১৭ মে ২০২২
`

আগস্টের আগে গম আমদানি করতে হবে না : খাদ্য সচিব

ভারতের নিষেধাজ্ঞা স্বল্পমেয়াদে, কোনো প্রভাব ফেলবে না
খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোছাম্মাৎ নাজমানারা খানুম - ছবি : ইউএনবি

গম রফতানিতে ভারতের নিষেধাজ্ঞার ফলে বাংলাদেশের আমদানির জন্য ইতোমধ্যে চুক্তিবদ্ধ তিন লাখ মেট্রিক টন গম কোনো প্রভাব ফেলবে না।

ইউএনবির সাথে আলাপকালে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোছাম্মাৎ নাজমানারা খানুম বলেন, এক লাখ মেট্রিক টনের এক-তৃতীয়াংশ ইতোমধ্যে বাংলাদেশের জন্য একটি জাহাজবোঝাই করা হয়েছে।

তিনি বলেন, স্বল্পমেয়াদে ভারতের নিষেধাজ্ঞা বাংলাদেশের খাদ্য নিরাপত্তার ওপর কোনো প্রভাব ফেলবে না। কারণ অভ্যন্তরীণ চাহিদা মেটাতে পর্যাপ্ত গম ইতোমধ্যেই আমদানি করা হয়েছে বা পাইপলাইনে রয়েছে।

খাদ্য সচিব বলেন, এই মুহূর্তে দেশের গমের মজুদ আগস্ট মাস পর্যন্ত টিকে থাকার জন্য যথেষ্ট এবং এর আগে কোনো গম আমদানির প্রয়োজন হবে না।

নাজমানারা খানুম আরো বলেন, ভারতীয় গম রফতানি নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তিতে উল্লিখিত তথ্যমতে, সরকার থেকে সরকার (জিটুজি) পর্যায়ে ভারত থেকে গম আমদানি করার সুযোগ এখনো থাকবে।

তবে বাংলাদেশ গম আমদানির জন্য বুলগেরিয়ার সাথে একটি চুক্তি করেছে এবং অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, ইউক্রেন ও রাশিয়াসহ অন্যান্য রফতানিকারকদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে।

খাদ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্যমতে, বাংলাদেশের বার্ষিক গমের চাহিদা প্রায় ৭.৫ মিলিয়ন মেট্রিক টন। যার মধ্যে বছরে গড়ে মাত্র এক মিলিয়ন মেট্রিক টন গমের উৎপাদন হয়।

চাহিদার অবশিষ্টাংশ ভারত, রাশিয়া, ইউক্রেন, কানাডা, আর্জেন্টিনা ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে গম আমদানি করে মেটানো হয়। যার সিংহভাগই বেসরকারি খাতে আমদানি করা হয়।

সচিব বলেন, সরকার মাত্র পাঁচ লাখ টন গম আমদানি করে। বাকি ছয় মিলিয়ন মেট্রিক টন বেসরকারি খাতে আমদানি করা হয়।

কম ব্যয়বহুল এবং সহজ পরিবহনের কারণে ২০২০-২১ সালে আমদানিকৃত পরিমাণের প্রায় ৬০ শতাংশ ভারত থেকে এসেছে।

২০১৯-২০ অর্থবছরে বাংলাদেশে গম রফতানি করে শীর্ষ পাঁচ দেশ হলো- ইউক্রেন, রাশিয়া, কানাডা, আর্জেন্টিনা ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

২০২০-২১ অর্থবছরে ভারত বাংলাদেশের প্রধান গম রফতানিকারক দেশ হিসেবে উঠে এসে ইউক্রেনকে তৃতীয় অবস্থানে নামিয়ে দিয়েছে। বাংলাদেশে কানাডার গম রফতানির পরিমাণও ২০১৯-২০ সালে প্রায় এক মিলিয়ন টন থেকে গত অর্থবছরে ১.৪ মিলিয়ন টনে বেড়েছে।

ক্রমবর্ধমান অভ্যন্তরীণ মূল্যবৃদ্ধি ঠেকাতে এবং বাংলাদেশসহ প্রতিবেশী ও ঝুঁকিপূর্ণ দেশের চাহিদা মেটাতে শনিবার গম রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ভারত।

এক বিবৃতিতে ভারতীয় ডিরেক্টরেট জেনারেল অব ফরেন ট্রেড (ডিজিএফটি) এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, ‘গমের রফতানি নীতি ... অবিলম্বে নিষিদ্ধ করা হয়েছে...।’

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইতোমধ্যে স্বাক্ষরিত বাণিজ্য চুক্তির চালান রফতানি করা যেতে পারে, তবে শনিবার থেকে গম রফতানির বিষয়ে নতুন কোনো আন্তর্জাতিক আদেশ নেয়া হবে না।

ডিজিএফটি’র বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এছাড়াও যদি কোনো দেশ বিশেষভাবে ভারত সরকারকে গম পাঠাতে অনুরোধ করে, সেক্ষেত্রে রফতানি নিষেধাজ্ঞা মওকুফ করা যেতে পারে।

সূত্র : ইউএনবি


আরো সংবাদ


premium cement
সিআরপিএফের দখলে বারানসীর জ্ঞানবাপী মসজিদ চত্বর আগামী জুলাই থেকে ট্রেড লাইসেন্স ছাড়া ব্যবসা করতে দেয়া হবে না : ডিএসসিসি মেয়র ত্রিপুরায় রাতারাতি মুখ্যমন্ত্রী বদল! শেষ রক্ষা হবে কি বিজেপির? সুইডেন ও ফিনল্যান্ডকে ন্যাটোতে দেখতে চায় না তুরস্ক সম্রাটের জামিন স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে দুদকের আবেদন কদমতলীতে গৃহবধূকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ : স্বামীসহ আটক ৪ হজযাত্রীদের পাসপোর্ট সংক্রান্ত জরুরি নির্দেশনা প্রেমের বিয়ের ৮ বছর পর স্ত্রীকে হত্যা, স্বামী গ্রেফতার রূপায়ণ সিটি উত্তরার প্রবেশ সড়ক উদ্বোধন চট্টগ্রাম বিশ্বের বৃহত্তম কার্বন বিপর্যয়ের ঝুঁকিতে জাপানি ‘সনি’ ব্র্যান্ড এখন পাওয়া যাবে সব ট্রান্সকম ডিজিটাল আউটলেটেও

সকল