০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`
বিশ্বসাহিত্যের টুকিটাকি

মর্যাদাবান পুরস্কার পেলেন কেনার্ড

-

বৃটিশ কবি সমালোচক ও ঔপন্যাসিক লুক কেনার্ড শেকসপিয়রের সনেটের ওপর ব্যতিক্রমী কাজ করে এ বছরের কবিতার জন্য ব্রিটেনের সবচেয়ে মর্যাদবান পুরস্কার ফরোয়ার্ড কবিতা পুরস্কার লাভ করেছেন। পুরস্কারটির পোশাকি নাম ‘ফরোয়ার্ড প্রাইজেস ফর পোয়েট্রি’। বলা হচ্ছে কেনার্ডকে এই পুরস্কার দেয়া হয়েছে for anarchic response to Shakespeare. অ্যানার্কির প্রচলিত বাংলা নৈরাজ্য। এছাড়া আনসেটেলড, ডিজঅর্ডার - এর প্রতিশব্দ। ‘শেকসপিয়রের কবিতার ‘নৈরাজ্যকর’ প্রতিক্রিয়ার জন্য’ কথাটির চেয়ে এখানে আনসেটেলড বা অনিষ্পন্ন খাটে বেশি। লুকের এই কাজের মধ্য দিয়ে শেকসপিয়র এখনো ভালোভাবই আছেন ব্রিটিশ কবিতায়, বোঝা যাচ্ছে। বিচারকরা ভবিষ্যদ্বাণী করছেন লুকের কবিতা শেকসপিয়রের অভিজ্ঞতাকে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে সঞ্চারিত করতে পারে। (Judge’s predict that Luke Kennard’s poems could transform student’s experience of Shakespeare). কেনার্ড ‘নোটস অন দ্য সনেটস’ নামে একটি বই লিখে এ পুরস্কার লাভ করেন। পুরস্কারের অর্থমূল্য ১০ হাজার পাউন্ড। কেয়ো চিংগোনি এবং তিশানি দোসিসহ সংক্ষিপ্ত তালিকাভুক্ত কবিদের পরাজিত করে ‘নোটস অন দ্য সনেটস’ পুরস্কার জিতে নেয়। এটি হল শেকসপিয়রের সাড়া জাগানো গদ্য কবিতার জবাবে বা প্রতিক্রিয়ায় রচিত কবিতার সঙ্কলন। বিচারক প্যানেলের সদস্য কবি শিবানী রামলোচন বলেছেন, “অনেক শিক্ষার্থীকে শেকসপিয়র অধ্যয়ন করতে যেভাবে বাধ্য করা হয় তার সাথে সমসাময়িকতাকে সংযুক্ত করার জন্য এটি একটি ইনভাইটেশন বা আমন্ত্রণ। এই বইটি সেই সম্পর্ককে গভীর, মজার এবং চলমান পথে রূপান্তরিত করতে পারে।” লন্ডনে অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে প্রতি বছর এ পুরস্কার দেয়া হয়।
২৪ অক্টোবর দেয়া হয়েছে এ বছরের পুরস্কার। এ বছর এ পুরস্কারের ৩০ বর্ষ পূর্তি হলো। কবিতাকে উৎসাহিত করতে উইলিয়াম সিগহার্ট ১৯৯২ সালে এ পুরস্কার প্রবর্তন করেন। তিনটি বিভাগে সেরা কাব্য সঙ্কলন, সেরা প্রথম কাব্যগ্রন্থ এবং সেরা একক কবিতার জন্য পুরস্কার দেয়া হয়। ফরোয়ার্ড আর্টস ফাউন্ডেশন এ পুরস্কারের ব্যবস্থাপনায় রয়েছে। লুকের জন্ম ১৯৮১ সালে। তিনি বেশ কিছু বই লিখেছেন, কবিতার বইই বেশি, আছে দুটি উপন্যাস। তিনি অধ্যাপনায়ও নিযুক্ত।



আরো সংবাদ