০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ১৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

ঢাকায় রাজনৈতিক সহিংসতায় মার্কিন দূতাবাসের উদ্বেগ

ঢাকায় রাজনৈতিক সহিংসতা ও ভয়-ভীতি দেখানোর খবরে আমরা উদ্বিগ্ন : মার্কিন রাষ্ট্রদূত - ছবি : সংগৃহীত

রাজধানীর নয়াপল্টনে পুলিশের সাথে বিএনপির নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষে হতাহত ব্যক্তিদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছে মার্কিন দূতাবাস। সেই সাথে আইনের শাসনের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সবার প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) মার্কিন দূতাবাসের ফেসবুক পেজে এক পোস্টে সভা-সমাবেশের অধিকার রক্ষায় সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাস।

তিনি বলেছেন, ‘ঢাকায় রাজনৈতিক সহিংসতা ও ভয়-ভীতি দেখানোর খবরে আমরা উদ্বিগ্ন। আইনের শাসনের প্রতি শ্রদ্ধা এবং সহিংসতা, হয়রানি ও ভয়-ভীতি দেখানো থেকে বিরত থাকার জন্য আমরা সবার প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।’

উল্লেখ্য, ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় বিভাগীয় গণসমাবেশের ডাক দিয়েছে বিএনপি। তবে এর আগেই বুধবার (৭ ডিসেম্বর) বিকেলে পুলিশের সাথে বিএনপির নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষে নয়াপল্টন রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। সংঘর্ষে মকবুল আহমেদ নামের বিএনপির এক কর্মী নিহত হন। আহত হন দলটির অর্ধশত নেতা-কর্মী।

সংঘর্ষের পর বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অভিযান চালায় পুলিশ। সেখান থেকে দলের কেন্দ্রীয় নেতা রুহুল কবির রিজভী, আমানউল্লাহ আমান, আবদুস সালাম, খায়রুল কবির, শহীদ উদ্দীন চৌধুরী, শিমুল বিশ্বাস, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আবদুল কাদের ভূঁইয়াসহ কয়েক শ’ নেতা-কর্মীকে আটক করে পুলিশ। পরে এ ঘটনায় বিএনপির পাঁচ শতাধিক নেতা-কর্মীকে আসামি করে তিনটি মামলা দিয়েছে পুলিশ।

এদিকে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তল্লাশি চালায় পুলিশ। দুপুরে ওই কার্যালয়ে যেতে গেলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে কাকরাইলের নাইটিঙ্গেল মোড় থেকে ফিরিয়ে দেয়া হয়। বিকেল ৪টার দিকে বিএনপি কার্যালয়ের সামনের সড়ক যান চলাচলের জন্য ছেড়ে দেয়া হলেও ওই এলাকায় বিপুলসংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন রয়েছেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বিকেলে গুলশানে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনেই ১০ ডিসেম্বর বিভাগীয় গণসমাবেশ করবেন তারা। তবে এর মধ্যে গ্রহণযোগ্য বিকল্প জায়গার প্রস্তাব দেয়া হলে বিবেচনা করবেন।


আরো সংবাদ


premium cement