০৪ ডিসেম্বর ২০২০

ঢাবি : গবেষণা চুরির শাস্তিতে পৃথক ২ ট্রাইব্যুনাল, উন্নয়ন ফি অর্ধেক মাফ

-

চলতি শিক্ষাবর্ষে (২০১৯-২০) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষার্থীর উন্নয়ন ফি ৫০ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম সিন্ডিকেট। সভায় তিন শিক্ষকের গবেষণায় চৌর্যবৃত্তির শাস্তি নির্ধারণে পৃথক দুটি ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়েছে। সেই সাথে কমিয়ে আনা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রীষ্ম ও শীতকালীন ছুটি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সিন্ডিকেটের এক নিয়মিত বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত হয় বলে একাধিক সিন্ডিকেট সদস্য এসব বিষয় নিশ্চিত করেছেন।

সভা সূত্রে জানা যায়, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সামিয়া রহমান ও অপরাধবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক সৈয়দ মাহফুজুল হক মারজানের যৌথ গবেষণায় চৌর্যবৃত্তির শাস্তি নির্ধারণে এর আগের সিন্ডিকেট সভায় ট্রাইব্যুনাল গঠনের সিদ্ধান্ত হলেও ট্রাইব্যুনালে কারা থাকবেন তা সেদিন নির্ধারিত হয়নি। বৃহস্পতিবারের সভায় আইন অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন ও সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক মো: রহমত উল্লাহকে চেয়ারম্যান করে তিন সদস্যের একটি ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়েছে। এই ট্রাইব্যুনালের বাকি দুইজন সদস্যের মধ্যে একজন হবেন বিশ্ববিদ্যালয় সিনেটের প্রতিনিধি থেকে এবং অন্যজন হবেন অভিযুক্তদের (সামিয়া-মারজান) পক্ষ থেকে। শিগগিরই ওই দুই সদস্যের নাম ঠিক করে ভিসি মো: আখতারুজ্জামান ট্রাইব্যুনালকে নির্দিষ্ট সময় বেঁধে দেবেন। এটি সর্বোচ্চ আট সপ্তাহ পর্যন্ত হতে পারে।

তারা জানান, চৌর্যবৃত্তির অভিযোগে ২০১৮ সালে সিন্ডিকেটের এক সভা থেকে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ওমর ফারুকের ডিগ্রি বাতিল করা হয়েছিল, কিন্তু তিনি একাডেমিক কোনো শাস্তি পাননি। তার শাস্তি নির্ধারণের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনজীবী ও সিন্ডিকেট সদস্য এ এফ এম মেজবাহ উদ্দিনকে চেয়ারম্যান করে আরো একটি ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়েছে। এর বাইরে কিছু নিয়োগ-পদোন্নতি-চাকরিচ্যুতির বিষয়ে সিন্ডিকেটে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এদিকে, সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রীষ্মকালীন ছুটি ৪০ দিন থেকে কমিয়ে ২০ দিন করা হয়েছে। অন্যদিকে শীতকালীন ছুটি ১৭ দিন থেকে কমিয়ে ৭ দিন করা হয়েছে। এছাড়াও বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থী এবং তাদের অভিভাবকের কথা বিবেচনায় নিয়ে সভায় চলতি শিক্ষাবর্ষে বিভিন্ন বিভাগ ও ইনস্টিটিউটের উন্নয়ন ফি অর্ধেক (৫০ শতাংশ) কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোভিসি (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, শিক্ষার্থীরা আমাদের কাছে অনেকদিন ধরেই উন্নয়ন ফি কমানোর দাবি করে আসছিল। তাদের দাবির প্রেক্ষিতে আমরা ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের উন্নয়ন ফি ৫০ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

এদিকে, ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বাহাউদ্দিন ও অধ্যাপক ড. আবদুস সবুর খানের ফল জালিয়াতির তিন বছর পার হলেও সে বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এছাড়া সম্প্রতি বিভিন্ন পত্রিকায় আসা অধ্যাপক বাহাউদ্দিনের ভুলে ভরা গবেষণা ও একই গবেষণায় দুই ডিগ্রি, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষক মোহাম্মদ মাহমুদুর রহমান ওরফে বাহালুলের যৌন নিপীড়নে সর্বোচ্চ শাস্তির সুপারিশ এবং সংগীত বিভাগের অধ্যাপক ড. লীনা তাপসী খান (মুহসীনা আক্তার খানম)-এর পিএইচডি গবেষণায় জালিয়াতির বিষয়গুলো সিন্ডিকেটে ওঠেনি। এদের অনেকেই ভিসির আস্থাভাজন বলে বিষয়টি পাশ কাটিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো: আখতারুজ্জামানকে মোবাইলে ফোন দিলে তিনি বলেন, এগুলোর কোনো ফরমাল অভিযোগ আমরা পাইনি। পত্রিকায় নিউজের বিষয়ে বলা হলে তিনি বলেন, পত্রিকা তো কত কথাই বলতে পারে সবকিছু তো আর আমলে নেয়া যায় না। তাছাড়া এগুলো প্রোপার ওয়েতে না আসলে আমরা কিছু করতে পারি না।


আরো সংবাদ

রূপগঞ্জে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের কারাখানায় সন্ত্রাসী হামলা স্বল্পমূল্যে প্রতিটি মানুষের জন্য ভ্যাকসিন নিশ্চিত করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ছাত্রদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মিঠু'র সকল পদ স্থগিত ১৫ রানের চক্রে চক্কর খাচ্ছেন সাকিব আঘাত করলেন পাল্টা আক্রমণ হবে : ওবায়দুল কাদের বিশ্বকে কয়েক দশক করোনার সাথে লড়াই করতে হতে পারে : জাতিসংঘ মহাসচিব এদেশে কোনদিনও মৌলবাদী নীতির ঠাঁই হবে না : শেখ পরশ মালয়েশিয়ায় কারাবন্দী হাজার হাজার অভিবাসীদের শর্ত সাপেক্ষে বৈধকরণ পরিকল্পনা উইলিয়ামসনের ২৫১তে ভর করে নিউজিল্যান্ডের ৫১৯ ২৪ ঘণ্টায় ২ লাখের বেশি আক্রান্ত আমেরিকায় আর একটি স্প্যান বাকি, পদ্মাসেতুর ৬ কিলোমিটার দৃশ্যমান

সকল

সৌদি আরবে ইমাম হোসাইন মসজিদটি ভেঙে ফেলার নির্দেশ (১০৭২৭)অপশক্তি মোকাবেলা করে ইসলামের বিজয় নিশ্চিত করতে হবে : মামুনুল হক (৯১৪৮)রাজধানীতে সমাবেশের অনুমতি পায়নি সম্মিলিত ইসলামী দলগুলো (৮৩৫৮)ভাস্কর্যের নামে মূর্তি স্থাপন কোনোক্রমে মেনে নেয়া যায় না : সম্মিলিত ইসলামী দলসমূহ (৫৯৯৭)স্টেডিয়ামগুলোকে জেলে রূপান্তরের অনুমতি না দেয়ায় কেজরিওয়ালের ওপর ক্ষুব্ধ মোদি (৫৬৯৯)দেশের প্রয়োজনে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারের নির্দেশ সেনাপ্রধানের (৫৪১৬)আওয়ামী লীগের আপত্তি, মামুনুল হকের মাহফিল বাতিল (৫২৩৭)কোনো মুসলিম হিন্দু নারীকে বিয়ে করতে পারে কিনা (৪৯৫৯)বাবার ডাকে বাড়ি ফিরে বড় ভাইয়ের হাতে খুন (৪৬০৮)পাঠ্যসূচিতে থাকলেও গুরুত্ব হারাচ্ছে ইসলাম শিক্ষা (৪০৩৯)