১২ এপ্রিল ২০২১
`

‘শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষ ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠান’

‘শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষ ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠান’ - ছবি : সংগৃহীত

১৪ ডিসেম্বর, “শহীদ বুদ্ধিজীবী দিব” ১৯৭১ সালের এই দিনে পাকিস্তানিরা যখন তাদের অনিবার্য পরাজয় উপলব্ধি করে তখন পাকিস্তানি সেনাবাহিনী ও তাদের দোসর রাজাকার, আল-বদর, আল-শামস বাহিনীর প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় বাংলাদেশের বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মেধাবী মানুষদের ধরে নিয়ে গিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে।

তাই প্রতিবছরের মতো এবারও উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয় গভীর শ্রদ্ধাভরে এ দিনটিকে যথাযথ সম্মান ও মর্যাদার সাথে স্মরণ করার লক্ষ্যে এক বিশেষ ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের ভার্চুয়াল এ আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ড: এম আজিজুর রহমান, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোভিসি প্রফেসর ড: ইয়াসমীন আরা লেখা।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ড: এম আজিজুর রহমান বলেন,‘স্বাধীন বাংলাদেশের সম্ভাবনা ও নতুন রাষ্ট্রকে মেধাশূন্য করার ষড়যন্ত্র বাস্তবায়নে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বাংলাদেশের মেধাবী বুদ্ধিজীবীদের চোখ বেঁধে ধরে নিয়ে পৈশাচিকভাবে হত্যাযজ্ঞ চালায়। বাঙালি জাতি যাতে একটি স্বাধীন-সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বদরবারে মাথা উচু করে দাঁড়াতে না পারে সেই ষড়যন্ত্রের ধারাবাহিকতায় বাঙালির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের হত্যা করা হয়। যা বাংলাদেশ ও জাতির জন্য একটি কালো অধ্যায়’।

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের ভার্চুয়াল এ আলোচনা অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রেজিস্টার উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়- কাজী মহিউদ্দিন, উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা বিভাগের- অধ্যাপক তাসলিমা বেগম। উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক মমতাজ বেগম। এ সময় আলোচকরা তাদের আলোচনায় মধ্য দিয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের ইতিহাস ও তাৎপর্য তুলে ধরেন।

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠানটি সকাল ১১.৩০ মিনিটে শুরু হয় দুপুর ১টা পর্যন্ত চলে। উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয় ফেসবুক পেইজ ও ওয়েবসাইটে অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

ভার্চুয়াল এ আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, মো: শফিউল আলম চৌধুরী সহযোগী অধ্যাপক, সিএসই বিভাগ ও পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) ডিরেক্টর অব স্টুডেন্ট অ্যাফেয়ার্স, উত্তরা ইউনিভার্সিটি।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি



আরো সংবাদ