১০ আগস্ট ২০২০

পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তিতে যুক্তরাজ্যের বিনিয়োগ চেয়েছে বাংলাদেশ

24tkt

বাংলাদেশ সবুজ অর্থনৈতিক বাণিজ্য, পরিবেশবান্ধব দূষণমুক্ত প্রযুক্তি, নবায়নযোগ্য জ্বালানী ও আইটি-নির্ভর সেবাসমূহে যুক্তরাজ্যের সরাসরি নতুন বিনিয়োগ চাইছে।

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাই কমিশনার সাঈদা মুনা তাসনীম বলেন, ‘বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে মহামারী পরবর্তী বাণিজ্য ও বিনিয়োগ অংশীদারিত্বে যুক্তরাজ্যের বিনিয়োগকারীদের সবুজ অথনৈতিক ব্যবসা, পরিবেশবান্ধব দূষণমুক্ত প্রযুক্তি ও আইটি-নির্ভর সেবাসমূহে বিনিয়োগের ব্যাপারে বিশেষ মনযোগী হওয়া উচিৎ।’

বুধবার লন্ডনে বাংলাদেশ মিশনের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সোমবার কোভিড পরবর্তী বাংলাদেশে ব্রিটিশ এফডিআই শীর্ষক ভার্চুয়াল বৈঠকে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশের হাই কমিশনার একথা বলেন। বৈঠকটি যৌথভাবে আয়োজন করে বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট ডেভেলপমেন্ট অথোরিটি (বিআইডিএ) ও ব্রিটিশ বিজনেস গ্রুপ (বিবিজি)।

হাই কমিশনার বিআইডিএ-কে সবুজ অর্থনীতি, পরিবেশবান্ধব দূষণমুক্ত প্রযুক্তি, ও নবায়নযোগ্য জ্বালানী প্রকল্পে সহজের বিনিয়োগের জন্য একটি বিশেষ ‘ফোকাল পয়েন্ট’ গঠনের পরামর্শ দেন। এগুলো যুক্তরাজ্যের বৈদেশিক বিনিয়োগের প্রাধান্যপ্রাপ্ত খাত।

বাংলাদেশে ব্রিটিশ মাল্টিন্যাশনাল বিনিয়োগকারীদের গ্রুপ বিবিজিকে ‘ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডোর’ হিসেবে অভিহিত করে তাসনিম বাংলাদেশে নতুন করে ব্রিটিশ বিনিয়োগে বিবিজিকে সব ধরনের সহায়তা প্রদানের ব্যাপারে বিআইডিএকে আশ্বস্ত করেন। এর ফলে তারা বাংলাদেশে তাদের মুনাফাকে পুনরায় বিনিয়োগ করতে পারবেন।

এছাড়াও তিনি বিআইডিএ, ডিপার্টমেন্ট ফর ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড অ্যান্ড ডিপার্টমেন্ট ফর বিজনেস এনার্জি অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল স্ট্র্যাটেজির মধ্যে প্রাতিষ্ঠানিক সহযোগিতার পরামর্শ দেন। এটি জিটুজি (গভর্নমেন্ট টু গভর্নমেন্ট) সহযোগিতা।

বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটার্টন ডিক্সন, বিআইডিএ’র নির্বাহী চেয়ারম্যন মো. সিরাজুল ইসলাম ও বিবিজি চেয়ারম্যান মো. মাহবুব-উর-রহমান বৈঠকে বক্তব্য রাখেন। এ সময় কয়েকজন শীর্ষ স্থানীয় ব্রিটিশ উদ্যাক্তা সরাসরি প্রশ্ন-উত্তর অধিবেশনে অংশ নেন। বাসস


আরো সংবাদ