২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯, ২৮ সফর ১৪৪৪ হিজরি
`

কার্ড দেয়ার প্রলোভনে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

কার্ড দেয়ার প্রলোভনে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ। - ছবি : নয়া দিগন্ত

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় কার্ড দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে মো: দেলোয়ার হোসাইন নামে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে দু’সন্তানের জননীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার গভীর রাতে উপজেলার বরাইদ ইউনিয়নে সাভার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি ধামাচাপা দিতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন স্থানীয় মাতব্বরেরা। তাদের হুমকিতে থানায় যেতে সাহস পাচ্ছেন না ওই ভুক্তভোগী পরিবার।

জানা গেছে, ভিজিএফ কার্ড পাইয়ে দেয়ার নামে স্বামীর অনুপস্থিতিতে গভীর রাতে গৃহবধূর ঘরে প্রবেশ করে ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসাইন। এ সময় তাকে ধর্ষণ করেন তিনি। তাদের ধস্তাধস্তিতে বিষয়টি টের পেয়ে ইউপি সদস্যকে আটক করে বেঁধে রাখে এলাকাবাসী। খবর পেয়ে স্থানীয় মাতব্বর আব্দুল বেপারী, বাবুল হোসেনসহ কয়েকজন আর্থিক সুবিধা নিয়ে বিচারের নামে তাকে কৌশলে ছাড়িয়ে নিয়ে যায় বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভুক্তভোগী গৃহবধূর দেবর জানান, মাতব্বররা আমাদেরকে থানা পুলিশে যেতে নিষেধ করেছেন। তারা ন্যায্য বিচার করে দেয়ার আশ্বাস দেন। এ সময় থানা পুলিশে গেলে আমাদের ক্ষতি হবে বলে শাসানোর অভিযোগ করেন তিনি।

আর্থিক সুবিধা আদায়ের অভিযোগ অস্বীকার করে আব্দুল বেপারী জানান, সামাজিকতা রক্ষায় বিষয়টি স্থানীয়ভাবে সুরাহা করা হয়েছে। মেম্বারকে রাতেই শাসিয়ে দেয়া হয় বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইউপি সদস্যকে একাধিকবার ফোন করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে ওই ইউপি সদস্যের ছোট ভাই আবদুল মান্নান ঘটনাটিকে চক্রান্ত বলে দাবি করেন।

এ ব্যাপারে সাটুরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) মো: আশরাফুল আলম বলেন, এ বিষয়ে কেউ অভিযোগ করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ


premium cement