৩১ মে ২০২০

সন্তানের লাশ নিজ হাতে কবর দেয়ার আকুতি বাবার

সন্তানের লাশ নিজ হাতে কবর দেয়ার আকুতি বাবার - ছবি : নয়া দিগন্ত

চিকিৎসাধীন ছেলের মৃত্যুর পর বাবাকে না জানিয়ে লাশ দাফন করে দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। অথচ ওই রোগীর করোনা নেগেটিভ ছিলো। এমতবস্থায় বৃহস্পতিবার ওই বাবা তার সন্তানের লাশ নিজ হাতে কবর দেয়ার আকুতি জানিয়ে গণমাধ্যমে একটি ভিডিও বার্তা পাঠিয়েছেন।

মরহুমের খালাতো ভাই মেহেদী জানান, আমার ভাই গত সাত দিন আগে জন্ডিসে আক্রান্ত হয়। তারপর আমরা তাকে ঢাকা নিয়ে আসি হাসপাতালে ভর্তি করার জন্য। বিভিন্ন হাসপাতাল ঘুরে ঘুরে বুধবার সকাল সাড়ে ৯ টায় আমরা কুয়েত-মৈত্রী হাসপাতালে তাকে সাসপেক্ট রোগী হিসেবে ভর্তি করানো হয়।

তিনি জানান, হাসপাতালে বলেছিলাম তার জন্ডিস হয়েছে তার কোনো শ্বাসকষ্ট হয়নি তার জ্বর হয়নি। তার ক‌রোনা হ‌য়ে‌ছে এমন কোনো লক্ষন দেখা দেয়নি। তারপরও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে সাসপেক্ট রোগী হিসেবে ভর্তি করিয়েছে। ভ‌র্তি হওয়ার কিছুক্ষণ পর মৃত তান‌জিম আহ‌মেদ (১৭)প্রচন্ড ব্যথা অনুভব করেন।

মরহুমের বাবা মো. জা‌কির আহ‌মেদ জানান, হাসপাতালের ক‌ন্ট্রোল রোমে তাৎক্ষ‌নিক জানাই কিন্তু হাসপাতালের কোনো ডাক্তার তা‌কে চি‌কিৎসা দেয় নি। সে ব্যাথায় বুধবার রাত সাড়ে ৩টায় ছটফট করতে করতে মৃত্যুর কোলো ঢলে পড়ে। তারপর আমাকেও কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়।

হাসপাতাল থে‌কে বলা হয় আপনার সন্তা‌নের লাশ হাসপাতালের হিম ঘ‌রে রাখা আছে। আপনার ছে‌লের এবং আপনার রক্ত নেয়া হ‌য়ে‌ছে। কাল‌কে দুপু‌রে রি‌র্পোট দি‌বে য‌দি আপনার ছে‌লের ক‌রোনা না হয় তাহ‌লে আপনা‌কে এবং আপনার ছে‌লের লাশ আপনা‌দের হ‌া‌তে বু‌ঝি‌য়ে দেয়া হ‌বে।

বৃহস্পতিবার দুপু‌রে রি‌র্পোটে এসেছে মো. তান‌জিম আহ‌মে‌দের কোনো ক‌রোনা হয়নি। রি‌র্পোটে ক‌রোনা ধরা প‌ড়ে নি। তাই তার বাবাকে বৃহস্পতিবার দুপুর দুইটায় ছেড়ে দেয়। কিন্তু সন্তা‌নের লাশ চাওয়ার পর এখন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ লাশ বু‌ঝি‌য়ে দি‌চ্ছে না । তারা বল‌ছে, আপনার সন্তা‌নের লাশ দাফন করা হ‌য়ে‌ছে।

এখন ছেলের লাশ নেয়ার জন্য হাসপা‌তা‌লের বাই‌রে অবস্থান কর‌ছেন অসহায় বাবা জাকির হোসেন।


আরো সংবাদ