১২ জুলাই ২০২০

একনেকে করোনাসহ ১০ প্রকল্প অনুমোদন

দেশের দক্ষিণাঞ্চলে চিংড়ি ঘেড়ের জন্য বাঁধের জায়গায় জায়গায় কেটে লবণাক্ত পানি আনা হচ্ছে। এতে বাঁধ হুমকির মুখে পড়ছে। স্থানে স্থানে যেন বাঁধ কাটা না হয় সেজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি এই বাঁধ কাটাকে বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী আরো বলেছেন, চিংড়ি চাষী সবাইকে একত্রে করে একটি পয়েন্ট দিয়ে পানি নেয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। আর এতে যে খরচ হবে তা চাষীদের দিতে হবে।

দীর্ঘ আড়াই মাস পর মঙ্গলবার শেরেবাংলা নগরস্থ এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা গণভবণ থেকে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে সভায় সভাপতিত্বে করেন। সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান আনুষ্ঠানিক ব্রিফিংএ অনুমোদিত প্রকল্প এবং প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাগুলো সাংবাদিকদের জানান। এ সময় পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. নূরুল আমীন এবং কমিশনের অন্যান্য সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী জানান, সভায় কোভিড-১৯ মোকাবেলার জন্য ২টি প্রকল্পসহ মোট ১০টি প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়। এই দশ প্রকল্পে মোট ব্যয় ১৬ হাজার ২৭ কোটি ৩ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারী অর্থায়ন ১৪ হাজার ৪০১ কোটি ৫২ লাখ টাকা। আর বিদেশী ঋণ এক হাজার ৮৮১ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। তিনি বলেন, কোভিড-১৯ সংশিøষ্ট দুটি প্রকল্প আগেই প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিয়েছেন। এখন শুধু একনেককে অবহিত করা হলো।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, একনেকে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, প্রাথমিক শিক্ষার জন্য উপবৃত্তি আর প্রকল্পে থাকবে না। এটাকে বাজেটে রাজস্ব খাতে নিয়ে যেতে হবে। দাশেরকান্দি পয়ঃশোধনাগার প্রকল্পটি অনেকদিন ধরে চলছে। এটাকে তাড়াতাড়ি শেষ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন।


আরো সংবাদ