১৯ এপ্রিল ২০২১
`

বিশ্বসাহিত্যের টুকিটাকি

-

বসনীয় যুদ্ধের কাহিনীনির্ভর ছবি অস্কারের শর্টলিস্টে
বসনিয়ার যুদ্ধের কথা অনেকেরই মনে থাকার কথা, মনে থাকার কথা স্রেব্রেনিৎসা শহরে নেদারল্যান্ডসের শান্তিরক্ষীদের সহায়তায় কয়েক হাজার বসনিয়াক হত্যার নির্মম সেই কাহিনীর কথা। বসনিয়াক বলা হয় বসনিয়ার মুসলমানদেরকে। সেখানে আট হাজার নিরপরাধ মুসলমানকে হত্যা করে সার্বরা। এই গণহত্যার কাহিনী নিয়ে উপন্যাস ছোট গল্প লেখা হয়েছে, ডকু ড্রামা নির্মিত হয়েছে। এবার নির্মিত হয়েছে আরো একটি চলচ্চিত্র ‘কুয়ো ভাদিস, আইদা’। এটি এ বছর অস্কার পুরস্কারের আন্তর্জাতিক অংশের শর্টলিস্টে স্থান করে নিয়েছে। এই চলচ্চিত্রটির উত্তর আমেরিকায় প্রদর্শনের স্বত্ব কিনে নিয়েছে নিওন লেবেল সুপার লিমিটেড। ছবিটি পরিচালনা করেছেন জাসমিলা ব্যানিচ। কাহিনীও তারই লেখা। এটি প্রথম প্রদর্শিত হয় ভেনিসে। পরে কানাডার টরন্টোতে। এতে মূল ভূমিকায় অভিনয় করেছেন জাসনা জুরিচিক।
১৯৯৫ সালে সার্ব বাহিনীর স্রেব্রেনিসা দখল ও গণহত্যার কাহিনী এর মূল উপজীব্য। স্রেব্রেনিসাকে জাতিসঙ্ঘের পক্ষ থেকে করা হয়েছিল নিরাপদ এলাকা বা সেফ জোন।
চলচ্চিত্রের চরিত্র আইদা সেখানে জাতিসঙ্ঘ শান্তিরক্ষী বাহিনীর একটি টাস্ক ফোর্স ক্যাম্পের অনুবাদকের কাজ করতেন। তার স্বামী ও দুই ছেলে সেই ক্যাম্পে আটক ছিল আরো কয়েক হাজার বসনীয় নাগরিকের সাথে। সেখানেই চলে নির্মম হত্যাকাণ্ড। কূপ ৯৯ ফিল্ম প্রোডাকশন (অস্ট্রিয়া), ডিজিটাল কিউব (রুমানিয়া), এন ২৭৯ (নেদারল্যান্ডস), রেজর ফিল্ম (জার্মানি), টিআরটিসহ (তুরস্ক) বিভিন্ন প্রোডাকশন হাউজের সহায়তায় এটি প্রয়োজনা করেছে বসনিয়াভিত্তিক ডেবলোকাডা। ছবিটি ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্পিরিট অ্যাওয়ার্ডের জন্যও মনোনীত হয়েছে।



আরো সংবাদ