২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

বাংলাদেশে করোনায় আরো ৫০ জনের মৃত্যু

২৪ ঘণ্টায় নতুন আক্রান্ত ১,৯১৮
অধ্যাপক ডা: নাসিমা সুলতানা। - ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আরো ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে আক্রান্ত হয়েছেন আরো ১ হাজার ৯১৮ জন। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২ লাখ ৪৪ হাজার ২০ জন। আর মোট মারা গেছেন ৩ হাজার ২৩৪ জন।

আজ মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটায় স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানান অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা: নাসিমা সুলতানা।

তিনি আরো জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৭ হাজার ৭১২টি। শনাক্তের হার ২৪.৮৭ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৯৫৫ জন এবং এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৩৯ হাজার ৮৬০ জন। সুস্থতার হার ৫৭.৩১ শতাংশ।

মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে পুরুষ ৪৪ জন ও নারী ছয়জন। এবং এ পর্যন্ত মারা গেছেন পুরুষ ২ হাজার ৫৪৯ জন ও নারী ৬৮৫ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ঢাকা বিভাগে ২৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে পাঁচজন, রাজশাহী বিভাগে পাঁচজন, খুলনা বিভাগে চারজন, বরিশাল বিভাগে একজন, সিলেট বিভাগে একজন, ময়মনসিংহ বিভাগের একজন এবং রংপুর বিভাগে চারজন।

বয়স বিশ্লেষণে জানা যায়, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৪১-৫০ ছয়জন, ৫১-৬০ ১৭ জন, ৬১-৭০ ১৮ জন, ৭১-৮০ পাঁচজন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে একজন।

হাসপাতালে মারা গেছেন ৪৫ জন এবং বাড়িতে পাঁচজন।

২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে ৩৭৪ জনকে এবং আইসোলেশন থেকে ছাড় দেয়া হয়েছে ৭০৮ জনকে।

৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হওয়ার কথা জানায় সরকার।

১৮ মার্চ কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে প্রথম ব্যক্তির মৃত্যু হয়।


আরো সংবাদ

নতুন বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সামনে আনলো ইরান (১৮৫৪৯)ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ : সেই রাতের ঘটনা আদালতকে জানালেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ (১১২০৬)ক্রিকেট ছেড়ে সাকিব এখন পাইকারি আড়তদার! (১০৩৫০)নর্দমা পরিষ্কার করতে গিয়ে ধরা পড়ল দৈত্যাকার ইঁদুর! (ভিডিও) (৮০৮০)করোনার দ্বিতীয় ঢেউ : বাড়বে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি (৭৮৭৮)আজারবাইজানের পাশে দাঁড়ালেন এরদোগান, আর্মেনিয়াকে হুমকি (৬৯৭৯)যে কারণে আবারো ভয়াবহ যুদ্ধে জড়ালো আর্মেনিয়া-আজারবাইজান (৬০৮১)সিসিবিরোধী অব্যাহত বিক্ষোভে উত্তাল মিসর (৫৪২৫)এবার মথুরা! ঈদগাহ মসজিদ সরিয়ে জমি ফেরানোর দাবিতে আদালতে ‘‌ভগবান শ্রীকৃষ্ণ’‌ (৫২৭২)ড. কামাল ও আসিফ নজরুল ঢাবি এলাকায় অবা‌ঞ্ছিত : সন‌জিত (৫২৫৭)