নয়। শ্রমিকদের যথাযথ নিরাপত্তার ব্যবস্থা ছিল। সম্পূর্ণ অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে ওই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।


আরো সংবাদ


premium cement