২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

ফরিদপুরে আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শনে ১৫ দেশের প্রতিনিধিদল

ফরিদপুরে আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শনে ১৫ দেশের প্রতিনিধিদল - ছবি : নয়া দিগন্ত

ফরিদপুরের নগরকান্দায় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের দুর্যোগ সহনীয় আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করেছেন এশিয়ার ১৫টি দেশের জিও এবং এনজিও প্রতিনিধিরা।

বুধবার সকালে নগরকান্দা উপজেলার কাইচাইল ইউনিয়নের কফাইবাইলা গ্রামের আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করেন তারা। এ সময় ১০টি দেশের সরকারের বিভিন্ন দফতরে কর্মরত কর্মকর্তাবৃন্দ এবং ৬টি দেশের আন্তর্জাতিকভাবে কর্মকাণ্ড পরিচালনা করা বেসরকারি সংস্থার কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। তারা আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দাদের সাথে সময় কাটান এবং তাদের খোঁজখবর নেন। একইসাথে তারা মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী গৃহীত এই প্রকল্পের প্রশংসাও করেন।

জানা গেছে, এশিয়া শেল্টার ফোরামের আয়োজনে ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়া, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, ভারতসহ এশিয়ার ১৫টি দেশের জিও এবং এনজিও প্রতিনিধিরা এই পরিদর্শনে অংশ নেন। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের মহাপরিচালক মো: আতিকুল হকের নেতৃত্বে ৪০ সদস্যের দলটি নগরকান্দার আশ্রয়ণ প্রকল্পে এসে পৌঁছান। সকলকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান জেলা প্রশাসক অতুল সরকার ও পুলিশ সুপার মো: শাহজাহানসহ কর্মকর্তাবৃন্দ। পরে বাংলাদেশ সরকারের এই আশ্রয়ণ প্রকল্পগুলো ঘুরে দেখেন। এ সময় তারা এখানকার বাসিন্দাদের সাথে কথা বলেন এবং আশ্রয়ণ প্রকল্পের মাধ্যমে ছিন্নমূল মানুষেরা কিভাবে ঘুরে দাড়িয়েছে সে বিষয়গুলো সম্পর্কে ধারণা নেন। পরে সেখানে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অতিথিদের কুলার ডালা দিয়ে বরণ করা হয়। অন্যান্যের মধ্যে নগরকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম ইমাম রাজী টুলু, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ইকবাল কবিরসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

গত ২৮ নভেম্বর তিন দিনব্যাপী এশিয়া শেল্টার ফোরামের বার্ষিক সম্মেলনে যোগ দিতে ঢাকায় আসেন এই দলটি। ২৯ নভেম্বর ঢাকায় সম্মেলন শেষে ফিল্ড ভিজিটের অংশ হিসেবে আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শনে আসেন তারা। বিদেশী কর্মকর্তাদের আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শনে আসাকে কেন্দ্র করে প্রকল্পের বাসিন্দাদের মাঝে উৎসাহ লক্ষ্য করা গেছে। পুরো এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়।

বিদেশী এই প্রতিনিধিদলের সদস্য অনিতা রায় বলেন, বাংলাদেশের সরকারের এই উদ্যোগ প্রশংসার দাবি রাখে। ভূমিহীন মানুষদের এই প্রকল্প পৃথিবীর সকল দেশের জন্য অনুকরণীয়। আমরা সরকারকে ধন্যবাদ জানাই। আমরাও চেষ্টা করবো আমাদের দেশসহ বিভিন্ন দেশে এই কার্যক্রম বাস্তবায়নের।

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার জানান, আশ্রয়ণ প্রকল্প দেশের ভূমিহীন দরিদ্রদের যেমন উপকারে এসেছে, তেমনি বিদেশীদেরও নজর কেড়েছে। প্রধানমন্ত্রীর এই মহতি উদ্যোগ সারাবিশ্বে একটি মডেল হিসেবে প্রশংসিত হয়েছে।

তিনি জানান, ফরিদপুরের বিভিন্ন উপজেলায় ৫ হাজারের অধিক গৃহহীনের ঠিকানা গড়ে দেয়ার অংশ হিসেবে দুই শতাংশ জমিসহ ঘর প্রদান করা হয়েছে।


আরো সংবাদ


premium cement