০২ মার্চ ২০২১
`

ভারত থেকে করোনার টিকা আসছে আজ

ভারত থেকে করোনার টিকা আসছে আজ - ছবি : সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে হার্ড ইমিউনিটি তৈরির উদ্দেশ্যে ৮-৯ কোটি মানুষকে করোনার টিকা দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশ সরকার। এক্ষেত্রে বাংলাদেশে টিকা আসছে ভারত থেকে। তবে প্রথম পর্যায়ে কত টিকা আসবে তা নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন সংখ্যা প্রকাশ করছে দুই মন্ত্রণালয়। আজ বৃহস্পতিবার ভারত সরকারের উপহারস্বরূপ ২০ লাখ টিকা আসছে। এ বিষয়ে উভয়ে মন্ত্রণালয় একমত হলেও বেসরকারিভাবে আজ আরো কী পরিমাণ টিকা আসবে তা নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন সংখ্যা দিয়েছে তারা। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানাচ্ছে, আজ উপহারের ২০ লাখ টিকার পাশাপাশি বেসরকারিভাবে ৫০ লাখসহ মোট ৭০ লাখ টিকা আসছে। অন্য দিকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, আজ কেবল ২০ লাখ টিকা আসবে। পরবর্তী সময়ে বাকি টিকা ধাপে ধাপে আসবে।

গতকাল রাজধানীর ফরেন সার্ভিস অ্যাকাডেমিতে চুক্তিভিত্তিক খামারবিষয়ক একটি অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আব্দুল মোমেন বলেছেন, বৃহস্পতিবার ভারত থেকে উপহার হিসেবে পাওয়া ২০ লাখ করোনাভাইরাসের টিকার পাশাপাশি বেসরকারিভাবে (বেক্সিমকো) আমদানি করা ৫০ লাখ টিকা আসছে। মোট ৭০ লাখ টিকা হাতে পাওয়ার পর বাংলাদেশে কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচি শুরু করা হবে। তিনি বলেন, টিকা পাওয়ার বিষয়ে আমরা এখন যথেষ্ট নিশ্চিত। টিকাদান কর্মসূচি ধারাবাহিকভাবে চলতে থাকবে। রাশিয়া, চীনসহ আরো কয়েকটি দেশ আমাদের টিকা দেয়ার জন্য আগ্রহ দেখিয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় উপহার হিসেবে ভারতের দেয়া টিকা আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তর করা হবে। বাংলাদেশ আগামী ছয় মাসে তিন কোটি ডোজ ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা কোভিশিল্ড পাবে। এ ব্যাপারে সেরাম ইনস্টিটিউটের সাথে বেক্সিমকোর চুক্তি হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী টিকাগুলো বাংলাদেশ সরকারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। পাশাপাশি বেক্সিমকো নিজেরা বাজারজাত করার জন্য কোভিশিল্ড আনছে।

অন্য দিকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য বিভাগের সচিব মো: আব্দুল মান্নান সাংবাদিকদের জানান, বৃহস্পতিবার ভারত সরকারের উপহারস্বরূপ ২০ লাখ টিকা আসবে। গতকাল বুধবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ভ্যাকসিনবিষয়ক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব তথ্য জানিয়ে বলেন, ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট থেকে কেনা টিকার প্রথম চালান ৫০ লাখ আসবে পরবর্তী সময়ে। সব মিলিয়ে প্রথম ধাপে এক কোটি ৬০ লাখ মানুষকে টিকা দেয়া হবে। ভারত থেকে আরো তিন কোটি ডোজ টিকা আসবে। এ ছাড়া কোভ্যাক্স (বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিনামূল্যের টিকা) থেকে আসবে ছয় কোটি ৮০ লাখ ডোজ।

জনসংখ্যার ভিত্তিতে টিকার এ সংখ্যা ঠিক আছে নাকি পরে আরো টিকা আনা হবে জানতে চাইলে স্বাস্থ্যসচিব বলেন, আরো টিকা আনার প্রস্তুতি সরকারের রয়েছে। কোভ্যাক্স থেকে মোট জনসংখ্যার ২০ শতাংশ হিসাবে ছয় কোটি ৮০ লাখ ডোজ টিকা আসবে, যা তিন কোটি ৪০ লাখ মানুষকে দেয়া যাবে। এ দুই সোর্স থেকে মোট চার কোটি ৯০ লাখ মানুষকে টিকার আওতায় আনা যাবে। ভারত সরকারের উপহারের ২০ লাখ ডোজ টিকা দেয়া যাবে ১০ লাখ মানুষকে। এই হিসাবে মোট ৫ কোটি পাঁচ লাখ মানুষ করোনা টিকার আওতায় আসবে। স্বাস্থ্যসচিব টিকা প্রসঙ্গে বলেন, আগামী জুন-জুলাইয়ের মধ্যে আমাদের বঙ্গভ্যাক্স ব্যবহারের জন্য বাজারে চলে আসতে পারে।



আরো সংবাদ


খালেদা জিয়ার পক্ষে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি আবেদনের শুনানি শুরু অর্থবহ স্বাধীনতার জন্য নৈতিক মূল্যবোধের ভিত্তিতে দেশ গড়তে হবে : ডা. শফিকুর হাজেরা বেগমের ইন্তেকালে জামায়াত আমীরের শোক সুইস ব্যাংকের প্রতি বিত্তশালীদের যে কারণে এতো আগ্রহ সৌদি যুবরাজের অনুগত বিশেষ বাহিনী বিলুপ্তিতে যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বান রিমান্ডে নিয়ে ছাত্রদল নেতাদের পৈশাচিক নির্যাতন চালানো হচ্ছে : রিজভী আইএইএ’তে ইরানবিরোধী প্রস্তাব পাস হবে কূটনীতির জন্য হুমকি : আরাকচি বোয়িং স্টারলাইনার পরীক্ষা মিশন স্থগিত ইরানের দিকে কেউ চোখ তুলে তাকানোর সাহস করে না : প্রতিরক্ষামন্ত্রী বোরেল এখনো ইরান ও আমেরিকাকে নিয়ে বসতে চান: মুখপাত্র দিহানের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন জমার সময় পেছাল

সকল